ব্রেকিং:
কাশ্মীর ইস্যুতে মোদী-ইমরানের কাছে ডোনাল্ড ট্রাম্পের ফোন। শ্রম কল্যাণ সম্মেলনের উদ্বোধন আজ। তুর্কি গাড়িবহরের ওপর সিরিয়া সরকারের বিমান হামলায় তিন বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছে এবং আরো ১২ জন আহত হয়েছে।

মঙ্গলবার   ২০ আগস্ট ২০১৯   ভাদ্র ৫ ১৪২৬   ১৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

সর্বশেষ:
আজ বিকালে ঢাকায় আসছেন টাইগারদের নতুন প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো। অস্থায়ী এমপিও হচ্ছে ১৭৬৩ স্কুল-কলেজ, পরিপত্র জারি আজ। বোলিং কোচ হিসেবে ঢাকা পৌঁছেছেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের নতুন পেস বোলিং কোচ চার্ল ল্যাঙ্গাভেল্ট। দেশে ফিরে যেতে ইচ্ছুক রোহিঙ্গাদের তালিকাভুক্তির কাজ শুরু করছে জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থার (ইউএনএইচসিআর) কর্মকর্তারা। পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনের সঙ্গে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এস জয়শঙ্করের দ্বিপক্ষীয় বৈঠক শুরু হয়েছে।
১৫

ঈদ স্পেশাল রেসিপি, গরুর মাংসের কালা ভুনা

প্রকাশিত: ১৩ আগস্ট ২০১৯  

চট্টগ্রামের একটি ঐতিহ্যবাহী রান্না, গরুর মাংসের কালাভুনা। রান্নাটি চট্টগ্রামের হলেও, বর্তমানে পুরো বাংলাদেশেই এই খাবারটি ব্যাপক জনপ্রিয়! এর অনন্য স্বাদ আর টেক্সচার, এর জনপ্রিয়তার মূল কারণ। এই ঈদ এ প্রচলিত রান্নার বদলে, ঝটপট বানিয়ে ফেলতে পারেন, গরুর মাংসের কালা ভুনা। অনেকেরই ধারণা, কালাভুনা মানে ভাজা মাংস। এই ধারণা মোটেও ঠিক নয়- এই মাংস ভেজে কালো করা হয়না, আর যারা ভেজে কালো করেন, তাদেরটি ভাজা মাংস- কালাভুনা নয়! কালাভুনা রান্নার প্রক্রিয়াতেই কালো রঙের হয়ে ওঠে- কারণ এতে প্রচুর পরিমাণে মশলা ব্যবহার করা হয়। আসুন, তাহলে রান্নার প্রক্রিয়াতে চলে যাই!

যা যা লাগবে: মাংস কেজি, সয়াবিন তেল কাপ, সরিষার তেল ১/২ কাপ, পেঁয়াজ কুচি মোটা করে কাপ, হলুদ চা চামচ, মরিচের গুঁড়া টেবিল চামচ, আদা বাটা টেবিল চামচ, রসুন বাটা টেবিল চামচ, জিরা বাটা টেবিল চামচ, এলাচ / টি, দারুচিনি পরিমাণ মতো, গরম মশলা গুঁড়ো ৩ চা চামচ, লবঙ্গ পরিমাণ মতো, গোলমরিচ পরিমাণ মতো, তেজপাতা / টি, লবণ স্বাদ অনুযায়ী।  

যেভাবে রান্না করবেন: হাড়সহ মাংস প্রথমে মাঝারি আকার করে কেটে ধুয়ে নিন। এরপর একটা চালুনিতে মাংস নিয়ে পানি ঝরান। হাফ কাপ পেঁয়াজ কুঁচি এবং ২ চা চামচ গরম মশলা গুঁড়ো ছাড়া, সমস্ত উপকরণ দিয়ে মাখিয়ে মাংসকে চুলায় বসিয়ে মাঝারি আঁচে জ্বাল দিন। এ সময় কোন বাড়তি পানি দেবেন না। চুলার আঁচ এমনভাবে রাখুন, যেন মাংস থেকে যে পানি বের হবে, তা দিয়েই মাংস সেদ্ধ হয়ে যায়। কোন কারণে যদি পানি শুকিয়ে যায়, কিন্তু মাংস সেদ্ধ না হয়, তাহলে তখন পরিমাণ মত পানি দিয়ে নিতে পারেন। তবে এক্ষেত্রে সহজ সমধান হচ্ছে- মাংস রান্নার সময়ই ছোট্ট দুই টুকরো পেঁপে দিয়ে দিলে, খুব সহজে বাড়তি পানি ছাড়াই মাংস সেদ্ধ হয়ে যাবে।  এ সময় মাংস ঢাকনা দিয়ে ঢেকে রাখুন। আঁচে বসিয়ে রেখে যখন সব পানি টেনে যাবে এবং মাংস সেদ্ধ হয়ে যাবে, তখন ১ চা চামচ গরম মশলা গুঁড়ো দিয়ে ভালভাবে কষিয়ে নিন। এরপর চুলার ওপর একটি ভারী তাওয়া জাতীয় কিছু দিয়ে, চুলার আঁচ একেবারে কমিয়ে দিয়ে, তারওপর মাংসের পাত্রটি ১ ঘণ্টার মত বসিয়ে রাখুন, মাঝে মাঝে একটু নেড়ে দিন, যেন তলায় লেগে না যায়। ১ ঘণ্টা পর, একটা পাত্রে সরিষার তেল গরম করে পেঁয়াজ কাঁচা মরিচ দিয়ে দিন। পেঁয়াজ ভেজে বাদামি হয়ে আসলে, মাংস দিয়ে দিন। এরপর একটু ভাজা ভাজা করে রান্না করুন। বাকি ১ চা চামচ গরম মশলা দিয়ে আরও কিছুক্ষন ভালভাবে কষিয়ে নিন। চুলা থেকে নামানোর আগে লবণ ঠিক আছে কিনা দেখে নিয়ে, লম্বা করে ফালি করা কাঁচা মরিচ দিয়ে আরেকটু নাড়াচাড়া করে চুলা থেকে নামিয়ে নিন। ভাত, খিচুড়ি বা পোলাওয়ের সাথে পরিবেশন করুন, অনন্য স্বাদের গরুর মাংসের কালা ভুনা।

নীলফামারি বার্তা
নীলফামারি বার্তা