ব্রেকিং:
বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের প্রথম বর্ষ ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ

বুধবার   ২০ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৫ ১৪২৬   ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

২৩৭

দেশের উন্নয়নে সাধারন মানুষের আস্থা শেখ হাসিনা...

প্রকাশিত: ২৪ নভেম্বর ২০১৮  

বাংলাদেশের মানুষ অনেক সহজ সরল, তাদের জীবিকানির্বাহ সাধারন।  সাধারন মানুষ এর  ইচ্ছা নিজ দেশে  তাদের জীবন  সুন্দর ও স্বাধীন ভাবে  বসবাস করতে পারবে। বিদেশি এক গবেষনায় দেখা গেছে, বাংলাদেশ সাধীনতার পর এখন সবচেয়ে ভাল অবস্থান আছে।  তার মানে সাধারন মানুষ অনেক ভাল আছে, তার প্রমান পাবেন যখন সাধারন মানুষের সাথে আপনি কথা বলবেন। দেশে এখন আর অরাজকতা নাই, সন্ত্রাসের উপদ্রব নাই, চাঁদাবাজি নাই, জঙ্গি বাদ নাই একক কারো আধিপত্য নেই। দেশের মানুষ শান্তিতে আছে, সামনে থেকে উন্নয়নের জন্য সহযোগিতা করতেছে। দেশের মানুষ কে সাথে নিয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রতিটি ক্ষেত্রে উন্নয়ন করে যাচ্ছে,  বাংলাদেশের এমন কোন সেক্টর নাই যে উন্নয়ন হয় নাই। দেশের এই চলমান উন্নয়নের সবচেয়ে যে বড় উন্নয়ন তা হচ্ছে সবকিছু ডিজিটালকরন, প্রতিটি মন্ত্রনালয় এখন অনলাইনের দখলে। এখন আর চাইলেই কেউ দুর্নীতি করতে পারে না অনলাইনের কারনে। অবাক করার মত রাস্তাঘাটের উন্নয়ন। এখন কোথাও রাস্তাঘাট বলার  মত কাচা নাই, বেশির ভাগ পাকা হয়ে গেছে, দেশ এখন সপ্নের মত চলছে, দেশের মালিক জনগন মনে করে তারা ভাল আছে। সাধারন মানুষ মনে করে ক্ষমতায় আওয়ামীলীগ সরকার থাকলেই দেশে  উন্নয়ন হয়, মনে হবেই না কেন  দেখেন আগামী গত ১০ বছরের চিত্র:

 খাদ্য নিরাপত্তা পরিস্থিতি-বিএনপি ২০০৬ সালে ৩০ লক্ষ মেট্রিক টন খাদ্য (ঘাটতি) 

আওয়ামীলীগ ২০১৮ সালে ১৫ লক্ষ মেট্রিক টনের বেশি খাদ্য (উদ্বৃত)।  একজন সাধারন মানুষের বেচে থাকতে হলে খাদ্যর প্রয়োজন আছে, আওয়ামীলীগ সরকারের সময় কখনও খাদ্যর ঘাটতি হয়নি এখানে মানুষের আস্থা শতভাগ, তারপরে আসতেছি মানুষ জীবিকার্জন করতে হলে কর্মসংস্থান দরকার আর তা আওয়ামীলীগ সরকার ভালভাবে করতেছে,  তার আগে বলা উচিত আমাদের দেশ  ছোট একটা দেশ কিন্তু জনসংখ্যা অনেক,  আর জনবহুল এই দেশে প্রায় ১৮ কোটি মানুষ বসবাস করে, তবুও আওয়ামীলীগ সরকার তার সাধ্যমত কর্মসংস্থান করতেছে। ২০০১- ২০০৬ সাল পযন্ত মাত্র ২৪ লক্ষ কর্মসংস্থান হয়েছিল।  আর ২০০৮- ২০১৮ সালে ১ কোটি ৫  লাখ এর বেশি কর্মসংস্থান হয়েছে , এতেই সাধারন মানুষের আস্থা আওয়ামীলীগ সরকার। এছাড়া সর্বনিম্ন মজুরি ১৭০০ থেকে ৮১০০ টাকা হয়েছে আওয়ামীলীগ সরকারের আমলে।  মাথাপিছু  আয় বেড়েছে ৩ গুন। দেশের জনগন সবাইকে সুযোগ দিয়েছিল দেশের উন্নয়নের জন্য, কিন্তু যারা সুযোগ পেয়েছিল তারা নিজের আখের গুছানোয় এতটায় ব্যস্ত ছিল যে দেশকে খাদের কিনারায় ফেলে দিয়েছে,  সেখান থেকে শেখ হাসিনা যেভাবে দেশকে তুলে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে উন্নয়নশীল দেশ হিসাবে পরিনত করেছেন , দেশের মানুষ এতেই খুশি আর সেই জন্য দেশের মানুষের আস্থা শেখ হাসিনায়। একটা গাছের সব ফল ভাল হয় না, কিছু কিছু ফল খারাপ থাকে, আওয়ামীলীগেই কিছু খারাপ আছে, তাদের জন্য দেশের কিছু খারাপ কাজ হচ্ছে,  কিন্তু আমরা এমন একজন অভিভাবক বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনাকে পেয়েছি যার ধ্যান জ্ঞান সব দেশ ও দেশের মানুষের জন্য। আওয়ামীলীগ থেকে খারাপ মানুষ উচ্ছেদ হচ্ছে, হয়ত কিছুদিনের মধ্যে খারাপ মানুষ গুলো আর থাকবে না। শেখ হাসিনায় আস্থা সাধারন মানুষের ৯০% কিন্তু আওয়ামীলীগে আস্থা হয়ত একটু কম, সেটা কিছুর নেতার কারনে, এবার নির্বাচনে হয়ত আগাছা গুলো পরিস্কার হবে, দেশকে উন্নত ও গতিশীল করতে হলে আমাদের একজন নেতা দরকার তা হচ্ছে আমাদের বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা। সাধারন মানুষ মনে করে শেখ হাসিনা দেশের জন্য ভাবে, দেশের মানুষের জন্যে ভাবে। আজ বাংলাদেশ পৃথিবীর কাছে রোল মডেল। আগের দিনে বিদ্যুৎ ছিল কি না আপনারা হয়ত সবাই জানেন, কিন্তু এখন বিদ্যুৎ এর অবস্থা দেখেন আর এই সব নানা কারনে দেশের সাধারন মানুষের  আস্থায় শেখ হাসিনা।  শেখ হাসিনা সপ্ন দেখান তা শুধু না তিনি সপ্ন পুরন করতে পারেন।   তিনি তার প্রতিটি সপ্ন দেখেন দেশ ও দেশের মানুষের জন্যে। আমরা গর্বিত এমন একজন নেত্রী কে পেয়ে।  দেশের মানুষ এর ভালবাসা ও দোয়া নিয়ে তিনি যেন তার ও তার বাবার অসমাপ্ত কাজ গুলো করে যেতে পারেন।

রাতুল  ইসলাম  মিলন

 ছাএলীগ নেতা দিনাজপুর

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –
এই বিভাগের আরো খবর