ব্রেকিং:
দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরো ২৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৫ হাজার ৭২৩ জনে। এছাড়া নতুন করে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে আরো ১ হাজার ৫৪৫ জনের দেহে। এখন পর্যন্ত দেশে মোট শনাক্ত হলো ৩ লাখ ৯৩ হাজার ১৩১ জন করোনা রোগী। দিনাজপুরে গত ২৪ ঘণ্টায় ১১ জন ব্যক্তি করোনা ভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৩৫৫৭ জনে। বুধবার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন দিনাজপুরের সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ আব্দুল কুদ্দুছ।
  • বৃহস্পতিবার   ২২ অক্টোবর ২০২০ ||

  • কার্তিক ৬ ১৪২৭

  • || ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

সর্বশেষ:
গ্রামীণ সড়ক রক্ষণাবেক্ষণসহ মজবুত করে তৈরির নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর রংপুরে তিন ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে সাবেকরাই ফের নির্বাচিত নির্বাচনে ব্যর্থতার জন্য বিএনপি নেতাদের পদত্যাগ করা উচিত: কাদের হাতীবান্ধার দুই ইউপিতে নৌকা নিয়ে `বাবার চেয়ারে` বসলেন ছেলে নেতা-কর্মীদের সঙ্গে নিয়মিত সাক্ষাৎ করেও খালেদার গৃহবন্দির অভিযোগ!

মুজিববর্ষ: নীলফামারীতে দুই দিনব্যাপী ফ্রি মেডিক্যাল ক্যাম্প

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১৭ অক্টোবর ২০২০  

নীলফামারীতে মুজিববর্ষ ও করোনা সংকটকালিন দুইদিন ব্যাপী ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়েছে। জেলা শহরের ইবাদত ডায়াগনস্টিক সেন্টারে অনুষ্ঠিত ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পটি শুক্রবার বিকেলে সমাপ্তি ঘটে। ক্যাম্পে জেলার সাত শতাধিক রোগীকে বিনামূল্যে চিকিৎসাসহ ঔষুধ প্রদান করা হয়। 

ইনজিনিয়াস হেল্থ কেয়ার ও সৌহার্দ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ইনসেপ্টা ফার্মাসিউটিক্যালস এবং ইবাদত ডায়াগনস্টিক সেন্টারের সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত ক্যাম্পে রাজধানীর ছয় জন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক অংশ নেন। মেডিক্যাল টিমের নেতৃত্ব দেন বক্ষ ও এ্যাজমা রোগ বিশেষজ্ঞ প্রফেসর ডা. মোহাম্মদ রাশিদুল হাসান। 

আয়োজকরা জানান, দেশের উত্তর বঙ্গ ও দক্ষিণ বঙ্গের ১৪ জেলায় স্বাস্থ্য সেবা প্রদানের লক্ষ্যে মুজিবর্ষ এবং “নিজ বাড়ি নিজ হাসপাতাল, করোনামুক্ত বাংলাদেশ” প্রকল্পের ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পের কাজ শুরু করা হয় গোপালগঞ্জ জেলা থেকে। ওই কার্যক্রমের অংশ হিসেবে বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয় নীলফামারীতে। 

ইনজিনিয়াস হেল্থ কেয়ারের ব্যবস্থাপক গুলজার আহমেদ বলেন, কর্মসূচির আওতায় প্রফেসর ডা. মোহাম্মদ রাশিদুল হাসানের সার্বিক পরিচালনায় প্রতিটি জেলায় দুইদিন ব্যাপী ফ্রি মেডিক্যাল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ওই ক্যাম্পে করোনা উপসর্গের পাশাপাশি সাধারণ যে কোনো রোগের বিনামূল্যে পরামর্শপত্র এবং ওষুধ সরবরাহ করা হচ্ছে। পাশপাশি বিনামুল্যে এক্সরে, সিবিসি, ইসিজি, স্পাইরোমেটরি, আর বি এস পরীক্ষা করা হয়ে রোগীদের। এসব ক্যাম্পে ইনসেপ্টা ফার্মা রোগীর কাছে বিনামূল্যে প্রয়োজনীয় ওষুধ সরবরাহ করছে ।