• বুধবার   ২৭ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১২ ১৪২৭

  • || ০৪ শাওয়াল ১৪৪১

সর্বশেষ:
নিলুফার মঞ্জুরের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক যে কোনো সময় ‘দ্বিতীয় ঝড়’ শুরু হবে: ডাব্লিউএইচও বাংলাদেশের তৈরী ৬৫ লাখ পিপিই গেল যুক্তরাষ্ট্রে করোনা: ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় রোগীদের খাবার পাঠালেন জেলা প্রশাসক সরকারি নির্দেশনায় ঈদের নামাজ আদায়: মুসুল্লীদের ধন্যবাদ
১০০

‘টম অ্যান্ড জেরি’র পরিচালকের মৃত্যু

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২০ এপ্রিল ২০২০  

বিশ্বজুড়ে শিশুদের মণিকোঠায় স্থান করে নেয়া জনপ্রিয় অস্কারজয়ী ইলাস্ট্রেটর ও লিজেন্ডারি কার্টুন চরিত্র সিরিজ ‘টম অ্যান্ড জেরি’র অন্যতম পরিচালক জিন ডেইচ মারা গেছেন।

বৃহস্পতিবার  ৯৫ বছর বয়সে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন বলে খবরটি টুইটারে প্রকাশ করেছেন ওই সিরিজের প্রকাশক পেট্র হিমেল। জিন ডেইচ শুধু ‘টম অ্যান্ড জেরি’র পরিচালক নয়, ‘পপাই দ্য সেইলর’ নামের কার্টুন সিরিজেরও পরিচালক ছিলেন।

কর্মজীবনের শুরুতে নর্থ আমেরিকান এভিয়েশনে নকশাকার হিসেবে কাজ করা জিন পাইলটের ট্রেনিংপ্রাপ্ত ছিলেন। তবে ১৯৪৪ সালে মেডিকেল পরীক্ষায় অকৃতকার্য হলে তাকে ইস্তফা দিতে হয়। আর এতেই শিল্প দুনিয়ায় তার প্রবেশ ঘটে। ১৯৫৮ সালে ‘সিডনি’স ফ্যামিলি ট্রি’ চলচ্চিত্রের জন্য অস্কারের জন্য মনোনীত হন জিন ডেইচ।

‘মানরো’ নামের একটি শর্ট ফিল্ম বানিয়েছিলেন জিন। সেটি ১৯৬০ সালে সেরা অ্যানিমেটেড শর্ট ফিল্ম ক্যাটাগরিতে অস্কার জিতে নেয়। ১৯৬৪ সালে একই ক্যাটাগরিতে ‘নাডনিক’ ও ‘হাউ টু অ্যাভয়েড ফ্রেন্ডশিপ’ ছবির জন্য অস্কারে মনোনয়ন পান তিনি।

কর্মজীবনে জন ডেইচ টেরিটুনস, আন্ডার ২০ সেঞ্চুরি ফক্সের শিল্প নির্দেশক হিসেবে কাজ করেছিলেন। তার হাতেই তৈরি হয় সিডনি এলিফ্যান্ট, গ্যাস্টন লে ক্রাইওন, ক্লিন্ট ক্লোবার এবং টেরেবল থম্পসনের মতো চরিত্র।

‘টম অ্যান্ড জেরি’ সিরিজটিতে আটজন পরিচালনা করেছিলেন। এতে ১৯৬১-৬২ মৌসুমে যুক্ত হন জিন। তার মৃত্যুর আগে বাকি সাত পরিচালক মারা গেছেন।

বিনোদন বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর