ব্রেকিং:
কাশ্মীর ইস্যুতে মোদী-ইমরানের কাছে ডোনাল্ড ট্রাম্পের ফোন। শ্রম কল্যাণ সম্মেলনের উদ্বোধন আজ। তুর্কি গাড়িবহরের ওপর সিরিয়া সরকারের বিমান হামলায় তিন বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছে এবং আরো ১২ জন আহত হয়েছে।

মঙ্গলবার   ২০ আগস্ট ২০১৯   ভাদ্র ৫ ১৪২৬   ১৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

সর্বশেষ:
আজ বিকালে ঢাকায় আসছেন টাইগারদের নতুন প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো। অস্থায়ী এমপিও হচ্ছে ১৭৬৩ স্কুল-কলেজ, পরিপত্র জারি আজ। বোলিং কোচ হিসেবে ঢাকা পৌঁছেছেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের নতুন পেস বোলিং কোচ চার্ল ল্যাঙ্গাভেল্ট। দেশে ফিরে যেতে ইচ্ছুক রোহিঙ্গাদের তালিকাভুক্তির কাজ শুরু করছে জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থার (ইউএনএইচসিআর) কর্মকর্তারা। পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনের সঙ্গে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এস জয়শঙ্করের দ্বিপক্ষীয় বৈঠক শুরু হয়েছে।
১২

জাতীয় ঈদগাহে রাষ্ট্রপতির ঈদের নামাজ আদায়

প্রকাশিত: ১২ আগস্ট ২০১৯  

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ আজ সোমবার সকালে জাতীয় ঈদগাহে ঈদের নামাজ আদায় করেছেন। বিভিন্ন শ্রেণি পেশার কয়েক হাজার মানুষ এতে অংশ নেন।

সকাল ৮টায় অনুষ্ঠিত এই প্রধান জামাতে প্রধান বিচারপতি, মন্ত্রিপরিষদ সদস্যগণ, সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিগণ, সংসদ সদস্যগণ, জ্যেষ্ঠ রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ এবং উচ্চ পদস্থ সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তাসহ দেশের বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ নামাজ আদায় করেন।

জাতীয় মসজিদ বায়তুল মুকাররমের সিনিয়র পেশ ইমাম মুফতি মাওলানা মিজানুর রহমান ঈদের জামাত পরিচালনা করেন।

নামাজ শেষে মুসলিম উম্মাহ্’র কল্যাণ এবং বাংলাদেশের শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করে মুনাজাত করা হয়। এ সময় দেশের বিভিন্ন স্থানে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে যারা মারা গেছেন তাদের রুহের মাগফিরাত কামনা ও প্রাণঘাতী রোগটিতে আক্রান্তদের আশু আরোগ্য কামনায় দোয়া করা হয়।

এছাড়া মুনাজাতে ১৫ আগস্টে নিহত বাংলাদেশের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবারের সদস্যদের রুহের মাগফিরাত কামনা করা হয়। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের কালরাতে তাদের নির্মমভাবে হত্যা করা হয়। এর পাশাপাশি বিভিন্ন গণতান্ত্রিক আন্দোলন বিশেষত ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের জন্যও দোয়া করা হয়। নামাজ শেষে রাষ্ট্রপতি মুসুল্লিদের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি)’র তত্ত্বাবধায়নে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়। জাতীয় ঈদগাহে নারী মুসুল্লিদের নামাজ আদায়ের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা করা হয়।

ঈদগাহ ও এর আশপাশের এলাকায় কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়।

এর আগে রাষ্ট্রপতি ঈদগাহে পৌঁছলে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন, ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সাঈদ খোকন ও সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গ তাকে অভ্যর্থনা জানান।

নীলফামারি বার্তা
নীলফামারি বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর