ব্রেকিং:
শহীদদের নামে রংপুরের সড়কগুলোর নামকরণের দাবি উত্তরের ফসলি জমি গিলে খাচ্ছে তামাক আজ ২০ ফেব্রুয়ারি ‘বিশ্ব সামাজিক ন্যায়বিচার দিবস’ মহান শহীদ দিবস উপলক্ষে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার এলাকাকে পাঁচটি সেক্টরে বিভক্ত করে তিন ধাপের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েছে র‌্যাব নারী বিশ্বকাপ ওয়ার্ম-আপ ম্যাচ: পাকিস্তানকে ৫ রানে হারালো বাংলাদেশ

শুক্রবার   ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ৮ ১৪২৬   ২৬ জমাদিউস সানি ১৪৪১

সর্বশেষ:
আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে শুক্রবার অমর একুশে গ্রন্থমেলার দ্বার খুলবে সকাল ৮টায় সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির নির্বাচন ১১ ও ১২ মার্চ দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে দুই ডাকাত নিহত লালমনিরহটের হাতীবান্ধা উপজেলায় ষাটোর্ধ্ব এক বৃদ্ধা মাকে মারধর করে ঘর থেকে বের করে দিয়েছেন ছেলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অমর একুশে ফেব্রুয়ারি ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের প্রাক্কালে ২০ ব্যক্তি এবং এক প্রতিষ্ঠানের মাঝে ‘একুশে পদক-২০২০’ প্রদান করেছে

‘দুদকের মামলায় সাজার হার প্রায় ৭০ শতাংশে উন্নীত’

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) কর্মকর্তাদের তদন্তের সক্ষমতা বৃদ্ধির কারণেই দুদকের মামলায় সাজার হার প্রায় ৭০ শতাংশে উন্নীত হয়েছে বলে জানিয়েছেন সচিব মুহাম্মদ দিলোয়ার বখ্ত। বৃহস্পতিবার দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) কর্মকর্তাদের এক বিশেষ প্রশিক্ষণ কর্মসূচির সার্টিফিকেট বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন। রাজধানীর ফিন্যান্সিয়াল ম্যানেজমেন্ট একাডেমী (ফিমা) মিলনায়তনে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। ফিমার মহাপরিচালক মনোয়ারা হাবীব এর সভাপতিত্ব করেন।

দুদক সচিব বলেন, চিহ্নিত দুর্নীতি পরায়ণদের আইনের আওতায় সোপর্দ করার সক্ষমতা বৃদ্ধির জন্যই দুদক কর্মকর্তাদের এ জাতীয় প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে। শুধু দেশে নয়, বিদেশেও কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে। কর্মকর্তাদের তদন্তের সক্ষমতা বৃদ্ধির কারণেই দুদকের মামলায় সাজার হার প্রায় ৭০ শতাংশে উন্নীত হয়েছে । যা এক সময় ৩০ শতাংশেরও কম ছিল।

তিনি বলেন, দুদক ও সিএজি নিজ নিজ ম্যান্ডেটের মাধ্যমেই দুর্নীতি, অনিয়ম ও সরকারি অর্থের অপচয় রোধে কাজ করছে। এ জাতীয় প্রতিষ্ঠানগুলো তথ্য ও জ্ঞান বিনিময়ের মাধ্যমে সরকারি আর্থিক ব্যবস্থাপনায় দুর্নীতি, অনিয়ম ও অনৈতিকতা নিয়ন্ত্রণে কার্যকর ভূমিকা রাখতে পারে।

পরস্পর যোগসাজশে যখন দুর্নীতি হয় তার সঠিক তথ্য পাওয়া কমিশনের পক্ষে সত্যিই কঠিন উল্লেখ করে সচিব বলেন, এক্ষেত্রে অডিট বিভাগ দুদককে সাহায্য করতে পারে। এ জাতীয় তথ্য পেলে অভিযোগের অনুসন্ধান ও মামলা দায়েরের অনুপাতের ইতিবাচক বৃদ্ধি ঘটতে পারে। শুধু অডিট বিভাগ নয়, প্রতিটি মন্ত্রণালয় ও বিভাগের দায়িত্ব স্ব-স্ব শুদ্ধাচার ফোকাল পয়েন্ট কর্মকর্তাদের মাধ্যমে নিজ নিজ দফতরের দুর্নীতির তথ্য দুদকে পাঠালে দুদক আরো বস্তুনিষ্ঠ অভিযোগ পেতে পারে।

এই বিভাগের আরো খবর