শুক্রবার   ১৫ নভেম্বর ২০১৯   কার্তিক ৩০ ১৪২৬   ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

আর কিপিং করবেন না মুশফিক?

প্রকাশিত: ২০ অক্টোবর ২০১৯  

টেকনিকের দিক থেকে জাতীয় দলের সেরা ব্যাটসম্যান বলা হয় তাকে। এ ব্যাপারে কারো আপত্তি না থাকলেও অনেকেরই আপত্তি ছিল কিপিং নিয়ে। এবার দেখা গেলো ফিল্ডার মুশফিককে। জাতীয় ক্রিকেট লিগে (এনসিল) উইকেটকিপিং করছেন না জাতীয় দলের অভিজ্ঞ উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম। রাজশাহীর টিম ম্যানেজমেন্ট থেকে বলা হয়েছে, নিজ থেকেই কিপিং করতে চাননি মুশফিক।

কিপিং এর প্রতি মুশফিকের আলাদা টান রয়েছে। বয়সভিত্তিক দলসহ সবখানেই কিপিং করেছেন। দীর্ঘ সময় ধরে জাতীয় দলে স্ট্যাম্পের পেছনে আস্থার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করছেন তিনি। পরিসংখ্যান হিসেবে বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসের সবচেয়ে সফলতম উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান মুশফিকই। তবে কিপিং নিয়ে তার সমালোচকও কম নেই। বিভিন্ন সময় কখনো ক্যাচ মিস কিংবা কখনো স্ট্যাম্পিং মিস করেছেন তিনি। কোনো কোনো ক্ষেত্রে বাংলাদেশের ম্যাচ হারার কারণ হিসেবে সেই মিসগুলোই সামনে এসেছিল।

মিস করা স্বাভাবিক একটি ঘটনাই। এছাড়া দারুণ সব ক্যাচ ও স্ট্যাম্পিংও করেছেন তিনি। তবে আসন্ন ভারত সফরে টেস্টে হয়তো উইকেটকপার হিসেবে নাও খেলতে পারেন মুশফিক। জাতীয় ক্রিকেট লিগে এমনটাই ইঙ্গিত দিয়েছেন তিনি। অবশ্য এর আগেও স্পেশালিষ্ট ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলেছেন মুশফিক। 

রাজশাহী টিম ম্যানেজমেন্ট থেকে বলা হয়েছে, মুশফিক হয়তো চায় টেস্ট ক্রিকেটে ব্যাটিংটা বেশি উপভোগ করতে। তাই হয়ত উইকেটকিপিংটা ছেড়ে ব্যাটিংয়ে মনোযোগ দেয়ার চেষ্টা করছে। ও নিজের ইচ্ছে থেকেই আমাদের বলেছে। মুশি চিন্তা করেছে একশ-দেড়শ ওভার কিপিং করার চেয়ে ব্যাটিংয়ে বাড়তি সময় দেয়া ভালো। 

টেস্টে এ পর্যন্ত ৬৭ ম্যাচ খেলেছেন মুশফিক। ব্যাট হাতে রান করেছেন ৪০২৯। ১৫ স্ট্যাম্পিংয়ের পাশাপাশি ধরেছেন ১০৩টি ক্যাচও। ৬৭ টেস্টের মধ্যে ৫৫ টেস্টেই খেলেছেন কিপার হিসেবে, করেছেন ৩৫১৫ রান। বাকি ১২ ম্যাচ খেলেছিলেন বিশেষজ্ঞ ব্যাটসম্যান হিসেবে। এ ম্যাচগুলোতে তার রান ৫১৪।

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –