রোববার   ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ৬ ১৪২৬   ২২ মুহররম ১৪৪১

২৬৫

বিএনপি সাথে জামায়াতের ভুত-নীলফামারী সমাবেশে সংস্কৃতি মন্ত্রী

নিজেস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৮ নভেম্বর ২০১৮  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর এমপি বলেছেন, বিএনপি এবার একাদশ জাতীয় নির্বাচনে আসছে শুধু অংশগ্রহণের জন্য নয়, তারা রীতিমত যুদ্ধ করার প্রস্তুতি নিচ্ছে। বলা যায় তারা প্রীতি ম্যাচ খেলতে আসছে না। উদাহরণ টেনে তিনি বলেন, অংশগ্রহণ করলো আর হেলে গেলো ব্যাস শেষ, এটি কিন্তু নয়।

তারা নির্বাচন বানচালের ষড়যন্ত্রও করছে যার প্রমাণ দিয়েছে কয়েকদিন আগেও। আবারো তারা ২০১৪সালের মত সন্ত্রাস সৃষ্টির নমুনা দেখিয়েছে কারণ তাদের সাথে জামায়াতের ভুত রয়েছে।

গত শনিবার (১৭নভেম্বর) দুপুরে নীলফামারী জেলা শহরের শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের ৪৬তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে জেলা যুবলীগ আয়োজিত যুব সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসববলেন।

তিনি আরো বলেন, নীলফামারীর আপামর মানুষের প্রতি আমি চিরকৃতজ্ঞ। তারা আমাকে যে ভালোবাসা দিয়েছেন, তাদের এই ঋণ আমি শোধ করতে পারবো না। যতগুলো প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম তা পূরণ করে যাচ্ছি, তবে এখোনো শেষ হয়নি। পর্যায়ক্রমে শেষ করা হবে।মাননীয় নেত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা আমাদের সবশেষ একটি মেডিক্যাল কলেজ উপহার দিয়েছেন। তিনি ভাবেন আমাদের নিয়ে। আমাদের ভাগ্যের পরিবর্তন, দেশের পরিবর্তনের জন্য জননেত্রী শেখ হাসিনাকে আবারো ক্ষমতায় বসাতে হবে, এজন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকার আহবান জানিয়ে নুর বলেন আমাদের সর্তক থাকতে হবে। কারন সেই ক্যু-চক্র মহলটি ধর্ম নিয়ে রাজনীতির নামে অপব্যাখা করে জ্বালা পোড়াও নাশকতা চালানোর চেষ্টা করছে। তাদের এক জোট হয়ে প্রতিহত করতে হবে।

সমাবেশে বিশেষ অতিথি হিসেবে জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি দেওয়ান কামাল আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক  এ্যাডভোকেট মমতাজুল হক, সাংগঠনিক সম্পাদক হাফিজুর রশিদ মঞ্জু, পৌর সভাপতি মসফিকুল ইসলাম রিন্টু, সদর উপজেলা সভাপতি আলিম উদ্দিন বসুনিয়া, সাধারণ সম্পাদক  আবুজার রহমান বক্তব্য দেন।

এছাড়া যুবলীগ নেতাদের মধ্যে জেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নুরুজ্জামান বুলেট, সদর উপজেলা সভাপতি রফিকুল ইসলাম, ডিমলা উপজেলা আহবায়ক শৈলেন চন্দ্র রায়, কিশোরীগঞ্জ উপজেলা আহবায়ক আবুল কালাম পাইলট, ডোমার উপজেলা আহবায় আমিনুর রহমান রিমন প্রমুখ।

জেলা যুবলীগের সভাপতি এ্যাডভোকেট রামেন্দ্র  নাথ বর্ধন বাপীর সভাপতিত্বে সমাবেশে স্বাগত বক্তব্য দেন সাধারণ স¤পাদক সাহিদ মাহমুদ। সমাবেশ পরিচালনা করেন জেলা যুবলীগের সাংগঠনিক স¤পাদক আবু সুফিয়ান সবুজ।

সমাবেশের আগে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা শেখ ফজলুল হক মনির প্রতিকৃতিতে পুস্পমাল্য অর্পণ করেন দলীয় নেতা কর্মীরা।

সমাবেশ শেষে মন্ত্রীর নেতৃত্বে বনার্ঢ্য শোভাযাত্রা শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে পুনরায় শহীদ মিনারে ফিরে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে যোগ দেয়।

এদিকে বিকাল ৪টায় সদর উপজেলালক্ষীচাপ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের উদ্দ্যোগে প্রয়াত নেতাদের স্মরনে আয়োজিত স্মরণ সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর। 

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –
এই বিভাগের আরো খবর