ব্রেকিং:
হাটবাজার, দোকানপাট ও শপিংমল খোলা রাখার সময় বাড়ানো হয়েছে। সময় এক ঘণ্টা বাড়িয়ে রাত আটটা পর্যন্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। যা এতদিন সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত ছিল। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও সব ধরনের কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখার নির্দেশ করোনার উপসর্গ নিয়ে কুড়িগ্রামে পুলিশ সদস্যের মৃত্যু পানিবন্দি ৩০ লাখ মানুষকে খাদ্য সহায়তা অব্যাহত:ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ৪৮ ঘণ্টা আগেই রংপুর সিটিতে পশুর বর্জ্য অপসারণ গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনাভাইরাসে আরো ৩০ জনের মৃত্যু হয়েছে এবং নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন এক হাজার ৩৫৬ জন।
  • মঙ্গলবার   ০৪ আগস্ট ২০২০ ||

  • শ্রাবণ ১৯ ১৪২৭

  • || ১৪ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

সর্বশেষ:
বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর জনগণ সব সম্ভাবনা হারিয়ে ফেলে- প্রধানমন্ত্রী ঠাকুরগাঁওয়ে রত্নাই সীমান্তের নাগর নদীতে বাংলাদেশির লাশ ভিয়েনায় `বঙ্গবন্ধু স্মৃতি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট` উদ্বোধন দেশবাসী নিরাপদে ঈদ উদযাপন করেছে- স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বাংলাদেশে ধর্ম যার যার উৎসব কিন্তু সবার- তথ্যমন্ত্রী

বিএনপিকে গতানুগতিক রাজনীতি থেকে বেরিয়ে আসার আহবান তথ্যমন্ত্রীর

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১ আগস্ট ২০২০  

বিএনপিকে অনুরোধ জানাব, পবিত্র ঈদের সময় গতানুগতিক রাজনীতি থেকে বেরিয়ে আসার। আমরা সম্মিলিতভাবে দেশ গড়তে চাই। আসুন, সবাই মিলে সম্মিলিতভাবে দেশকে করোনা ভাইরাস থেকে মুক্ত রাখার প্রচেষ্টা করি বলে বিএনপির প্রতি আহবান করেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

শনিবার জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে ঈদুল আজহার নামাজ শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ আহ্বান জানান।  

তিনি বলেন- করোনা ভাইরাস মহামারি সারা দেশে, সারা পৃথিবীতে। এ পরিস্থিতিতে আমরা পবিত্র ঈদুল আজহা উদযাপন করছি। আজকের এ দিনে মহান আল্লাহর কাছে প্রার্থনা, ভাইরাস থেকে বাংলাদেশকে এবং সারা বিশ্বের মানুষকে তিনি যেন মুক্ত করে দেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দিবানিশি কাজ করে দেশকে নেতৃত্ব দিয়ে যাচ্ছেন, বাংলাদেশকে তিনি গত সাড়ে ১১ বছরে একটি নতুন উচ্চতায় উন্নীত করেছেন এবং আল্লাহর কাছে আজকের দিনে প্রার্থনা করছি যেন তার নেতৃত্বে আমরা বাংলাদেশকে স্বপ্নের ঠিকানায় নিয়ে যেতে পারি। সেই স্বপ্নের ঠিকানায় যাতে আমরা বাংলাদেশকে নিয়ে যেতে পারি, এটাই প্রার্থনা, যোগ করেন তথ্যমন্ত্রী।  

তিনি বলেন, আজকে শোকের মাস শুরু। আজ থেকে খুনের রাজনীতি যেন বাংলাদেশ থেকে চিরতরে বন্ধ হয়ে যায়, সেটাই আমাদের প্রত্যাশা। দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়ে তিনি বলেন, ইনশাল্লাহ আগামী ঈদ যেন সম্পূর্ণ করোনামুক্ত পরিবেশে উদযাপন করতে পারি, এটি আমাদের প্রত্যাশা।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ একটি উন্নয়নশীল দেশ। এদেশে আমাদের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা নিশ্চয়ই পৃথিবীর উন্নত দেশগুলোর মতো নয়। আমাদের স্বাস্থ্য উপকরণ তাদের মতো উন্নত না। তা সত্ত্বেও যেভাবে পৃথিবীতে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব দেখা দেওয়ার পর প্রধানমন্ত্রী যে ব্যবস্থাগুলো নিয়েছিলেন মানুষকে করোনা ভাইরাস থেকে মুক্ত রাখার জন্য, যে প্রাণান্তকর প্রচেষ্টা চালিয়েছেন, সেই কারণেই বাংলাদেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ও এতে মৃত্যুর হার পৃথিবীর অন্য দেশের চেয়ে অনেকটা কম। যদি সরকার সঠিকভাবে ব্যবস্থা নিতে না পারত, তাহলে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যুর হার আমাদের দেশে ভারত-পাকিস্তানের চেয়ে কম হতো না। সঠিকভাবে নেতৃত্ব দেওয়ার কারণেই আজকে এটি সম্ভব হয়েছে।

রাজনীতি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর