ব্রেকিং:
দেশে করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ৪১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এই নিয়ে দেশে করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন ১ হাজার ৮৮৮ জন। অপরদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৭ হাজার ৮৭৫টি নমুনা পরীক্ষা করে ভাইরাসটির সংক্রমণ পাওয়া গেছে ৩ হাজার ৭৭৫ জনের শরীরে। এ নিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ১ লাখ ৪৯ হাজার ২৫৮ জন। আজ বুধবার রংপুর মেডিকেল কলেজে ১৮৮টি নমুনা পরীক্ষা করে ৪১ জনের করোনা শনাক্ত হয় । নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ২১.৮০ শতাংশ। নিরাপদ ও কার্যকর ভ্যাকসিন পেয়ে যাব তার নিশ্চয়তা নেই- ফাউচি
  • বৃহস্পতিবার   ০২ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ১৭ ১৪২৭

  • || ১১ জ্বিলকদ ১৪৪১

সর্বশেষ:
রংপুরের পাঁচ নদীর পানি বিপৎসীমার উপরে: প্লাবিত হচ্ছে নতুন এলাকা বিএনপিতে ভাইপন্থীদের নিয়ে বিব্রত হাইকমান্ড শতবর্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ২০ কোটি টাকা খাবারের বিলের খবর ভিত্তিহীন- ঢামেক পরিচালক দেশে জঙ্গিবাদ নিয়ন্ত্রণে- র‌্যাব ডিজি
২১৭

মোবাইল পানিতে পড়ে গেলে যা ভুলেও করবেন না

নীলফামারি বার্তা

প্রকাশিত: ১৩ আগস্ট ২০১৯  

জানেন কি পানিতে পড়া ফোনটি বাঁচাতে পারবেন অনায়াসেই যদি আপনি কিছু জিনিস এড়িয়ে চলেন।

জেনে নিন পানিতে পড়া ফোনে যেসব জিনিস করবেন না-

* পানিতে পড়ে যাওয়া ফোনটি শুকানোর জন্য ভুলেও হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহার করবেন না। অতিরিক্ত গরমে ফোনের ভেতরের যন্ত্রাংশ গলে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

* ভেজা ফোনটি কখনও দেওয়ালে লাগানো চার্জারের পয়েন্টের সঙ্গে যুক্ত করবেন না। এতে তড়িতাহত হওয়ার ভয় রয়েছে।

* ৩.৫ মিমি হেডফোনের সঙ্গেও যুক্ত করবেন না আপনার ভেজা ফোনটি। এ ক্ষেত্রেও তড়িতাহত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

* এই সময় কোন মতেই আপনার ফোনে লাগানো সিম কার্ডটি খুলবেন না। এতে সিম খোলার সময় পানি ঢুকে যেতে পারে।

* ভেজা ফোনটি ব্যবহার করবেন না। সবার আগে সেটিকে সুইচ অফ করুন।

* পানি ঝাড়ার জন্য ফোনটি এদিক-ওদিক অপ্রয়োজনীয় ভাবে নাড়াবেন না। এতে ফোনের ভেতর পানি ঢুকে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

* ফোনের ব্যাটারি খুলে রাখবেন না কোনও মতেই।

* ফোন সার্ভিস সেন্টারে নিয়ে গেলে টেকনিশিয়ানকে সবিস্তারে জানান। আপনার ফোনে কতটা পানি ঢুকতে পারে, ফোনটি কিভাবে পানিতে পড়ে গেল সে বিষয়ে জানাবেন। নয়তো সঠিক তথ্যের অভাবে টেকনিশিয়ান ফোনের আরো অনেক বেশি ক্ষতি করে দিতে পারে। 

* ফোনের পাশে যেসব পাওয়ার বাটন, ভলিউম বাটন রয়েছে সেগুলো অকারণে ঘাঁটাঘাটি করবেন না। এতে পানি ভেতরে চলে যাওয়ার পরিস্থিতি তৈরি হয়।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর