ব্রেকিং:
দিনাজপুরে গত ২৪ ঘণ্টায় ৪ জন ব্যক্তি করোনা ভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৩৩৭৪ জনে। সোমবার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন দিনাজপুরের সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ আব্দুল কুদ্দুছ। অস্ত্র মামলায় রিজেন্টের শাহেদের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড
  • সোমবার   ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||

  • আশ্বিন ১৩ ১৪২৭

  • || ১০ সফর ১৪৪২

সর্বশেষ:
আজ শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন: রাজপথ থেকে অর্থনীতির কাণ্ডারি বাংলাদেশের পর্যটন পণ্যের সম্ভাবনা অনেক- পর্যটন প্রতিমন্ত্রী কুড়িগ্রামে ধরলার পানি বিপদসীমার ওপরে দিনাজপুরে দেয়ালচাপা পড়ে একই পরিবারের চারজন নিহত গ্রুপিং-লবিংয়ে বিপর্যস্ত বিএনপি
৫৮১

অপহরণের শিকার জলঢাকার ২ ব্যবসায়ীকে রংপুরে টিনশেড বাড়ি থেকে উদ্ধার

নীলফামারি বার্তা

প্রকাশিত: ৮ নভেম্বর ২০১৮  

রংপুরে সাড়ে ৭ লাখ টাকা মুক্তিপণের দাবিতে দুই ব্যবসায়ীকে অপহরণের ২৪ ঘন্টার মধ্যে র‌্যাব-১৩ এর সদস্যরা হাত-পা বাঁধা অবস্থায় তাদের উদ্ধার করেছে। বুধবার রাতে নগরীর মেডিকেল পাকার মাথা এলাকা থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়।

উদ্ধারকৃতরা হচ্ছেন, নীলফামারী জেলার জলঢাকা উপজেলার দক্ষিন দেশীবাই চৌধুরিরহাট এলাকার ইমদাদুল খানের ছেলে মো. দিদারুল খান (৩২) এবং আব্দুল জলিলের ছেলে আবু বক্কর সিদ্দিক (৪১)। তবে র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে অপহরণকারিরা পালিয়ে যায় ।

রংপুর র‌্যাবের কোম্পানি কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো মোতাহার হোসেন জানান, গত ৬ নভেম্বর অপহৃত দুই ব্যবসায়ী নীলফামারীর জলঢাকা থেকে রংপুরে আসছিল। মেডিকেল পাকার মাথা এলাকায় এলে অপরহণকারীরা তাদের দুজনকে মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে রংপুরের একটি বাড়িতে হাত-পা বেঁধে আটকে রাখে। তারা দুজনেই ধান চালের ব্যবসায়ী।

পরে অপহরণকারীরা মোবাইল ফোনে অপহৃত দুই ব্যক্তির স্বজনদের কাছে সাড়ে ৭ লাখ টাকা মুক্তিপন দাবি করে। তারা বিষয়টি রংপুর র‌্যাবকে জানালে ক্যাম্পের একটি দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রংপুর মহানগরীর মেডিকেল পাকার মাথা এলাকায় একটি টিনসেড ঘরের ভিতর থেকে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় ওই দুই ব্যক্তিকে উদ্ধার করে।

এ বিষয়ে কোতয়ালী থানায় অপহৃত দিদারুল ইসলামের পিতা বাদী হয়ে একটি মামলা করেছেন। অপহরণকারীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে বলে র‌্যাব জানায়।

নীলফামারী বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর