• বৃহস্পতিবার   ২৮ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৪ ১৪২৭

  • || ০৫ শাওয়াল ১৪৪১

সর্বশেষ:
সাধারণ ছুটি বাড়ছে না, স্বাস্থ্যবিধি মেনে ৩১ মে থেকে চলবে অফিস! অবশেষে সীমিত আকারে চালু হচ্ছে গণপরিবহন অফিস খুললেও বয়স্ক-গর্ভবতীদের কর্মস্থলে যেতে হবে না নিরাপদ মাতৃত্ব দিবস আজ ভারত-চীন উত্তেজনার মধ্যেই ভারতে সেনা সম্মেলন শুরু
৫৩৭

ফেসবুকে আইইএলটিএস’র প্রশ্নফাঁসে ফাঁদ

নীলফামারি বার্তা

প্রকাশিত: ১৭ নভেম্বর ২০১৮  

পরীক্ষার প্রশ্ন, আর প্রতারণার ফাঁদ যেন একই। প্রাথমিক থেকে বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি ও চাকরির পরীক্ষার পর এবার অভিনব পদ্ধতিতে ফাঁদ পাতা হচ্ছে আইইএলটিএস কোর্সের পরীক্ষায়। টার্গেট বিদেশে পড়তে যাওয়া শিক্ষার্থীরা। বড় স্কোর সবার প্রত্যাশা। সেই সুযোগেই ফাঁদ পেতেছে অসাধু প্রশ্ন ফাঁস চক্র। মাঠে সক্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে।

 

1.ফেসবুকে আইইএলটিএস’র প্রশ্নফাঁসে ফাঁদ

বিগত সময়ে প্রশ্ন ফাঁস চক্রের হাত থেকে ছাড় পায়নি এসএসসি, এইচএসসি, বিশ্ববিদ্যালয় ও মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা। এমন কি বাদ যায়নি বিসিএস পরীক্ষাও।

এবার প্রশ্ন ফাঁস চক্রের হাতে নতুন করে বন্ধি হয়েছে বিদেশে পড়তে যাওয়া শিক্ষার্থীদের আইইএলটিএস পরীক্ষা। বাংলাদেশ থেকে উচ্চশিক্ষার জন্য ইউরোপের দেশগুলোতে পাড়ি জমাচ্ছেন বহু শিক্ষার্থী। এতে দেখা গেছে, উচ্চবিত্ত পরিবার থেকে একের অধিক ছেলে মেয়েরা রয়েছেন ওই তালিকার শীর্ষে। শর্ত থাকে ইউরোপের যে কোনো দেশে যেতে আইইএলটিএস করতে হয়। প্রয়োজন হয়, একটি বড় স্কোর। আর সেটি অনেকের জন্যই বেশ কঠিন হয়ে পড়ে। আর এই দুর্বলতাকে পুঁজি করে একটি অসাধুচক্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে আইইএলটিএস স্টুডেন্টদের কড়া নাড়ছে। অল্পতেই কি করে সেভেন প্লাস স্কোর পাওয়া যায় তার একটি নমুনা দেয়া হচ্ছে ফেসুবকে। বিদেশগামী শিক্ষার্থীদের সঙ্গে ফেসবুকের মাধ্যমে যোগাযোগ করছে ওই অসাধু চক্রটি।

 

2.ফেসবুকে আইইএলটিএস’র প্রশ্নফাঁসে ফাঁদ

ফেসবুকে যোগাযোগের পর অসাধু চক্রটি আইডিপি আইইএলটিএস এর স্টুডেন্টদের কিছু প্রশ্নের নমুনা দেখিয়ে বলে, খুব সহজেই স্কোর সেভেন প্লাস পাওয়া যায়। তবে এজন্য দিতে হবে অতিরিক্ত অর্থ।

পরে শিক্ষার্থীদের ইনবক্সে এসএমএস পাঠায় ওই চক্রটি ‘ভাই ও বোনেরা ডিসেম্বর ১ তারিখে কে কে পরীক্ষা দেবেন, তারা ইনবক্স করেন যদি প্রশ্ন পত্র পেতে চান।’ এমন লোভনীয় অফারে ইনবক্সে দেয়া হচ্ছে কিছু সার্টিফিকেটের ছবি।

 

3.ফেসবুকে আইইএলটিএস’র প্রশ্নফাঁসে ফাঁদ

আইইএলটিএস এর এক শিক্ষার্থী ডেইলি বাংলাদেশকে বলেন, ফেসবুকে একটি গ্রুপ নানা ভাবে লোভ দেখিয়ে যাচ্ছে আমাদের। অবাক করার বিষয়, তারা কিভাবে বুঝতে পারছে, আমরা বিদেশে পড়তে যেতে আগ্রহী।

তিনি আরো বলেন, অসাধুচক্রটির মুখোশ উন্মোচন করা না গেলে, শিক্ষার্থীদের বড় ধরণের ক্ষতির সম্মুখীন হতে হবে।

 

4.ফেসবুকে আইইএলটিএস’র প্রশ্নফাঁসে ফাঁদ

পরীক্ষার্থী সেজে ডেইলি বাংলাদেশের প্রতিবেদক যোগাযোগের চেষ্টা করলে, সহজে টের পেয়ে যায় অসাধুচক্রটি। অল্প সময়ের ব্যবধানে তাদের প্রোফাইলে থাকা সব তথ্য মুছে ফেলে। প্রশ্নফাঁস চক্রের দেয়া ফোন নম্বরে একাধিকবার যোগাযোগ করেও পাওয়া যায়নি কাউকে।

শিক্ষা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর