ব্রেকিং:
সৌদি আরবের মদিনায় বাস দুর্ঘটনায় নিহত ৩৫ জন। কাশ্মীরে ভারত পাকিস্তান সেনাদের গুলি বিনিময়ে ৪ বেসামরিক নাগরিক নিহত। রুশ পারমানবিক পরীক্ষা কেন্দ্রের কাছে যুক্তরাষ্ট্রের ৩ কূটনীতিককে আটক করেছে রুশ গোয়েন্দা সংস্থা। ফিলিপাইনের দক্ষিণাঞ্চলে ৬ দশমিক ৪ মাত্রার ভূমিকম্প নিহত ৩ আহত অন্তত ১৪ জন। রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিনের সাথে বৈঠক করতে যাচ্ছেন, তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান। তুরস্কের অভিযানে যুক্তরাষ্ট্রের কোন সমস্যা নেই। কুর্দিরা ফেরেশতা নয়, বললেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।

শুক্রবার   ১৮ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ২ ১৪২৬   ১৮ সফর ১৪৪১

সর্বশেষ:
হাসপাতাল, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এবং ঘনবসতিপূর্ণ এলাকা থেকে মোবাইল টাওয়ার দ্রুত সরানোর নির্দেশ হাইকোর্টের, পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ। রাজধানীর গাবতলী থেকে নব্য জেএমবির তিন সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ। সড়ক দুর্ঘটনায় রাজধানীর হানিফ ফ্লাইওভারে মোটরসাইকেল আরোহী নিহত। চাপাইনবাবগঞ্জে ১০ হাজার পিস ইয়াবাসহ দুই জনকে আটক করেছে র‍্যাব। রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে বাস থেকে ৮ রোহিঙ্গা আটক। কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে নিহত ২। পুলিশের বিশেষ অভিযানে সাতক্ষীরায় ২৪ জন আটক। কক্সবাজারে ২০০০ পিস ইয়াবা সহ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে কোস্ট গার্ড। নড়াইলের লোহাগড়ায় শিশু ও মাদারীপুরের কাঁঠালবাড়ি লঞ্চঘাটে বাসের হেলপারের মরদেহ উদ্ধার, আটক ৩। আইন অমান্য করে ইলিশ ধরায়, পটুয়াখালীতে ৩০, রাজবাড়ীতে ১৫ ও চাঁদপুরে ৯ জেলে আটক। বিভিন্ন মেয়াদে সাজা। নাটোরে পুলিশ ও আইনজীবীর হয়রানির শিকার বাবলুকে ১৮ বছর পর মামলা থেকে অব্যাহতিঃ ক্ষতিপূরণের নির্দেশ হাইকোর্টের। নাব্যতা সংকটে শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুট ফেরি চলাচল বন্ধ। ঢাকা জেলার সন্ত্রাস বিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনালের স্পেশাল পাবলিক প্রসিকিউটর থেকে জাহাঙ্গীর আলমকে অব্যহতিঃ আইন মন্ত্রণালয়। চট্টগ্রামে ১৪৮ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে মিশম্যাক শিপ ব্রেকিং ইয়ার্ড এর মালিক মিজানুর রহমান ও মার্কেন্টাইল ব্যাংকের শাখা ব্যবস্থাপক নন্দদুলাল এর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা। প্রধানমন্ত্রীর সাথে ফিফা সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনোর সৌজন্য সাক্ষাৎ।

দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত পড়াশোনার খরচ বহন করবে সরকার

প্রকাশিত: ৩ অক্টোবর ২০১৯  

দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত ছাত্রছাত্রীদের পড়াশোনার খরচ বহন করবে সরকার। তাই স্কুল-মাদরাসায় টিউশন ফি দিতে হবে না। প্রাথমিকভাবে আগামী বছর ষষ্ঠ শ্রেণিতে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর করা হবে। পরের বছর সপ্তম শ্রেণিতে বাস্তবায়ন করা হবে। এভাবে প্রতি বছর একটি শ্রেণি অবৈতনিক শিক্ষায় অন্তর্ভুক্ত হবে। পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি কার্যকর অব্যাহত রাখা হবে।

তবে উপবৃত্তি বাড়িয়ে ৬০ শতাংশ করা হবে। বর্তমানে একটি শ্রেণির ৪০ শতাংশ উপবৃত্তি পাচ্ছে।

বর্তমানে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত প্রাথমিক স্তরের শিক্ষার্থীরা অবৈতনিক ও বাধ্যতামূলক লেখাপড়া করছে। পাশাপাশি শিক্ষার্থীরা উপবৃত্তিও পাচ্ছে। বিপরীত দিকে মাধ্যমিক স্তরে টিউশন ফি দিয়ে লেখাপড়া করতে হচ্ছে। যে পরিমাণ শিক্ষার্থী উপবৃত্তি পাচ্ছে তাদের মধ্যে ১০ শতাংশ ছাত্র, বাকিরা ছাত্রী।

নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ১৫ শতাংশ ছাত্র এবং ৪৫ শতাংশ ছাত্রী উপবৃত্তি পাবে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সিনিয়র সচিব মো. সোহরাব হোসাইন বলেন, প্রধানমন্ত্রী প্রাথমিক স্তরের মতো মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক স্তরের ছাত্রছাত্রীদের লেখাপড়া অবৈতনিক করতে চান। শিক্ষায় টেকসই উন্নয়ন, ভিশন-২০৩০ এবং ২০৪১ অর্জনের লক্ষ্যে ঝরেপড়া রোধ এবং মান অর্জনই অবৈতনিক শিক্ষার প্রধান লক্ষ্য।

এজন্যই পর্যায়ক্রমে ষষ্ঠ থেকে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষা অবৈতনিক করতে চান তিনি (প্রধানমন্ত্রী)। এ লক্ষ্যেই প্রথম ধাপ হিসেবে আগামী শিক্ষাবর্ষ থেকেই ষষ্ঠ শ্রেণির লেখাপড়া অবৈতনিক করার প্রাথমিক সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

সরকারের উল্লিখিত প্রাথমিক সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করার লক্ষ্যে ৬ অক্টোবর বৈঠক ডাকা হয়েছে। এতে সভাপতিত্ব করবেন সিনিয়র সচিব। ওই বৈঠকে সমন্বিত উপবৃত্তি কর্মসূচি এবং ষষ্ঠ শ্রেণিতে টিউশন ফি সুবিধা দেয়ার বিষয়ে আলোচনা করা হবে।

এতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের পাশাপাশি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধানদের ডাকা হয়েছে। বৈঠকে বিশেষ করে কোন পদ্ধতিতে এবং কীভাবে ষষ্ঠ শ্রেণির টিউশন ফি পরিশোধ করা যায়, তা আলোচনা করা হবে।

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –
এই বিভাগের আরো খবর