• বৃহস্পতিবার   ১৩ আগস্ট ২০২০ ||

  • শ্রাবণ ২৯ ১৪২৭

  • || ২৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

সর্বশেষ:
বন্যা কবলিত উত্তরাঞ্চলে কৃষকদের বিনামূল্যে সবজি বীজ দেবে সরকার বাংলাদেশকে সাতটি বড় প্রকল্পে ৩১১ কোটি ডলার ঋণ দেবে জাপান দেশের বৃহত্তম অর্থনৈতিক অঞ্চল ‘বঙ্গবন্ধু শিল্প নগর’ উন্নয়নে ৫০ কোটি ডলার ঋণ দেবে বিশ্বব্যাংক শিগগিরই বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদন করতে যাচ্ছে সরকার: স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম সৈয়দপুরে সমাজসেবা দপ্তরের উদ্যোগে ২৩ পরিবারকে আর্থিক সহায়তা
৫২৬

প্রার্থী হতে বিএনপির চাপ, কামালের স্পষ্ট ‘না’

নীলফামারি বার্তা

প্রকাশিত: ১৩ নভেম্বর ২০১৮  

দলীয় চেয়ারপারসনের অবর্তমানে নির্বাচনে প্রার্থী হতে ড. কামালকে খালেদার তিনটি আসন উপহার হিসেবে দিতে চায় বিএনপি। এরইমধ্যে অনানুষ্ঠানিকভাবে তেমন ঘোষণাও দিয়েছেন দলটির নেতারা। তবে বিএনপি চাইলেও প্রার্থী হতে চান না জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট প্রধান ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন। কারন, তিনি শারীরিকভাবে বেশ অসুস্থ্। এ অবস্থায় তার পক্ষে নির্বাচন করা প্রায় অসম্ভব। আর একারণেই গত ৯ নভেম্বর রাজশাহীর সমাবেশেও যোগ দেননি তিনি। মোবাইল ফোনের মাধ্যেমে সমাবেশে উপস্থিত নেতাকর্মীদের উদ্দেশে বক্তব্য দেন ঐক্যফ্রন্ট প্রধান।

এ বিষয়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির এক সদস্য বলেন, ড. কামাল হোসেনকে আমিও নির্বাচনে প্রার্থী হতে অনুরোধ করেছি। কিন্তু তিনি কোনোভাবেই রাজি হচ্ছেন না। ড. কামালের ঘনিষ্ঠ সূত্রে জানা গেছে, গত কয়েকদিন ধরে শারীরিক অসুস্থতার কারণে তিনি বাসায়ই থাকছেন।

একাদশ সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে গঠিত হয় জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। নির্বাচন নিয়ে বেশিরভাগ রাজনৈতিক দল যখন অন্ধকারে ঠিক তখন ড. কামাল ক্ষমতার মালিক জনগণকে ভোটের অধিকার ফিরিয়ে দিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় অবতীর্ণ হন। তার সঙ্গে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি ও নিরপেক্ষ সরকারের দাবিসহ সাত দফার পক্ষে জোরালো অবস্থান নেন আ স ম আবদুর রব, মাহমুদুর রহমান মান্না ও বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকীর মতো রাজনীতিকরা। আর তাতেই শক্ত অবস্থানে দাঁড়ায় বিএনপি।

রাজনীতি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর