ব্রেকিং:
সপ্তাহখানেক নিখোঁজ থাকার পর সন্ধান মিলেছে রংপুরের আলোচিত বক্তা আবু ত্ব-হা মুহাম্মদ আদনানের। আজ শুক্রবার (১৮ জুন) বিকেলে তার খোঁজ পাওয়া যায়।
  • শনিবার   ১৯ জুন ২০২১ ||

  • আষাঢ় ৪ ১৪২৮

  • || ০৭ জ্বিলকদ ১৪৪২

সর্বশেষ:
নতুন প্রজন্মকে অপরাধমূলক কাজ থেকে দূরে রাখতে হবে- শিক্ষামন্ত্রী রংপুরের শতরঞ্জি পেল জিআই পণ্যের স্বীকৃতি রৌমারীতে মাদরাসাছাত্রদের মারধরের অভিযোগে শিক্ষক আটক গ্রাহক সেবা বৃদ্ধি করার নির্দেশ বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রীর

বিশ্বে করোনা সংক্রমণের আবারো নতুন রেকর্ড ভারতে

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৭ মে ২০২১  

ভারতে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছে দুই কোটি ১৪ লাখ ৮৫ হাজার ২৮৫ জন এবং মারা গেছে দুই লাখ ৩৪ হাজার ৭১ জন। 

দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছে চার লাখ ১৪ হাজার ৪৩৩ জন এবং মারা গেছে তিন হাজার ৯২০ জন। 

সে দেশে এর আগের দিন করোনায় আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছে চার লাখ ১২ হাজার ৬১৮ জন এবং মারা গেছে তিন হাজার ৯৮২ জন। 

ভারতে করোনা আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হয়েছে এক কোটি ৭৫ লাখ ৯৭ হাজার ৪১০ জন এবং আক্রান্ত অবস্থায় রয়েছে ৩৬ লাখ ৫৩ হাজার ৮০৪ জন। সে দেশে করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হওয়ার হার ৯৯ শতাংশ এবং মারা যাওয়ার হার এক শতাংশ।

এদিকে সারাবিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছে ১৫ কোটি ৬৬ লাখ ৭৭ হাজার ৬২৩ জন এবং মারা গেছে ৩২ লাখ ৬৯ হাজার ২২০ জন।

বিশ্বে করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হয়েছে ১৩ কোটি ৪০ লাখ ৪০ হাজার ৪৭ জন এবং বর্তমানে আক্রান্ত অবস্থায় রয়েছে এক কোটি ৯৩ লাখ ৬৮ হাজার ৩৫৬ জন।

বিশ্বে করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হওয়ার হার ৯৮ শতাংশ এবং মারা যাওয়ার হার দুই শতাংশ। সারাবিশ্বে বর্তমানে করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে গুরুতর অবস্থায় রয়েছে এক লাখ ৯ হাজার ৩৪৩ জন এবং বাকিদের অবস্থা স্থিতিশীল।

বিশ্বে করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত দেশের তালিকায় সবার ওপরে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। সে দেশে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছে তিন কোটি ৩৩ লাখ ৬৯ হাজার ১৯২ জন এবং মারা গেছে পাঁচ লাখ ৯৪ হাজার ছয় জন।

বিশ্বে করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত দেশের তালিকায় যুক্তরাষ্ট্রের পর যথাক্রমে রয়েছে ভারত, ব্রাজিল, ফ্রান্স, তুরস্ক, রাশিয়া, ব্রিটেন, ইতালি, স্পেন ও জার্মানি।

ভারতের পরের অবস্থানে থাকা ব্রাজিলে মোট আক্রান্ত হয়েছে এক কোটি ৫০ লাখ ৯ হাজার ২৩ জন এবং মারা গেছে চার লাখ ১৭ হাজার ১৭৬ জন।