• শুক্রবার   ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ||

  • ফাল্গুন ১৩ ১৪২৭

  • || ১৪ রজব ১৪৪২

সর্বশেষ:
বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ৪৪০০ কোটি ছাড়াল দিনাজপুরে ১৩ হাজার খামারিকে আর্থিক প্রণোদনা দেয়া শুরু করোনা নিয়ন্ত্রণে বাংলাদেশ বিশ্বে অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপণ করেছে আসছে তাৎক্ষণিকভাবে ভোটার হওয়ার সুযোগ বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ৪৪০০ কোটি ছাড়াল

নীলফামারীতে টিকা নিলেন ভাষা সৈনিক সমেলা রহমান

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১  

৫২ সালের ভাষা আন্দোলনে নীলফামারীতে মাতৃভাষা বাংলাকে প্রতিষ্ঠা করতে সক্রিয় ভুমিকা পালন করেছিলেন বর্তমানে ৮৭ বছরের নারী সমেলা রহমান। বয়সের বাড়লেও তিনি সেই মনোবল এখনও ধরে রেখে আজ বুধবার(১৭ ফেব্রুয়ারী) জেনারেল হাসপাতালে করোনার টিকা গ্রহণ করেছেন।

টিকা গ্রহনের পর বিকালে তিনি জানান, ৫২ এর যে মাসটিতে বাংলাভাষার জন্য আন্দোলন করেছিলাম সেই মাসেই আজ আমি করোনা টিকা গ্রহন করে নিজেকে ধন্যমনে করছি ও সুস্থ্য আছি। সেই সঙ্গে তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে বলেন, বঙ্গবন্ধুর কন্যার কারনে আজ আমরা দ্রæততার সঙ্গে করোনা টিকা পেয়েছি। তিনি সুস্থ্য ও ভাল আছেন উল্লেখ করে এই টিকা সকলকে গ্রহনের আহবান জানিয়েছেন।

সিভিল সার্জন জাহাঙ্গীর কবির বলেন, ভাষা সৈনিক  মা সমেলা রহমান করোনা টিকা গ্রহনে এলে তাকে সহল প্রকার সহায়তা প্রদান করে টিকা দেয়া হয়। এ জন্য এই ভাষা সৈনিককে তিনি শ্রদ্ধা ভরে স্যালুট জানান। সমেলা রহমান নীলফামারীর শাহীপাড়ার মরহুম ভাষা সৈনিক অলিয়ার রহমানের সহধর্মীনী। তাদের কন্যা সুমী ঢাকার একজন নাট্য অভিনেত্রী। 
জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সুত্রে জানা যায়, নীলফামারী জেলার ৭টি কেন্দ্রের ২৪টি বুথে গত ১০ দিনে করোনার গণটিকাদান কর্মসূচির প্রথম দফার টিকা নিয়েছেন ১৯ হাজার ৯৯০ জন । এদের মধ্যে নারী রয়েছেন ৬ হাজার ৯৩ জন। আজ বুধবার ৯৩৯ জন নারী সহ টিকা গ্রহণ করেন ২ হাজার ৭৪০ জন। 

এদিকে জেলা সদরের ১৫টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা এলাকায় স্থানীয় স্বাস্থ্য বিভাগ সহ সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ ও জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ করোনার গণটিকা কর্মসুচি দ্রæত বাস্তবায়নে সাধারন মানুষজনকে অনলাইনে ফ্রি নিবন্ধন করে দিচ্ছেন। এ ছাড়া জলঢাকা উপজেলায় উপজেলা ও পৌর ছাত্রলীগের পক্ষেও ফ্রি নিবন্ধন কর্মসুচি চালু করেছে। এতে সাধারন মানুষজন সহজে এই সুবিধা গ্রহণ করে করোনা টিকা গ্রহন করতে সক্ষম হচ্ছে। 


উল্লেখ যে, জেলায় আসা ৬০ হাজার ডোজ করোনা টিকা দুই দফায় ৩০ হাজার জনকে প্রদান করা হবে।  গত ৭ ফেব্রুয়ারী থেকে সারা দেশের ন্যায় নীলফামারীতে শুরু হয় গণটিকাদান কর্মসূচি। আজ ১৭ ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত টিকা গ্রহণকারীদের মধ্যে এখন পর্যন্ত কোনো নারী পুরুষ অসুস্থ্য হননি।