রোববার   ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২৪ ১৪২৬   ১০ রবিউস সানি ১৪৪১

৩৬৭

পেঁপের বড়া

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ২০ নভেম্বর ২০১৮  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

গরম ভাতের সঙ্গে যে কোনো বড়াই খেতে অসাধারণ! তবে পেঁপের বড়া বোধ হয় একটু বেশিই মজাদার। শুধু ভাতের সঙ্গে কেনো বিকেলের নাস্তায়ও খেতে পারেন। জেনে কীভাবে চটজলদি পেঁপে বড়া তৈরির প্রণালী-

উপকরণ: বড় সাইজের পেঁপে ১টি, সুজি ১ কাপ, সেদ্ধ আলু ১ কাপ, আদা ও রসুনের পেস্ট আধা চা চামচ, হলুদের গুঁড়ো আধা চা চামচ, লাল মরিচের গুঁড়ো আধা চা চামচ, ধনে গুঁড়ো আধা চা চামচ, জিরার গুঁড়ো আধা চা চামচ, চাটপটির মসলা আধা চা চামচ, গোল মরিচের গুঁড়ো ১/৩ চা চামচ, লবণ স্বাদ মতো, কাঁচা মরিচ কুচি ১ চা চামচ, পেঁয়াজ কুচি ২ চা চামচ, ধনে পাতা কুচি ২ চা চামচ, ব্রেড ক্রাম ২ কাপ, ডিম ২টি, চিলি ফ্লেক্স আধা চা চামচ, কালো জিরা আধা চা চামচ।

প্রণালী: পেঁপে টুকরো করে সেদ্ধ করে নিয়ে এর মধ্যে এক কাপ সুজি দিতে হবে। আর দিতে হবে এক কাপ সেদ্ধ করে নেয়া আলু। এগুলো ভালো করে ব্লেন্ড করে মরিচ ও পেঁয়াজ কুচি ছাড়া বাকি মসলা লবণ দিয়ে একসঙ্গে মেখে নিতে হবে। মিনিট পাঁচেক রাখার পর কাঁচা মরিচ কুচি, পেঁয়াজ কুচি, ধনে পাতা কুচি, এক কাপ ব্রেড ক্রাম (চার থেকে পাঁচটি পাউরুটি মিক্সারে গুঁড়ো করে ব্রেড ক্রাম তৈরি করে নিতে হবে) খুব ভালো করে মিশিয়ে ফ্রিজে এক ঘণ্টার জন্য রেখে পরে হাতে তেল মেখে কাবাবের মতো শেপ করে বড়া তৈরি করতে হবে।

এবার দুইটি ডিম ফেটিয়ে এক কাপ ব্রেড ক্রামের সঙ্গে আধা চা চামচ চিলি ফ্লেক্স ও আধা চা চামচ কালো জিরা মিশিয়ে নিতে হবে। চাইলে এটা বাদ ও দিতে পারেন। এবার একটি করে বড়া ডিমের মিশ্রণে ঢুবিয়ে তুলে ব্রেড ক্রামের মধ্যে দিতে হবে। একটু সময় নিয়ে ভালো করে উলটে পালটে ব্রেডক্রাম ভালো মত মাখিয়ে এক ঘণ্টার জন্য ডিপ ফ্রিজে রেখে দিন। এক ঘণ্টা পর বের করে যে কোনো জিপ লগ প্যাকেট বা বাতাস প্রতিরোধক কন্টিনারে এক মাসের মতো সংরক্ষণ করতে পারবেন। আর যখন খুশি বের করে নরমাল তাপমাত্রায় এনে ভেজে নিলেই হয়ে যাবে। ভাজার জন্য প্যানে তেল গরম করে বড়াগুলো অল্প আঁচে ব্রাউন কালার করে ভেজে নিতে হবে। ভাজা হলে টিস্যুর উপর রাখতে হবে যাতে অতিরিক্ত তেল শুষে যায়। এভাবেই খুব সহজে বাসায় পেঁপের বড়া তৈরি করে নিতে পারেন।

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –