ব্রেকিং:
ট্রেন দুর্ঘটনায় তূর্ণা নিশীথার চালক, সহকারী চালক ও পরিচালককে বরখাস্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলায় আন্তঃনগর উদয়ন এক্সপ্রেসে তুর্ণা নীশিতার ধাক্কায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৬ জনে দাঁড়িয়েছে।

বুধবার   ১৩ নভেম্বর ২০১৯   কার্তিক ২৮ ১৪২৬   ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

সর্বশেষ:
ট্রেন দুর্ঘটনার ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন, ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দেয়ার নির্দেশ ঘূর্ণিঝড় বুলবুলে কৃষিতে ক্ষতি ২৬৩ কোটি টাকা ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহতদের পরিবার প্রতি ১ লাখ টাকা এবং আহতদের ১০ হাজার টাকা করে সাহায্যের ঘোষণা রেলপথ মন্ত্রীর ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনায় হতাহতের ঘটনায় গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী স্বেচ্ছাসেবকলীগ ঢাকা মহানগর উত্তরের সম্মেলন আজ রাষ্ট্রপতি নেপাল যাচ্ছেন আজ জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠান আগামী ৮ ডিসেম্বর টি-টোয়েন্টি র‌্যাংকিংয়ে ৩৮তম স্থানে বাংলাদেশের মোহাম্মদ নাঈম
৫০৮

পুষ্টিতে ভরপুর কাঁঠাল

ডেস্ক রির্পোট

প্রকাশিত: ৩ ডিসেম্বর ২০১৮  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

গ্রীষ্মের রসালো ফলের তালিকায়ও রয়েছে কাঁঠাল। এটি বাংলাদেশের জাতীয় ফল। সুস্বাদু এই ফলটি পুষ্টিগুণের দিক থেকেও অনন্য।

প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন, মিনারেল, কার্বোহাইড্রেট ও প্রোটিন পাওয়া যায় কাঁঠাল থেকে। ফ্যাট ও ফাইবার সমৃদ্ধ ফলটি শরীরের জন্য যেমন উপকারী, তেমনি এর বিচিতেও রয়েছে অনেক গুণ। চলুন জেনে নেই নানা গুণে ভরপুর বা গুণান্বিত ফলটির নানা উপকারিতা-

> উচ্চ রক্তচাপ, স্ট্রোক, হার্ট অ্যাটাক প্রতিরোধ করে কাঁঠাল।

> কাঁঠালে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি ও অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট থাকে যা শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।

> কাঁঠালে আছে প্রচুর কার্বোহাইড্রেট ও ক্যালোরি। ফলে কাঁঠাল খেলে তাৎক্ষণিক পাবেন শক্তি। এতে কোলেস্টেরল না থাকায় শরীরের জন্য নিরাপদ।

> অ্যান্টি অক্সিডেন্ট ও ফ্ল্যাভোনয়েড থাকায় কাঁঠাল ক্যানসার প্রতিরোধ করতে পারে। এতে থাকা অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট শরীরে ফ্রি রেডিক্যাল প্রতিরোধ করে, যা ক্যানসার সৃষ্টির জন্য দায়ী।

> কলা ও আমের তুলনায় নিয়াসিন ও থায়ামিন বেশি থাকে কাঁঠালে। তাই এটি অ্যাথলেটদের জন্য একটি দারুণ এনার্জি ফুড। এটি ক্লান্তি দূর করে, পেশি সবল করে ও মস্তিষ্ক সতেজ রাখে।

> মলাশয় ও ফুসফুস ক্যানসার রোধে ভূমিকা রাখে কাঁঠাল। মলাশয় থেকে টক্সিন বের করে দিয়ে ক্যানসার হওয়া রোধ করে।

> কাঁঠালে পটাশিয়াম থাকে, যা শরীরে সোডিয়াম লেভেল ঠিক রাখে। এতে করে শরীরে ইলেকট্রোলাইটের ভারসাম্য রক্ষা হয়।

> প্রচুর আঁশ থাকে কাঁঠালে, তাই হজম শক্তি বাড়ায় ও কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে। আলসারসহ হজমের অন্য সব রোগ সারিয়ে তোলে।

> কাঁঠালে প্রচুর ভিটামিন এ থাকে, যা দৃষ্টিশক্তির জন্য ভালো। এই ফল খেলে চোখের ছানি পড়া, রাতকানা রোগ ও চোখের সমস্যা থেকে দূরে থাকবেন আপনি।

> ক্যালসিয়াম ও ম্যাগনেশিয়াম থাকে কাঁঠালে। তাই এটি হাড় মজবুত রাখে। অস্টিওপোরসিস রোগ প্রতিরোধ করে।

> কাঁঠাল আপনার ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াবে।

> থাইরয়েড হরমোনের ভারসাম্য রক্ষার জন্য কপার খুব গুরুত্বপূর্ণ। কাঁঠালে থাকা কপার তাই থাইরয়েড গ্রন্থিকে ভালো রাখে।

> কাঁঠালের বিচিতেও রয়েছে প্রোটিন। ভর্তাসহ নানা পদের খাবার তৈরি করা হয় এটি দিয়ে। কোষ্ঠকাঠিন্য প্রতিরোধ করতে কাঁঠালের বিচি খেতে পারেন। এটি শরীরের রক্ত সরবরাহ বাড়ায়। ফলে ভালো থাকে ত্বক ও চুল।

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –