• বুধবার   ২৮ অক্টোবর ২০২০ ||

  • কার্তিক ১৩ ১৪২৭

  • || ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

সর্বশেষ:
কর্মকর্তাদের বদলির কারণে উন্নয়ন যেন বাধা না পায়: প্রধানমন্ত্রী প্রবাসীদের পুনর্বাসনে ৭০০ কোটি টাকার তহবিল গঠন করবে সরকার রেলে গতি বাড়াতে যুক্ত হচ্ছে ১১শ` কোটি টাকার বগি ও ইঞ্জিন দেশের মানুষকে খাদ্য নিরাপত্তা দিয়ে স্বস্তিতে রাখতে চায় সরকার দেশের সব নাগরিককে বিনামূল্যে করোনা ভ্যাকসিন দেবে সরকার

দূর্গাপূজায় নীলফামারীর সুবিধাবঞ্চিতদের পাশে সেইফ ফাউন্ডেশন 

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১৭ অক্টোবর ২০২০  

শারদীয় দুর্গাপূজা হিন্দু স¤প্রদায়ের বড় উৎসব। কিন্তু এবার করোনাকালীন এই সময় অনেক অসচ্ছল পরিবার কষ্টের মধ্যে দিন পার করছে। তাদের এই কথা চিন্তা করে নীলফামারী জেলার সুবিধাবঞ্চিত শিশু-কিশোর, প্রবীন ও অস্বচ্ছল পরিবারগুলির মুখে হাসি ফোটাতে সেইফ ফাউন্ডেশনের পক্ষে নতুন কাপড় ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ শুরু হয়েছে।

বিভিন্ন দাতাদের সহযোগীতায় এক হাজার জনের মাঝে শাড়ি, লুঙ্গি ও শিশু-কিশোরদের মাঝে শার্ট, প্যান্ট, ফ্রক, থ্রি-পিচ বিতরণ করা হয়। আজ শনিবার(১৭ অক্টোবর/২০২০) জেলা সদরের লক্ষীচাপ ইউনিয়নের সুবিধাবঞ্চিতদের মাঝে ওই সহায়তা প্রদান করা হয়। 


সেইফ ফাউন্ডেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রাসেল আমিন স্বপন জানান, শারদীয় দুর্গাপূজা হিন্দু সম্প্রদায়ের বড় উৎসব। করোনাকালিন এই পরিস্থিতির কারণে অনেক অসচ্ছল পরিবার কষ্টের মধ্যে দিন পার করছে। তাদের কথা চিন্তা করে সম্মানিত দাতাগণদের সহযোগিতায় শিশু-কিশোর, প্রবীন ও অস্বচ্ছল পরিবারগুলির মাঝে নতুন কাপড় ও বিভিন্ন খাদ্য-সামগ্রী বিতরণ করা হচ্ছে। এ কাজে সেইফ ফাউন্ডেশনের স্বেচ্ছাসেবকরা অক্লান্ত পরিশ্রম করছে।  


তিনি জানান, গত ১৩ অক্টোবর থেকে এই কার্যক্রম শুরু হয়। ইতোমধ্যে সদর উপজেলার টুপামারী, পলাশবাড়ি, কচুকাটা ইউনিয়নের বন্দরপাড়া, দোন্দরি ও জলঢাকা উপজেলার কৈমারী ইউনিয়নে বিতরণ করা হয়। আজ শনিবার লক্ষীচাপ ইউনিয়নের সুবিধাবঞ্চিতদের মাঝে নতুন কাপড় ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়। আগামী দুই দিনের মধ্যে নীলফামারী পৌরশহরের বাড়াইপাড়া, মিলনপল্লী, শুটিপাড়া, মাঝাপাড়ায় এসকল সামগ্রী বিতরণ করা হবে। 


তিনি আরো জানান, সেইফ ফাইন্ডেশনের উদ্যোগে ও সম্মানিত দাতাগণদের সহযোগিতায় এই ছোট্ট প্রয়াস যেনো করোনা সংকট কালেও হিন্দু সম্প্রদায়েরা তাদের বড় উৎসব দুর্গাপূজা পালন করতে পারে। পাশাপাশি তাদের মুখে হাসিটি ফিরে আসে।