ব্রেকিং:
মেডিকেল কলেজে ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে এমবিবিএস প্রথম বর্ষে ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় গাইবান্ধার পাঁচ রাজাকারকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল

মঙ্গলবার   ১৫ অক্টোবর ২০১৯   আশ্বিন ৩০ ১৪২৬   ১৫ সফর ১৪৪১

সর্বশেষ:
সরকারি সফরে আজ কাতার যাচ্ছেন সেনাবাহিনী প্রধান ব্যবসায়ীরা ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ হওয়ার বিষয়টিকে পুঁজি করে দামে কারসাজি করছেন বলে অভিযোগ করেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুন্সী সুন্দরবনে র‍্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে আমিনুর বাহিনীর প্রধান আমিনুরসহ চারজন নিহত হয়েছে ইউক্রেনের বিপক্ষে রোনালদোর পর্তুগালের হার কাতার বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপ ফুটবল বাছাইয়ের ‘ই’ গ্রুপের তৃতীয় ম্যাচে আজ ভারতের মুখোমুখি হচ্ছে বাংলাদেশ।
৫৪

বদলে যাচ্ছে কারিগরি শিক্ষা

প্রকাশিত: ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

কারিগরিতে নতুন পাঠ্যসূচি প্রণয়নে ৪০০ কোটি টাকার পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ড। কারিগরিকে আরো যুগোপযোগী ও কার্যকর করতে বর্তমান শিক্ষাক্রমে ব্যাপক পরিমার্জন ও সংশোধন আনা হবে বলে জানিয়েছেন বোর্ডের একাধিক কর্মকর্তা।

দেশের বাজারে কারিগরি শিক্ষার্থীদের ভালো চাহিদা রয়েছে। আন্তর্জাতিক শ্রমবাজারেও এই চাহিদা বৃদ্ধি করতে চায় কারিগরি শিক্ষা বোর্ড। এ জন্য নতুন করে যে শিক্ষাক্রম প্রণয়ন করা হবে সেখানে বেশ কয়েকটি নতুন ট্রেড যুক্ত হবে। এছাড়াও শিক্ষা পদ্ধতিকে করা হবে আধুনিক ও উন্নত।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক বোর্ড কর্মকর্তা বলেন, বর্তমান পাঠ্যসূচিতে থাকা ডিপ্লোমা ডিগ্রি ও সার্টিফিকেট কোর্সগুলো আরো উন্নত করা হবে। পুরনো অনেকগুলো ট্রেড বদলে নতুন ট্রেড আনা হচ্ছে। পর্যটন, রন্ধন ও সিএনসি বিষয়ক শিল্পে ব্যাপক চাহিদা বাড়ায় নতুন ট্রেডগুলোতে এসব বিষয়ের প্রাধান্য থাকবে।

তিনি আরো বলেন, লেদ মেশিন কোর্স আপডেট করে সিএনসি লেদ করা হবে। বিমানবালার চাকরি যেনো সহজে পাওয়া যায় এ জন্য এই ট্রেডটি যুক্ত করার পরিকল্পনা রয়েছে। বিদেশে প্রথম শ্রেণির হোটেলগুলোতে চাকরি পাওয়া সহজ করতে রান্না ট্রেডটি আধুনিক করা হচ্ছে। হোটেল ম্যানেজমেন্ট, ট্যুরিজমসহ কিছু বিষয় নিয়ে পরিকল্পনা চলছে।

কারিগরি শিক্ষাক্রমে দেশের প্রতিষ্ঠানগুলোতে বর্তমানে ৩৩টি পেশাভিত্তিক শিক্ষাক্রম চালু আছে। এগুলোকে আধুনিক করে বিভিন্ন ট্রেডে ১৬৪টি পেশাভিত্তিক বিষয় পড়ানোর পরিকল্পনা হাতে নেয়া হয়েছে। এ জন্য ৪০০ কোটি টাকা ব্যয় ধরে উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাবনা (ডিপিপি) তৈরি করেছে কারিগরি শিক্ষা বোর্ড।

এ বিষয়ে কারিগরি ও মাদরাসা বিভাগের বিদায়ী সচিব মো. আলমগীর বলেন, উদ্যোগটি অনেক আগেই নেয়া হয়েছিল। এখন এটি বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। পাঠ্যসূচি পরিমার্জন করা হচ্ছে। আন্তর্জাতিক শ্রমবাজারে কোন কোন কাজের চাহিদা বেশি এসব বিবেচনা করে নতুন ট্রেড তৈরি করা হচ্ছে। পরিকল্পনা মতো পাঠ্যসূচি প্রণয়ন করা গেলে বাংলাদেশে কারিগরি শিক্ষা একটি নতুন উচ্চতায় পৌঁছবে।

কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের পরিচালক নুরুল ইসলাম বলেন, কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অধীনে পড়াশোনা করে কেউ যেন বেকার না থাকে আমরা এমন পাঠ্যসূচি প্রণয়ন করছি। নতুন শিক্ষাক্রমে কারিগরি শিক্ষা অনেক জনপ্রিয় হয়ে উঠবে। কারণ কর্মমুখী শিক্ষার প্রতি দেশের মানুষের আগ্রহ সব সময় বেশি। নতুন যে ট্রেডগুলো প্রণয়নের কথা হচ্ছে সেগুলো আন্তর্জাতিক বাজারে বাংলাদেশি কর্মীদের চাহিদা বাড়িয়ে তুলবে।

এদিকে বোর্ড সূত্রে জানা গেছে, কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের নতুন শিক্ষাক্রম প্রণয়ন হলে মানসম্পন্ন শিক্ষকের প্রয়োজন পড়বে। এ জন্য চলতি বছরেই নতুন করে কিছু শিক্ষক নিয়োগও দেয়া হবে। এ ছাড়া উচ্চতর প্রশিক্ষণের জন্য তিন হাজারের মতো শিক্ষককে বিভিন্ন দেশে পাঠানো হবে। আগামী শিক্ষাবর্ষে নতুন পাঠ্যসূচি প্রণয়ন করা হতে পারে।

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –
এই বিভাগের আরো খবর