ব্রেকিং:
বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ই-পাসপোর্ট বিতরণ কর্মসূচির উদ্বেধন করলেন প্রধানমন্ত্রী। ভারতে বিতর্কিত সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) বাতিল করার জন্য করা ১৪৪টি মামলার শুনানি চলছে দেশটির সুপ্রিমকোর্টে।

বৃহস্পতিবার   ২৩ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ৯ ১৪২৬   ২৭ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

১২

বন্ধ হচ্ছে উইন্ডোজ সেভেন

প্রকাশিত: ১২ জানুয়ারি ২০২০  

উইন্ডোজ ৭ ব্যবহারকারীদের দুঃসংবাদ দিয়েছে মাইক্রোসফট। ১৪ জানুয়ারি থেকে পুরনো এ অপারেটিং সিস্টেমে বিনামূল্যে আর কোনো নিরাপত্তা আপডেট আনবে না মাইক্রোসফট। উইন্ডোজ ৭ থেকে সব সাপোর্ট তুলে নিচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি।
সাপোর্ট বন্ধ হলেও পিসিতে উইন্ডোজ ৭ চালিয়ে যেতে পারবেন গ্রাহক। কিন্তু এতে পাওয়া যাবে না কোনো নিরাপত্তা, সফটওয়্যার বা ফিচার আপডেট। 

মাইক্রোসফট জানিয়েছে, এ কারণে পিসির নিরাপত্তা আরো বেশি ঝুঁকিতে থাকবে। তাই স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন আসছে ব্যবহারকারীরা এখন কী করবেন? নিরাপত্তা ঝুঁকি ও ভাইরাস এড়াতে উইন্ডোজ ১০-এ আপগ্রেড করার পরামর্শ দিয়েছে উইন্ডোজ নির্মাতা মার্কিন প্রতিষ্ঠানটি। 
 
উইন্ডোজের জনপ্রিয় সংস্করণটির সমর্থন বন্ধ হওয়ার পর ম্যালওয়্যার আক্রমণের আশঙ্কা দিন দিন বাড়বে। ফলে সাইবার আক্রমণ প্রতিরোধ করা সম্ভব হবে না। ভাইরাস ও অন্যান্য ত্রুটি প্রতিরোধের ব্যবস্থা না থাকায় স্বয়ংক্রিয়ভাবে ক্র্যাশ করবে এবং ব্যবহার অনুপযোগী হয়ে যাবে।কাজেই সমর্থন বন্ধ হওয়ার আগেই উইন্ডোজ ১০ বা সমর্থন রয়েছে, এমন যেকোনো অপারেটিং সিস্টেমে পিসি হালনাগাদ করিয়ে নেয়া বুদ্ধিমানের কাজ হবে।

বিশ্লেষকদের ভাষ্যে, উইন্ডোজ ৭ থেকে ১০-এ হালনাগাদ করলে সবচেয়ে বেশি লাভবান হবেন ব্যবহারকারী। এর প্রধান কারণ উভয় অপারেটিং সিস্টেমই একই প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নকৃত। যে কারণে মূল কাঠামোয় সাদৃশ্য রয়েছে। এর ফলে ব্যবহারকারীর জন্য উইন্ডোজ ১০ চালানো তুলনামূলক সহজ হবে। উইন্ডোজ ১০-এর ইন্টারফেস ও লেআউট উইন্ডোজ ৭-এর মতোই। কেবল প্রোগ্রামগুলো হালনাগাদ করা হয়েছে। যে কারণে ব্যবহারকারী খুব সহজে উইন্ডোজ ১০-এ নিজেকে মানিয়ে নিতে পারবেন।

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –