শনিবার   ১৮ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ৪ ১৪২৬   ২২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

৮৭

নিজেদের ‘গণ্ডি’ পেরিয়ে সুবর্ণা ও সব্যসাচীর বন্ধুত্ব

প্রকাশিত: ১ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

একা একাই ঘুরে চলে জীবনের বৃত্ত। সমাজের ক্যানভাসে আজ অনেক মানুষ একা। তারা একাই নিজের মতো করে জীবন কাটান। কিন্তু নিজের বিষয়ে কি তারা কোনো সিদ্ধান্ত নিতে পারেন?

ধর্মীয় অনুশাসন, সমাজ একা মানুষের স্বাধীনতাকেও আটকে রাখে। খোলা আকাশে নিশ্বাস নেয়া, স্বাভাবিক বন্ধুতারও অধিকার নেই তার। ঢাকা থেকে এই নির্মম সত্যের উপর আলো ফেললেন ‘ভুবন মাঝি’-র পরিচালক ফাখরুল আরেফীন খান। তার ছবি ‘গণ্ডি’-র শুট নিয়ে তিনি এখন ব্যস্ত। শুভজিৎ রায়ের ‘পথের সাথী’গল্প অবলম্বনে তৈরি হচ্ছে ‘গণ্ডি’।

দুই বয়স্ক মানুষ বাড়িতে একা। তাদের ছেলেমেয়েরা বিদেশে। তাদের মধ্যে আলাপ জমে। দেখা হয় রোজ। কিছু প্রেমাস্পর্শ। তারপর?

খুব চেনা ছবি থেকে অচেনা গল্প বলেছেন শুভজিৎ রায়।

এই অচেনা গল্প ঘিরে দুজন প্রটাগোনিস্ট। নিজের সিদ্ধান্তে তারা বাঁচতে চায়। একজন পুরুষ আর একজন মহিলা। কী সেই সিদ্ধান্ত? কেন সিদ্ধান্তের বিরোধী পক্ষ তৈরি হয়? এই নিয়েই নির্মিত হয়েছে চিত্রনাট্য কথা বলে।

এই ‘গণ্ডি’র বন্ধুতা কোনো সমাজ, ধর্ম বা কাঁটাতার মানে না। এখানে মানুষের অন্তর সমস্যার মানসিক দৃশ্যপট তুলে ধরা হয়। বন্ধুত্বের মতো মানবিক জায়গা আজ কোন পর্যায়ে দাঁড়িয়ে? ভিন্ন ধর্মে কি বন্ধুতা হয় না? বয়স্ক দু’জন মানুষের বন্ধুতা কেন তার ছেলেমেয়েদের কাছে গ্রহণযোগ্য হয় না? সেই জায়গা থেকে ‘গণ্ডি’ শব্দটা বেছে নেয়া।

ও পারের অভিনেতা সব্যসাচী চক্রবর্তী এবং বাংলাদেশের অভিনেত্রী সুবর্ণা মুস্তাফা। তাদের নিয়েই সম্প্রতি শুটিং হয়েছে ‘গণ্ডি’ ছবির শুটিং। লন্ডন আর কক্সবাজারে দুই প্রবীণ মানুষের বন্ধুতার গল্প দেখা যাবে এখানে। এই ছবিতে একটি গানের দায়িত্বে আছেন দেবজ্যোতি মিশ্র।

আরেফিন জানালেন, সেই গান হয়তো রূপঙ্কর গাইবেন। আর একটি গান গাওয়ানোর চেষ্টা চলছে অঞ্জন দত্তকে দিয়ে।

চিন্তার গণ্ডিবদ্ধতাকেই প্রশ্ন করছে এই ছবি। ধর্ম-বর্ণ-গোত্রকে ছাড়িয়ে ভারতের নদী স্রোত বয়ে যাবে নীল বন্ধুতার বাংলাদেশের মেঠো শরীরে!

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –