ব্রেকিং:
দেশে করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ৪৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মারা গেলেন ২ হাজার ৩৫২ জন। এছাড়া নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ২ হাজার ৬৬৬ জন। এ নিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৮৩ হাজার ৭৯৫ জন।
  • সোমবার   ১৩ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ২৯ ১৪২৭

  • || ২২ জ্বিলকদ ১৪৪১

সর্বশেষ:
রংপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় করোনা আক্রান্ত মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যু অনুমতি দেয়া পাঁচ বেসরকারি হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারের কোভিড-১৯ পরীক্ষা স্থগিত রাখার নির্দেশ দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর ২০২০ সালে নিবন্ধিত হজযাত্রীদের জন্য ৮ নির্দেশনা দিয়েছে ধর্ম মন্ত্রণালয় বন্যার সার্বিক পরিস্থিতি সার্বক্ষণিকভাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা খোজ খবর নিচ্ছেন-পানিসম্পদ উপমন্ত্রী মানবদেহে কোভিড ভ্যাকসিনের সফল প্রয়োগের দাবি রাশিয়ার!
৭০

গঙ্গাচড়ায় ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক চাষীদের মাঝে বীজ ও সার বিতরণ

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১৪ নভেম্বর ২০১৯  

রংপুরের গঙ্গাচড়য় কৃষি প্রণোদনা কর্মসূচী (২০১৯-২০) এর আওতায় ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক চাষীদের মাঝে বীজ ও সার বিতরণ করা হয়েছে। আজ বুধবার এ উপলক্ষে গঙ্গাচড়া কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের আয়োজনে ও উপজেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় অফির্সাস কল্যাণ ক্লাবে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার তাসলীমা বেগমের সভাপতিত্বে ও কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার নাঈম মোর্শেদের সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সাজু আহম্মেদ লাল। স্বাগত বক্তব্য রাখেন, উপজেলা কৃষি অফিসার শরিফুল ইসলাম। এ সময় অতিরিক্ত কৃষি অফিসার শাহনাজ পারভীন, উদ্ভিদ সংরক্ষণ অফিসার হাবিবুর রহমানসহ উপসহকারী কৃষি অফিসারবৃন্দ ও সুবিধাভোগী কৃষকগণ উপস্থিত ছিলেন।

কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ৯টি ইউনিয়নের ৭৫০ জনের প্রত্যেকে ১ কেজি সরিষা, ভূট্টা ১২৩০ জনের প্রত্যেকে ২ কেজি, পেঁয়াজ ২০ জনের প্রত্যেকে ১ কেজি, গম ৬৫০ জনের প্রত্যেকে ২০ কেজি, সূর্যমুখী ১০ জনের প্রত্যেকে দেড় কেজি, শীতকালীন মূগ ৫০ জনের প্রত্যেকে ৫ কেজি ও গ্রীস্মকালীন মুগ ১০০ জনের প্রত্যেকে ৫ কেজি করে বীজ কৃষকের মাঝে পর্যায়ক্রমে বিতরণ করা হবে। এছাড়া শীত ও গ্রীস্মকালীন মুগের জন্য প্রত্যেকে ১০ কেজি ডিএপি ও ১০ কেজি এমওপি সার এবং অন্যান্য বীজের জন্য প্রত্যেকে ২০ কেজি ডিএপি ও ১০ কেজি এমওপি সার দেওয়া হবে।

নগর জুড়ে বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর