ব্রেকিং:
সারদার ৩৬ তম বিসিএস সহকারী পুলিশ সুপারদের সমাপনী কুচকাওয়াজে যোগ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ছাত্রলীগ সভাপতি শোভন ও সাধারণ সম্পাদক রব্বানীকে অব্যাহতি। ছাত্রলীগ থেকে পদত্যাগের নির্দেশ। ভারপ্রাপ্ত সভাপতি, আল নাহিয়ান খান জয় এবং ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য। যুক্তরাষ্ট্রের সাথে শান্তি আলোচনায় ব্যর্থ হবার পর মার্কিন সেনা প্রত্যাহার প্রসঙ্গে আলোচনার জন্য রাশিয়ায় আফগান তালেবানদের প্রতিনিধিদল। যুক্তরাষ্ট্রের জঙ্গিবিরোধী অভিযানে আল-কায়েদার প্রতিষ্ঠাতা ওসামা বিন লাদেনের ছেলে হামজা বিন লাদেন নিহত। ডোরিয়ানের আঘাতে কিছুদিন আগেই লন্ডভন্ড হওয়া বাহামার দিকে আবার ধেয়ে আসছে নতুন ঘূর্ণিঝড়। সৌদি আরবের সবচেয়ে বড় দুটি তেল শোধনাগারের ড্রোন হামলার পর উৎপাদন অর্ধেকে নামিয়ে এনেছে সৌদি আরব। ভারতের ছত্তিশগড়ে পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে তিন মাওবাদী গেরিলা নিহত। রাশিয়ার পর এবার যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কিনতে যাচ্ছে তুরস্ক; জানালেন প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান।

রোববার   ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯   ভাদ্র ৩১ ১৪২৬   ১৫ মুহররম ১৪৪১

সর্বশেষ:
সাভার পৌর আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক, আব্দুল মজিদ কে গুলি করে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। রংপুরের পীরগঞ্জে ১১ বছরের শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে হত্যার ঘটনায়, অজ্ঞাত ব্যক্তিদের আসামি করে মামলা দায়ের। নোয়াখালীর আন্ডারচরে অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার। হত্যার অভিযোগে শ্বশুর-শাশুড়ি আটক। নাটোরের গুরুদাসপুরে এক বৃদ্ধের মরদেহ উদ্ধার। ঢাকা উত্তরের কোন বাসায় এডিস মশার লার্ভা পাওয়া গেলে জরিমানা করা হবে, বললেন মেয়র আতিকুল ইসলাম। কিশোরগঞ্জের পুলেরঘাটে সড়ক দুর্ঘটনায় দুইজন নিহত, আহত ১। রাজধানীর মিরপুরে বকেয়া বেতন ও গার্মেন্টস বন্ধের প্রতিবাদে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করছে শ্রমিকরা। ত্রিদেশীয় সিরিজে আজ আফগানিস্তানের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ; মিরপুরে খেলা শুরু সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায়। বিমান বাহিনীর যুদ্ধ বিমান থেকে কুতুবদিয়া ফায়ারিং রেঞ্জে ১৫ থেকে ৩০ সেপ্টেম্বর প্রশিক্ষণের জন্য গোলাবর্ষণ করা হবে। এ সময় সবাইকে ওই এলাকা এড়িয়ে চলার অনুরোধ করা হয়েছে।
২২

নারীদের যে চারটি গুণ দেখে বিয়ে করতে বলেছেন রাসূল (সা.)

প্রকাশিত: ২৮ আগস্ট ২০১৯  

বিয়ে মানবজীবনের একটি গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায়। পৃথিবীর প্রায় সব ধর্মই বিয়েকে উৎসাহিত করেছে। বিয়ের মাধ্যমে জীবনসঙ্গী হিসেবে নারী-পুরুষ পরস্পরকে বেছে নেয়ার অধিকার লাভ করে। ইসলাম বিয়েকে ঈমানি দাবি হিসেবে উল্লেখ করেছে। 

ইসলামের দৃষ্টিতে সুস্থ, সবল ও সামর্থ্যবান ব্যক্তির জন্য বিয়ে করা আবশ্যক। যেহেতু বিয়ের মাধ্যমে মানুষ জীবনসঙ্গী নির্বাচন করে, ইসলামী শরিয়ত বিয়ের আগে পাত্র-পাত্রীর সাক্ষাৎকে বৈধ করেছে। বরং তাতে উৎসাহিত করেছে। যেন দাম্পত্যজীবনে অতৃপ্তি থেকে না যায়। 

কোরআনে ইরশাদ হয়েছে, ‘তোমরা বিয়ে করো সেই স্ত্রীলোককে, যাদের তোমাদের ভালো লাগে।’ (সুরা নিসা, আয়াত : ৩)

হজরত মুগিরা ইবনে শুবা (রা.) বলেন, আমি জনৈক নারীকে বিয়ের প্রস্তাব করলাম। রাসূল (সা.) আমাকে বললেন, ‘তুমি কি তাকে দেখেছ? আমি বললাম, না। তিনি বললেন, তাকে দেখে নাও। কেননা এতে তোমাদের উভয়ের মধ্যে ভালোবাসা জন্মাবে।’ (মিশকাতুল মাসাবিহ, হাদিস : ৩১০৭)

অন্য হাদিসে এসেছে, এক লোক নবী করিম (সা.)-এর নিকট এসে বলল যে, সে আনসারি এক মেয়েকে বিয়ে করতে চায়। রাসূল (সা.) বললেন, ‘তাকে দেখেছ কি? কেননা আনসারদের চোখে দোষ থাকে।’ (সহিহ মুসলিম)

এই হাদিস থেকে বোঝা যায়, শুধু দেখাই যথেষ্ট নয়; বরং পাত্র বা পাত্রীর কোনো ত্রুটি আছে কি না, তাও জেনে নেওয়ার অধিকার অন্য পক্ষের রয়েছে। 

পাত্র ব্যতীত তার পরিবারের অন্য পুরুষদের জন্য পাত্রী দেখার অনুমতি শরিয়ত দেয় না। আর চুল বের করা ও হাঁটানোর মতো বিব্রতকর কাজ অবশ্যই পরিহারযোগ্য।

অনেকেই বিয়ের সময় পাত্রীর সৌন্দর্য ও সম্পদকে বিবেচ্য বিষয় হিসেবে দেখে। এ ক্ষেত্রে কোনো ত্রুটি চোখে পড়লে মেয়ে ও তার পরিবারের সামনেই মন্তব্য করতে থাকে। যাতে মেয়ের পরিবার কষ্ট পায়, মনঃক্ষুণ্ন হয়। যেমন, মেয়ে কালো, চোখ সুন্দর না, ঠোঁট মোটা ইত্যাদি। ইসলাম এভাবে মন্তব্য করতে কঠোরভাবে নিষেধ করেছে। 

রাসূলুল্লাহ (সা.) বাহ্যিক সৌন্দর্যের চেয়ে আত্মিক ও ঈমানের সৌন্দর্যকে প্রাধান্য দিতে বলেছেন।

তিনি বলেন, ‘নারীদের চারটি গুণ দেখে বিয়ে করো : তার সম্পদ, তার বংশমর্যাদা, তার রূপ-সৌন্দর্য ও তার দ্বীনদারী। তবে তুমি দ্বীনদারীকে প্রাধান্য দেবে। নতুবা তুমি ক্ষতিগ্রস্ত হবে।’ (সহিহ বুখারি, হাদিস : ৫০৯০)

রাসূল (সা.) বলেছেন, ‘যখন তোমাদের নিকট কোনো পাত্র বিয়ের প্রস্তাব দেয়, যার দ্বীনদারী ও চরিত্র তোমাদের যদি পছন্দ হয়, তাহলে তার সঙ্গে বিয়ে সম্পন্ন করো। অন্যথা জমিনে বড় বিপদ দেখা দেবে এবং সুদূরপ্রসারী বিপর্যয়ের সৃষ্টি হবে।’ (সুনানে তিরমিজি, হাদিস : ১০৮৪-৮৫)

রাসূলুল্লাহ (সা.) বলেন, ‘যখন কোনো নারী-পুরুষ নির্জনে একত্র হয়, তখন সেখানে তৃতীয়জন হয় শয়তান।’ (সুনানে তিরমিজি, হাদিস : ২১৬৫)

বিয়ের আগে পাত্রীর ছবি হস্তান্তরকেও শরিয়ত নিরুৎসাহ করে। কেননা এতে পাত্রীর ছবি পাত্র ছাড়াও অন্য পুরুষদের সামনে পড়ার আশঙ্কা থাকে। তা ছাড়া বিয়ে না হলে সাধারণত এসব ছবি ফেরত দেয়া হয় না। যা পরবর্তী সময়ে অসৎ উদ্দেশ্যে ব্যবহারের ভয় থাকে।

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –