ব্রেকিং:
রংপুর মেডিকেল কলেজে (রমেক) শনিবার ১৮৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করে নতুন ৬১ জন করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে রংপুরে ১৭ জন, লালমনিরহাটে ১৯ জন, গাইবান্ধায় ১৬ জন, কুড়িগ্রামে ৭ জন, ঠাকুরগাঁওয়ের ১ জন ও বগুড়ার ১ জন রয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রংপুর মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডাঃ একেএম নুরুন্নবী লাইজু। রংপুর মেডিকেল কলেজে (রমেক) ১৮৮ জনের নমুনা পরীক্ষায় নতুন করে ৬০ জন করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে রংপুরে ২৬ জন, কুড়িগ্রামে ১৪ জন, লালমনিরহাটে ১৩ জন ও গাইবান্ধায় ৭ জন। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন রংপুর মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডাঃ একেএম নুরুন্নবী লাইজু। গত ২৪ ঘণ্টায়   দেশে করোনাভাইরাসে আরো ২৭ জনের মৃত্যু হয়েছে, এছাড়া নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন দুই হাজার ৮৫১ জন।
  • রোববার   ০৯ আগস্ট ২০২০ ||

  • শ্রাবণ ২৪ ১৪২৭

  • || ১৯ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

সর্বশেষ:
মহীয়সী নারী বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের ৯০তম জন্মবার্ষিকী আজ গণতন্ত্রী পার্টির সাবেক সভাপতি, রংপুর পৌরসভার সাবেক মেয়র মোহম্মদ আফজালের সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করলেন নৌ প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী অর্থনীতির সকল ক্ষেত্রে অভূতপূর্ব উন্নয়ন হয়েছে: কৃষিমন্ত্রী কারিগরি শিক্ষায় ভর্তির হার ৫০ শতাংশে উন্নীত করা হবে: শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি আগামী বছর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ভারতে, ২০২২-এ অস্ট্রেলিয়ায় মুজিববর্ষেই বঙ্গবন্ধুর পলাতক খুনীদের ফিরিয়ে আনা হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ. কে আব্দুল মোমেন
৭৮

ডিমলায় ৭ম শ্রেণীর এক স্কুল ছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার 

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২০ জুলাই ২০২০  

মাহাবুবা আক্তার(১৩) নামে এক কিশোরীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। আজ সোমবার(২০ জুলাই/২০২০) দুপুরে নীলফামারীর ডিমলা উপজেলা সদরের বাবুরহাট ঝাকুয়া পাড়া গ্রামের দাদার বাড়ি থেকে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত স্কুল ছাত্রী একই এলাকার মাহাবুল ইসলামের মেয়ে ও উপজেলা সদরের দিলরুবা মহিকুল শিক্ষা নিকেতন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণীর ছাত্রী। 


পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, নিহত মাহাবুবার মা মুত্যুবরন করার পর তার বাবা দ্বিতীয় বিয়ে করায় সে দাদা মাহমুদ আলী ও দাদী মর্জিনা বেগমের সাথেই তাদের বাড়িতে বসবাস করে লেখাপড়া করতো। তার বাবা ও সৎ মা আলাদা বাড়িতে একই এলাকায় থাকে। ঘটনার দিন সকালে মাহাবুবাকে খুজে পাওয়া না গেলে অনেক খোজা-খুজির পর দাদার বাড়ির শয়ন ঘরের রুয়ার টানার সাথে ওড়না পেঁচানো ঝুলন্ত অবস্থায় তাকে দেখতে পান তার দাদী ও বড় ভাই আশিক। তারা সহ স্থানীয়রা দ্রুত তাকে নামিয়ে ডিমলা হাসপাতালে নিলে সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন। পরে এলাকাবাসী পুলিশকে খবর দিলে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার(ডোমার-ডিমলা সার্কেল) জয়ব্রত পাল। 


ডিমলা থানার ওসি মফিজ উদ্দিন শেখ জানান, খবর পেয়ে লাশটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য জেলা মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলেই ঘটনার কারণ নিশ্চিত হওয়া যাবে। 

নীলফামারী বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর