সোমবার   ২০ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ৭ ১৪২৬   ২৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

নীলফামারীতে খোকনদা আন্তঃইউনিয়ন গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট শুরু

প্রকাশিত: ১৪ জানুয়ারি ২০২০  

মুজিববর্ষ ঘিরে “সন্ত্রাস, মাদক ও জঙ্গীবাদ মুক্ত” যুব সমাজ গঠনের শ্লোগান নিয়ে নীলফামারীর শেখ কামাল স্টেডিয়ামে শুরু হয়েছে জেলা সদরে পঞ্চম খোকনদা আন্তঃ ইউনিয়ন ফুটবল টুর্নামেন্ট/২০২০।

জেলা সদর উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার উদ্যোগে ও এভারগ্রীন প্রোডাক্টস্ ফ্যাক্টরী(বিডি) লিঃ এর সহযোগীতায় মঙ্গলবার(১৪ জানুয়ারি/২০২০) বিকেলে এই টুর্নামেন্টের উদ্ধোধনী খেলায় জয় পেয়েছে সংগলশী ইউনয়ন পরিষদ ফুটবল দল। ৪-২ গোলে পরাজিত করে কচুকাটা ইউনিয়ন ফুটবল দলকে।


খেলার নির্ধারিত সময়ে প্রথম হাফের ১২ মিনিটে পেনাল্টি পেয়ে কচুকাটা ইউনিয়ন দল এগিয়ে থাকে। ৩২ মিনিটের মাথায় পাল্টা পেনাল্টি পেয়ে ১-১ গোলে সমতায় ফিরে সংগলশী ইউনিয়ন দল। খেলার নির্ধারিত সময় শেষ হয় ১-১ গোলে। শেষে ট্রাইব্রেকারে ৪-২ গোলে সংগলশী ইউনিয়ন দল পরাজিত করে কচুকাটা ইউনিয়ন দলকে।
এর আগে বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে বেলুন উড়িয়ে টুর্নামেন্টের উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক হাফিজুর রহমান চৌধুরী। সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি এলিনা আকতারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তৃতা দেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোখলেসুর রহমান(বিপিএম,পিপিএম), পৌর মেয়র ও জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি দেওয়ান কামাল আহমেদ, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ স¤পাদক মমতাজুল হক, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক আরিফ হোসেন মুন, উত্তরা ইপিজেডের এভারগ্রীণ প্রোডাক্টস ফ্যাক্টরী (বিডি) লিমিটেডের নির্বাহী পরিচালক হেলাহেন মং, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহিদ মাহমুদ, সদর উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মান্নান প্রমুখ। 


উদ্ধোধনী অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক বলেন, মুজিববর্ষ ঘিরে আমরা ছেলে মেয়েদের লেখাপড়ার পাশাপাশি খেলাধুলা, শরীর চর্চার ওপর গুরুত্ব দিয়েছি। আমরা যতবেশি খেলাধুলা, সাংস্কৃতিক চর্চা স¤পৃক্ত করতে পারলে, সমাজ থেকে মাদক-জঙ্গি এ ধরনের বিপথে ছেলেমেয়েরা রক্ষা করতে পারবো। 
প্রধান অতিথি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শিক্ষার সঙ্গে সঙ্গে খেলাধুলার উপর শিক্ষার্থীদের গুরুত্ব দিতে বলেছেন। খেলাধুলার সঙ্গে আমাদের শিশু-তরুণরা যত বেশি স¤পৃক্ত হলে-আমি মনে করি শারিরীকভাবে তারা সুস্থ থাকবে, মানসিকভাবে তারা দৃঢ়চেতা হবে, মনোবল বৃদ্ধি পাবে, দেশ ও জাতির জন্য তারা গৌরব বয়ে আনবে, পরিবারের জন্য গৌরব বয়ে আনবে। 


জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারন সম্পাদক ও জাতীয় ফুটবল দলের সাবেক অধিনায়ক  আরিফ হোসেন মুন জানান, খোকদা এই ফুটবল টুর্নামেন্টের প্রধান উদ্যোগতা নীলফামারী সদর আসনের সংসদ সদস্য সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর এমপি। তার  উদ্যোগে ২০১৪ সালের ৭ নবেম্বর হতে  খোকনদা আন্তঃ ইউনিয়ন গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট শুরু করা হয় । যার ধারাবাহিকতায় প্রতি বছর এই খেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে।


আয়োজনকরা জানায়, নীলফামারীর এককালের শিক্ষা গুরু ছিলেন বাবু সূনীল রতন ব্যানার্জী ওরফে খোকন দা। তার কৈশোর-যৌবন এবং জীবনের মাহেন্দ্রক্ষন নীলফামারীর ক্রীড়াঙ্গন জুড়েই কেটেছিল। নীলফামারী হাই স্কুলের একজন সাধারন সহকারী শিক্ষক হয়েও তিনি কাঁধে তুলে নিয়েছিলেন নীলফামারীর শিক্ষা,সংস্কৃতি এবং ক্রীড়ার এক অতুলনীয় আদর্শ। নীলফামারীর সেই খোকদার জন্য আজ স্বর্ণময় অতীত। সে অতীত খন্ড খন্ড স্বর্ণের ফোর দিয়ে সুবর্ণ নকশী কাঁথা হয়ে উঠেছে। আজ প্রয়াত সেই খোকনদার  পরশে তৎকালিন পূর্ব পাকিস্তান আন্তঃস্কুল ফুটবল প্রতিযোগী ১৯৫০ নীলফামারীতে অনুষ্ঠিত হয়েছিল। তারই সুবাধে নীলফামারী হাই স্কুল মহকুমা, জেলা ও বিভাগ ও জাতীয় পর্যায়ে চ্যা¤িপয়ান হবার গৌরব অর্জন করেছিল। খোকনদা ছিলেন চিরকুমার। শেষ জীবনে খোকনদা তার পৈত্রিক ভিটা হিসাবে ভারতের জলপাইগুড়ি ফিরে যান। সেখানে তিনি বার্ধক্যজনিত রোগে মৃত্যু বরন করেন। তার স্মৃতি বিজরিত নীলফামারী খোকদাকে স্মরন করে রেখেছে এই ফুটবল টুর্নামেন্ট চালু করে।

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –
এই বিভাগের আরো খবর