ব্রেকিং:
দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ কমাতে চলমান ‘কঠোর লকডাউনের’ মেয়াদ আরো এক সপ্তাহ বাড়ানো হয়েছে। ভাঙচুরের মামলায় হেফাজত নেতা মামুনুল হকের সাত দিনের রিমান্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত।
  • সোমবার   ১৯ এপ্রিল ২০২১ ||

  • বৈশাখ ৬ ১৪২৮

  • || ০৬ রমজান ১৪৪২

সর্বশেষ:
চলমান `কঠোর লকডাউন` আরো এক সপ্তাহ বাড়ল পুলিশের উদ্যোগে ৫ টাকায় ইফতার যাত্রা শুরু ১১০০ শয্যার করোনা হাসপাতালের সারাদেশে চার কার্যদিবসে ভার্চুয়ালি ৯০৪৬ জনের জামিন আজ ৬ষ্ঠ দিনের মতো সারাদেশে চলছে সর্বাত্মক লকডাউন

আবারও আসছে দীঘির সিনেমা! 

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১৫ মার্চ ২০২১  

এই মুহুর্তে আলোচনার শীর্ষে রয়েছেন অভিনেত্রী প্রার্থনা ফারদিন দীঘি। শিশুশিল্পী থেকে নায়িকা হয়ে বড়পর্দায় হাজির হয়েছেন ‘তুমি আছো তুমি নেই’ সিনেমার মধ্যে দিয়ে। এই সিনেমা নিয়ে নেতিবাচক মন্তব্য করায় মামলাও হয়েছে এই নবাগত নায়িকার বিরুদ্ধে। জটিলতা কাঁটিয়ে ১২ মার্চ মুক্তি পেয়েছে সিনেমাটি। প্রশংসিত হয়েছে দীঘির অভিনয়। আবারো পর্দায় নতুন সিনেমা নিয়ে হাজির হচ্ছেন দীঘি। 

আগামী ২৬ মার্চ তথা স্বাধীনতা দিবসে মুক্তি পাচ্ছে দীঘি অভিনীত নতুন সিনেমা ‘টুঙ্গিপাড়ার মিয়া ভাই’। ‘তুমি আছো তুমি নেই’ সিনেমার পর এই সিনেমাটির শুটিংয়ে অংশ নিয়েছিলেন দীঘি।

রোববার (১৪ মার্চ) সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি আবেগঘন পোস্ট দিয়ে সিনেমা মুক্তির খবর নিজেই জানিয়েছেন নবাগত এই অভিনেত্রী। 

পোস্টে দীঘি লিখেছেন, ৪ তারিখের শুটিং শেষ করতে করতে ৫ তারিখ হয়ে গেলো। খুবই ক্লান্ত হয়ে বাসায় ফিরছিলাম। তখন বাজে ভোর ৫টা ৪৪। ঘুম ঘুম চোখে গাড়ির ভেতর থেকে হঠাৎ দেখতে পেলাম হাতিরঝিল এ বিশাল একটা বিলবোর্ড! লাফ দিয়ে গাড়ি থেকে নেমে গেলাম। কিছুক্ষণ এর জন্য নিস্তব্ধ হয়ে গিয়েছিলাম। চোখ দিয়ে পানি চলে আসছিল। প্রায় ৮ বছর পর নিজের বিলবোর্ড দেখলাম। সবার সামনে রাস্তায় দাঁড়িয়ে কাছে গিয়ে ছবি তুললাম। আসলে এইসব অনুভূতি ভাষায় প্রকাশের মত না।

তিনি আরো লিখেন, আর আজ ঘুম থেকে উঠে শুনি আমার অভিনীত প্রথম চলচ্চিত্র ‘টুঙ্গিপাড়ার মিয়া ভাই’ ২৬শে মার্চ স্বাধীনতা দিবসে মুক্তি দেয়া হবে। খুব অল্প সময়ে অনেক অর্জন করে ফেলছি। আমার প্রতি সবার ভালোবাসা আমাকে আসলেই বারবার মুগ্ধ করে। আলহামদুলিল্লাহ। 

প্রসঙ্গত, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে শাপলা মিডিয়া নির্মাণ করেছে ‘টুঙ্গিপাড়ার মিয়া ভাই’। শামীম আহমেদ রনীর চিত্রনাট্যে একটি পরিচালনা করেছেন সেলিম খান। এতে প্রথমবারের মতো জুটি বেঁধে অভিনয় করেছেন শান্ত খান ও দীঘি।