সোমবার   ১৮ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৩ ১৪২৬   ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

৩৭

বুড়িমারী স্থলবন্দর দিয়ে অনির্দিষ্টকালের জন্য আমদানি-রফতানি বন্ধ

প্রকাশিত: ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

লালমনিরহাটের বুড়িমারী স্থলবন্দর দিয়ে শনিবার (৭ সেপ্টেম্বর) থেকে আমদানি-রফতানি ব্যবসা-বাণিজ্য কার্যক্রম বন্ধ করে দিয়েছে ব্যবসায়ীদের একটি অংশ বলে জানিয়েছেন বুড়িমারী স্থলবন্দর কাস্টস সহকারী কমিশনার আব্দুস সালাম।

বুড়িমারী স্থলবন্দর থেকে পাটগ্রাম উপজেলা অভিমুখে ১০ কিলোমিটার মহাসড়ক সম্প্রসারণ ও সংস্কারকাজ লালমনিরহাট সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের নিযুক্ত ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে শুরু হওয়ায় আমদানি-রফতানি কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে।

লালমনিরহাট সওজ সূত্রে জানা গেছে, বর্তমান ১৮ ফুট প্রস্থ্যের মহাসড়কটির দুইপাশে ৫ ফুট করে মোট ১০ ফুট সম্প্রসারণ করা হবে। ফলে ২৮ ফুট প্রস্থ্য করা হবে রাস্তাটি। এতে প্রতি কিলোমিটার সংস্কার ও সম্প্রসারণ করার জন্য প্রায় ৩ কোটি টাকা ব্যয় ধরা হয়েছে। জাতীয় মহাসড়কের স্ট্যান্ডার্ড কোয়ালিটি নিশ্চিত করা হয়েছে।  

বুড়িমারী স্থলবন্দর ব্যবহারকারী ব্যবসায়ী তারেক ইসলাম বলেন, স্বাভাবিক নিয়মেই বুড়িমারী স্থলবন্দর থেকে পাটগ্রাম অভিমুখে ১০ কিলোমিটার মহাসড়ক ৩০ কোটি টাকা ব্যয়ে সংস্কার ও রাস্তা বৃদ্ধি করার কাজ শুরু হয়ে গেছে। এখন তো আন্দোলন করার কিছু নেই। এজন্যটতজজজ  অহেতুক রাজনৈতিক স্ট্যান্ড নিতেই ব্যবসায়ীদের হুমকি দিয়ে আমদানি - রফতানি কার্যক্রম বন্ধ করে দেওয়া দেশের জন্যই ক্ষতি হয়েছে। চাঁদাবাজ এই সিন্ডিকেটটির বিরুদ্ধে সরকারের উচিত কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া উচিত।

বুড়িমারী স্থলবন্দর সিএন্ডএফ এজেন্ট ও আমদানি-রফতানি কারক ব্যবসায়ী হুমায়ুন কবীর বলেন, একটি প্রভাবশালী সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে ভয়ে কেউ মুখ খুলতে পারছেন না। ফলে ওই সিন্ডিকেট যা খুশি তাই করছে। বুড়িমারী স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি রফতানি কার্যক্রম বন্ধ এরই অংশ। দৌড়াত্ম থামাতে ওই সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে সরকারের ব্যবস্থা গ্রহন করা উচিত।               

কুড়িগ্রাম সওজের নির্বাহী প্রকৌশলী ও লালমনিরহাটের অতিরিক্ত দায়িত্বে থাকা আলী নূরায়েন বলেন, দরপত্র আহবান ও ঠিকাদার নিয়োগ শেষে বুড়িমারী স্থলবন্দর মহাসড়কের ১০ কিলোমিটার সংস্কার ও সম্প্রসারণ কাজ শুরু হয়ে গেছে। মহাসড়কের বর্তমান অবস্থা থেকে দুই ধারে আরো পাঁচ ফুট করে রাস্তা বৃদ্ধি করা হচ্ছে। আগের ১৮ ফুট থেকে আরো ১০ ফুট বেড়ে এখন রাস্তাটির প্রশস্ত করে ২৮ ফুট করা হচ্ছে। পাটগ্রাম উপজেলা চেয়ারম্যানের আহবানে ব্যবসায়ীরা আমদানি-রফতানি কার্যক্রম বন্ধ রেখেছেন বলে শুনেছি। এই বিষয়ে আমাদের কিছু করার নেই।

বুড়িমারী স্থলবন্দর সিএন্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি ও সাবেক সাংসদ হাসানুজ্জামান হাসান বলেন, সিএন্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের কমিটি না থাকায় ব্যবসায়ীরা অজানা আতঙ্কে থাকেন। এজন্য কেউ ঝুঁকতে পড়ার আগেই সতর্কতার জন্য ব্যবসা-বাণিজ্য বন্ধ রাখে। এখন তাই ঘটেছে।   

বুড়িমারী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও আমদানি-রফতানি কারক সমিতির সদস্য সচিব এএসএম নেওয়াজ নিশাত বলেন, 'বুড়িমারী থেকে পাটগ্রাম পর্যন্ত মহাসড়কের বেহাল দশার সংস্কার কাজের দাবীতে আমরা সবাই একমত হয়ে গত সাতদিন আগ আমদানি-রফতানি কার্যক্রম বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছি। সেই আলোকে শনিবার থেকে আমদানি-রফতানি কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। ভারত ও ভুটানের ব্যবসায়ীরাও এতে একমত পোষণ করে আমদানি-রফতানি কার্যক্রম বন্ধ রাখতে সম্মত  হয়েছে।'

মহাসড়কের সংস্কার শুরু হওয়ার পরও কেন আন্দোলন করা হচ্ছে? জানতে চাইলে তিনি আরো বলেন, 'মহাসড়ক সম্প্রসারণের জন্য রাস্তার দুই সাইডে কিছু স্থাপনা সড়ানো দরকার কিন্তু তা এখনো করা হয়নি। ঠিকাদার কাজ শুরু করলে এখনও  তাদের মাঠ-স্থাপনা করা হয়নি। সংস্কার ও মেরামত কাজ দ্রুত করার জন্যই আমরা এই সিদ্ধান্তে অনর আছি। তবে যেহেতু কাজ শুরু হয়েছে, বিষয়টি নিয়ে আমরাও ভাবছি।'

এ বিষয়ে জানতে চাইলে পাটগ্রাম উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রুহুল আমিন বাবুল কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

বুড়িমারী অভিবাসন পুলিশের (ইমিগ্রেশন) ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা খন্দকার মাহমুদ বলেন, আমদানি-রফতানি কার্যক্রম বন্ধ থাকলেও চালু আছ পাসপোর্ট যাত্রী চলাচল কার্যক্রম।

এদিকে স্থানী পর্যায়ে অভ্যন্তরীণ পন্য লোড-আনলোড কার্যক্রম স্বাভাবিক রয়েছে বলে সিএন্ডএফ এজেন্ট ও রফতানি কারক ব্যবসায়ী শামীম হোসেন।

বুড়িমারী স্থলবন্দর কাস্টমসের সহকারী কমিশনার (এসি) আব্দুস সালাম বলেন, কাস্টমস কার্যালয় খোলা রয়েছে। আমদানি-রফতানি বন্ধ থাকার বিষয়ে পাটগ্রাম উপজেলা চেয়ারম্যান ও আমদানি কারক ব্যবসায়ী রুহুল আমিন বাবুল ব্যবসায়ীদের সাথে আলোচনা করে না কী রাস্তা উন্নয়নের জন্য আমদানি-রফতানি কার্যক্রম বন্ধ রেখেছেন বলে জানতে পেরেছি। আমরা ব্যবসায়ীদেরকে পণ্য আমদানি-রফতানি কার্যক্রম স্বাভাবিক রাখার অনুরোধ জানিয়েছি।  তবে কয়দিন আমদানি-রফতানি কার্যক্রম বন্ধ থাকবে, তা তিনি নিশ্চিত করে কিছু বলতে পারেননি কাস্টমসের এই কর্মকর্তা। 

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –