ব্রেকিং:
করোনাভাইরাস মোকাবিলায় এপ্রিল মাসে স্থলবন্দর দিয়ে কাউকে ঢুকতে দেয়া হবে না: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ডাক্তার অনুপস্থিতির দুর্দিন এলে প্রয়োজনে বিদেশ থেকে আনা হবে:প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত খুনি আব্দুল মাজেদকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে আদালত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনকে হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি করা হয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্বপরিবারে হত্যার দায়ে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামি আবদুল মাজেদ গ্রেফতার
  • মঙ্গলবার   ০৭ এপ্রিল ২০২০ ||

  • চৈত্র ২৪ ১৪২৬

  • || ১৩ শা'বান ১৪৪১

সর্বশেষ:
করোনার পরীক্ষামূলক ওষুধ তৈরিতে আশার আলো দেখাচ্ছে বাংলাদেশ! বিশ্বব্যাপী মহামারির মধ্যেই আজ বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস করোনা পরিস্থিতি দেখে ভয় পেলে ভয় পেলে চলবে না, সতর্ক থাকতে হবে:প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা টেলিভিশনে প্রাথমিক শিক্ষার্থীদের পাঠদান শুরু আজ জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন
১৪৪

নীলফামারীতে নিরাপদ সবজি গ্রাম পরিদর্শন করলেন জেলা প্রশাসক       

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৩ মার্চ ২০২০  

নীলফামারীর ছয় উপজেলায় গড়ে উঠেছে ১২টি নিরাপদ সবজি গ্রাম। এসব গ্রামের কৃষকরা বিভিন্ন জাতের সবজীর চাষাবাদ শুরু করেছেন জৈব ও নিরাপদ পদ্ধত্তিতে। কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের তত্বাবধানে গড়ে উঠা এসব সবজি ক্ষেত থেকে সুফল পেতে শুরু করেছেন কৃষকরা। 


এমন সফলতার সুসংবাদে  মঙ্গলবার(৩ মার্চ) দুপুরে জেলা সদরের সোনারায় ইউনিয়নের চিলাই জয়চন্ডি গ্রামের নিরাপদ সবজি গ্রাম পরিদর্শন করে ওই গ্রামে কৃষকদের সাথে মতবিনিময় করেছেন জেলা প্রশাসক হাফিজুর রহমান চৌধুরী।


এসময় জেলা কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের উপ-পরিচালক নিখিল চন্দ্র বিশ্বাসের সভাপতিত্বে বক্তৃতা দেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীন, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোখলেছুর রহমান(পিপিএম,বিপিএম), স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক আব্দুল মোতালেব সরকার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আজাহারুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(নীলফামারী সার্কেল) রুহুল আমিন, সিভিল সার্জন ডাঃ রনজিত কুমার বর্ম্মন, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সাহিদ মাহমুদ, সদর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কামরুল হাসান, এসএএও’র ডিপ্লোমা কৃষিবিদ নাজমুল হুদা মিঠু, নারী কৃষক চামেলী রায় প্রমুখ। 


পরিদর্শন শেষে জেলা প্রশাসক বলেন, এসব সবজি গ্রামের উদ্যোগ বাস্তবায়িত হলে ভোক্তারা উপকৃত হবে। মানুষের স্বাস্থ্য ঝুঁকি কমবে। পাশপাশি কৃষকও লাভবান হবেন। সেটি গোটা দেশে ছড়িয়ে পড়লে নীলফামারী জেলা হবে সারা দেশের মডেল। তিনি বলেন, সরকার ইতোমধ্যে তামাক চাষ বন্ধের জন্য প্রদক্ষেপ নিয়েছে। যারা তামাক চাষ করছে তাদেরকে সবজি চাষে নিয়ে আসা হবে। 


জেলা কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের উপ-পরিচালক নিখিল চন্দ্র বিশ্বাস জানান, কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের অধীনে ছয় উপজেলার প্রতিটিতে দুইটি করে গ্রামে জৈব ও নিরাপদ পদ্ধতিতে সবজি ও মসলা জাতীয় ফসলের চাষ শুরু হয়েছে। প্রতিটি গ্রামের কৃষকের সংখ্যা ৩০ থেকে ৭০ জন। চিলাই জয়চন্ডি গ্রামে নিরাপদ সবজী চাষের জমির পরিমান পাঁচ একরের উপরে। অপর গ্রামগুলোতে সাত থেকে ১১ একর পর্যন্ত জমি রয়েছে। তিনি বলেন, কৃষকদের উৎপাদিত এসব সবজি বাজারজাত করণের জন্য জেলা শহরের বড়বাজারে একটি বিক্রয়কেন্দ্র খোলা হয়েছে। এছাড়া সকল উপজেলা সদর এবং জেলার প্রতিটি ইউনিয়নের বড় হাটবাজারে একটি করে বিক্রয়কেন্দ্র খেলার প্রস্তুতি চলছে।

নীলফামারী বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর