শনিবার   ২৫ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ১২ ১৪২৬   ২৯ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

৮৮

ডিবি পরিচয়ে মোটরসাইকেলের কাগজপত্র যাচাইয়ে প্রতারণা, আটক ২

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১৭ নভেম্বর ২০১৯  

নীলফামারীর সৈয়দপুরে মহাসড়কে মোটরসাইকেলের কাগজপত্র যাচাই করতে গিয়ে ডিবি পুলিশের ভূয়া দুই সদস্যকে আটক করা হয়েছে। শুক্রবার(১৫ নভেম্বর) রাতে সৈয়দপুর-দিনাজপুর বাইপাস সড়কের কুন্দল এলাকায় ইকু ফিলিং স্টেশনে সামনে থেকে তাদেরকে আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলো নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলার বোতলাগাড়ী ইউনিয়নের তেলিপাড়া মো. কাতিবুল ইসলামের ছেলে মোজাহারুল ইসলাম (২১) ও দিনাজপুরে চিরিরবন্দর ফতেজংপুর রাজাপাড়া মো. হায়দার আলীর ছেলে রকিবুল ইসলাম।

এ সময় তাদের সঙ্গে প্রতারণা কাজে জড়িত শরিফুল ইসলাম নামে এক যুবক পালিয়ে যায়। মোজাহারুল ইসলাম রংপুর মডেল কলেজে অর্থনীত বিষয়ে অনার্স দ্বিতীয় বর্ষের এবং রকিবুল ইসলাম ফতেজংপুর কলেজের একাদশ শ্রেণীর ছাত্র বলে জানা গেছে।

পুলিশ জানিয়েছে, মোজাহারুল ইসলাম, রকিবুল ইসলাম ও শরিফুল ইসলাম ডিবি পুলিশের সদস্য সেজে প্রথমে সৈয়দপুর-দিনাজপুর মহাসড়কের দিনাজপুরের চিরিবন্দর উপজেলার দেবীগঞ্জে মোটরসাইকেল মালিকদের আটকিয়ে বৈধ কাগজপত্র দেখার নামে ভয়ভীতি দেখিয়ে টাকা আদায় করেন। এরপরে তারা সৈয়দপুর শহরের উপকণ্ঠে কুন্দল এলাকায় ইকু ফিলিং স্টেশনের সামনে এসে একই কায়দায় মোটরসাইকেল মালিক ও চালকদের পথরোধ করে ভয়ভীতি দেখিয়ে অর্থ আদায় করছিল। এ সময় তাদের কথাবার্তা ও আচরণে এক মোটরসাইকেল মালিকের সন্দেহ হয়। তিনি ডিবি পুলিশের কর্মকর্তা পরিচয়দানকারী মোজাহারুল ইসলামের কাছে তার পরিচয়পত্র দেখতে চান। এ সময় সে ডিবি পুলিশের ভুয়া কর্মকর্তা পরিচয়দানকারী পরিচয়পত্র দেখাতে ব্যর্থ হলে অবস্থা বেগতিক দেখে ঘটনাস্থল থেকে সটকে পড়ার চেষ্টা করে। কিন্তু সেখানে থাকা লোকজন মোজাহারুল ও রকিবুলকে আটক করতে সক্ষম হলেও শরিফুল নামে একজন কৌশলে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। পরে আটককৃত মোজাহারুল ও রকিবুল সৈয়দপুর থানা পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

এ সময় তাদের কাছ থেকে প্রতারণা কাজে ব্যবহৃত একটি খেলনা পিস্তল, তাদের তৈরিকৃত জরিমানা আদায়ে নকল রশিদ বই জব্দ করা হয়েছে। 

সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শাহজাহান পাশা আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় সৈয়দপুর থানায় একটি মামলা হয়েছে।

এই বিভাগের আরো খবর