ব্রেকিং:
গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরো দুই হাজার ৫৪৫ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। এ নিয়ে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে ৪৭ হাজার ১৫৩ জনে দাঁড়িয়েছে। একই সময়ে মারা গেছেন আরো ৪০ জন। এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ৬৫০ জন। একদিনের আক্রান্ত ও মৃত্যুর পরিসংখ্যানে এটিই সর্বোচ্চ। ট্রেনের টিকিট শুধু অনলাইনেই বিক্রি হবে বলে জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন। বসলো পদ্মাসেতুর ৩০তম স্প্যান: দৃশ্যমান সাড়ে ৪ কিলোমিটার গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় ছয়জন নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে দুইজন স্বাস্থ্যকর্মী, তিনজন গার্মেন্টসকর্মী ও একজন মাওলানা।
  • রোববার   ৩১ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৭ ১৪২৭

  • || ০৮ শাওয়াল ১৪৪১

সর্বশেষ:
করোনা রোধে জনপ্রতিনিধিদের আরো সম্পৃক্তের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর স্বাস্থ্যবিধি মেনে সব অফিস খুলছে আজ করোনায় স্বাস্থ্যবিধি মানাতে চলবে মোবাইল কোর্ট পঙ্গপালের কারণে বিপর্যয়ের মুখে ভারত-পাকিস্তান দেশেই করোনাভাইরাসের পূর্ণাঙ্গ জিনোম সিকোয়েন্সিং সম্পন্ন আদিতমারীতে সব করোনা রোগী সুস্থ হয়েছেন
১৫৯

ফের উত্তপ্ত কাশ্মীর, সেনা অভিযানে শীর্ষ জঙ্গি কমান্ডার নিহত

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

জঙ্গিবিরোধী অভিযানে ফের উত্তাল হয়ে ওঠেছে ভারত নিয়ন্ত্রীত জম্মু-কাশ্মীর। অভিযানে পাকিস্তান ভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন লস্কর-ই-তৈইবার শীর্ষ কমান্ডার আসিফ নিহত হয়েছে বলে দাবি করেছে ভারতীয় সেনাবাহিনী। এছাড়া ঘটনাস্থল থেকে বেশ কিছু অস্ত্র ও নথি উদ্ধার করা হয়েছে বলেও জানিয়েছে তারা।

বুধবার কাশ্মীরের সোপোরে সংগঠনটির শীর্ষ কমান্ডার আসিফ লুকিয়ে আছে বলে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পেরে সেখানে অভিযান চালায় ভারতীয় সেনা ও পুলিশের যৌথবাহিনী। তারা আস্তানাটির চারপাশ ঘিরে ফেলে। নিরাপত্তারক্ষীদের উপস্থিতির কথা জানতে পেরে গুলি চালাতে শুরু করে আসিফ। তবে শেষরক্ষা হয়নি। বেশ কিছুক্ষণ লড়াইয়ের পর সেনাবাহিনীর গুলিতে নিহত হয় আসিফ। উপত্যকায় একাধিক নাশকতা ও হত্যার পেছনে হাত ছিল আসিফের। বহুদন ধরেই এই মোস্ট ওয়ানন্টেড জঙ্গিকে ধরার চেষ্টা চলছিল।

সাম্প্রতিক সময়ে কাশ্মীরে লস্কর-ই-তৈইবার ৮ জঙ্গিকে আটক করা হয়েছে। সোমবার দক্ষিণ কাশ্মীরের সোপোর থেকে তাদের গ্রেফতার করে জম্মু-কাশ্মীর পুলিশের সন্ত্রাসদমন শাখা। বেশ কিছুদিন ধরে ওই এলাকায় তারা গা ঢাকা দিয়েছিল বলে অভিযোগ রয়েছে।

গ্রেফতার হওয়া ওই আট জঙ্গি হলো, এজাজ মির, ওমর মির, তৌসিফ নজর, ইমতিয়াজ নজর, ওমর আকবর, ফয়জান লতিফ, দানিশ হাবিব এবং শওকত আহমেদ মীর। তবে এরা সবাই কাশ্মীরের বাসিন্দা নয়। এদের মধ্যে কেউ পাকিস্তানের বাসিন্দা কি-না তা জানতে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

আন্তর্জাতিক বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর