শুক্রবার   ১৫ নভেম্বর ২০১৯   কার্তিক ৩০ ১৪২৬   ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

১৯

নীলফামারী সদর উপজেলা আ.লীগের সভাপতি আবুজার, সাধারণ সম্পাদক ওয়াদুদ

প্রকাশিত: ২০ অক্টোবর ২০১৯  

১৩ বছর পর নীলফামারী সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। রবিবার(২০ অক্টোবর) সম্মেলনের দ্বিতীয় পর্বে সন্ধ্যায় সম্মেলনে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সদ্য বিলুপ্ত কমিটির সাধারণ সম্পাদক আবুজার রহমান সভাপতি ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ওয়াদুদ রহমান সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন। এছাড়া সিনিয়র সহ-সভাপতি হয়েছেন মাহফুজার রহমান শাহ্। নবীন ও প্রবীণের সমন্বয়ে গঠিত ৬৭ সদস্যের ওই কমিটিকে স্বাগত জানিয়েছেন নেতাকর্মীরা

সম্মেলনের প্রথম পর্বে সকাল ১১টার দিকে জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের পর বেলুন এবং পায়রা উড়িয়ে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন নীলফামারী-২ আসনের সংসদ সদস্য আসাদুজ্জামান নূর। 

এরপর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলিমুদ্দিন বসুনিয়ার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রিয় সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক।

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন নীলফামারী-১ (ডোমার-ডিমলা) আসনের সংসদ সদস্য আফতাব উদ্দিন সরকার, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি দেওয়ান কামাল আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক মমতাজুল হক, সাবেক সংসদ সদস্য মো. জোনাব আলী, সংরক্ষিত নারী সংসদ সদস্য রাবেয়া আলীম। সভা পরিচালনা করেন সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুজার রহমান।

এসময় প্রধান অতিথি কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক বলেন,‘রাজনীতির মূল কথা হলো মানুষের জন্য, মানুষের কল্যাণে, দেশের জন্য এবং দেশের কল্যাণে কাজ করা।’

নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন,‘ক্ষুধা, দারিদ্রমুক্ত, অসাম্প্রদায়িক ও উন্নত সমৃদ্ধ সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্ন দেখেছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। ওই স্বপ্ন পূরণে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন তাঁরই সুযোগ্য কণ্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সে স্বপ্ন পূরণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গেও মুজিব সৈনিকদের নিরলসভাবে কাজ করতে হবে। শেখ হাসিনা দেশের ৬৪ জেলায় শিল্পনগরী গড়ার মধ্যদিয়ে শিক্ষিত অশিক্ষিত বেকার যুবকদের কর্মসংস্থান সৃষ্টির জন্য পরিকল্পনা গ্রহণ করেছেন।’

সংসদ সদস্য আসাদুজ্জামান নূর বলেন,‘আওয়ামী লীগে অনুপ্রবেশকারী ঢুকেছে। সে অনুপ্রবেশকারীরা দলটাকে বিক্রি করছে, দলকে ব্যবহার করে তারা নিজেরা লাভবান হচ্ছে। এসব অনুপ্রবেশকারীদের বিরুদ্ধে নেত্রী আজ সোচ্ছার হয়েছেন। তাদের ব্যাপারে আমাদেরকেও সতর্ক থাকতে হবে।’

দলীয় নেতাকর্মীদের উদেদ্দেশ্যে তিনি বলেন,‘আপনাদের জন্য আওয়ামী লীগ টিকে আছে। আপনাদের জন্য আওয়ামী লীগ দিন দিন শক্তিশালী হচ্ছে, ভবিষ্যতে আরও শক্তিশালী হবে। এধারা অব্যাহত থাকলে একদিন প্রতিটি ঘরে ঘরে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ প্রতিষ্ঠিত হবে।’

বিকাল চারটার দিকে একই স্থানে দ্বিতীয় অধিবেশনে সর্বসম্মতিক্রমে আবুজার রহমানকে সভাপতি, ওয়াদুদ রহমানকে সাধারণ সম্মাদক করে ৬৭ সদস্যের সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক কমিটি ঘোষণা করা হয়।

উল্লেখ্য, সর্বশেষ ২০০৬ সালের ৭ মে নীলফামারী সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। ওই সম্মেলনে আলিমুদ্দিন বসুনিয়া সভাপতি ও আবুজার রহমান সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। 

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –
এই বিভাগের আরো খবর