ব্রেকিং:
কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী বাণিজ্যের প্রসার ও রাজস্ব আহরণে শুল্কায়ন ব্যবস্থাপনাকে আরও সহজতর করতে হবে: রংপুরে নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী

সোমবার   ২৭ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ১৩ ১৪২৬   ০১ জমাদিউস সানি ১৪৪১

সর্বশেষ:
করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে ১১ দেশে: বাংলাদেশে সতর্কতা জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির নির্বাচন আগামীকাল। বরগুনার বহুল আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকা মিন্নির জামিন বাতিলের শুনানির দিন পিছিয়ে আগামী ২ ফেব্রুয়ারি নির্ধারণ করেছে আদালত। ওয়াসার আধুনিক প্রযুক্তি নির্ভর শেখ রাসেল পানি শোধনাগার প্রকল্প উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। উপজেলা পর্যায়ে ৩২৯টি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজ স্থাপন একনেক সভায় অনুমোদন হওয়ায় প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে শুভেচ্ছা র‌্যালি করেছে ঠাকুরগাঁওয়ের কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠনের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও কর্মচারীরা। অর্থনৈতিকভাবে অভূতপূর্ব সাফল্য অর্জন করেছে বাংলাদেশ- প্রধানমন্ত্রী। বাণিজ্যের প্রসার ও রাজস্ব আহরণে শুল্কায়ন ব্যবস্থাপনাকে আরও সহজতর করতে হবে: রংপুরে নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী তিনদিন পর দুঃখ প্রকাশ করে দুইজনের মরদেহ ফেরত দিয়েছে বিএসএফ পাকিস্তান সিরিজের শেষ ম্যাচে জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওপর আস্থাশীল ৮৬ শতাংশ মানুষ ভারতের ‘পদ্মভূষণ’ ও ‘পদ্মশ্রী’ পদক পেলেন দুই বাংলাদেশি কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
৩৪২

রংপুর মেডিকেলে বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় হপার পদ্ধতি

নীলফামারি বার্তা

প্রকাশিত: ১৫ নভেম্বর ২০১৮  

রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় কাজে লাগানো হচ্ছে গণপূর্ত প্রকৌশলীদের উদ্ভাবিত হপার যন্ত্র। পরীক্ষামূলক বাস্তবায়নে ভালো ফল পাওয়ায় হাসপাতালে স্থায়ীভাবে এ প্রযুক্তি স্থাপন করতে যাচ্ছে কর্তৃপক্ষ।

১৯৬৭ সালে প্রতিষ্ঠিত রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রতিদিন প্রায় দুই হাজার রোগী ভর্তি থাকে। প্রায় এক টন চিকিৎসা বর্জ্য জমে হাসপাতালে।

সুষ্ঠু বর্জ্য ব্যবস্থাপনা না থাকায় হাসপাতাল চত্বর ও গণশৌচাগারগুলো ময়লা-আবর্জনার ভাগাড়ে পরিণত হয়েছে। পরিচ্ছন্নতা কর্মীরা বর্জ্য খোলা স্থানে রাখে। এতে দুর্গন্ধ সৃষ্টি হয়, বর্ষার সময় আবর্জনা গোটা হাসপাতাল চত্বরে ছড়িয়ে পড়ে। এমন পরিস্থিতিতে চালকলে ব্যবহৃত হপার বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় আশার আলো দেখাচ্ছে।

বর্তমানে সিসিইউ, চক্ষু গাইনি, সার্জারি, ইএনটি, লেবার ওয়ার্ড, সাধারণ সার্জারি ওয়ার্ড, নিউরো সার্জারি এবং পথ্য ওয়ার্ডসহ ১২টি ওয়ার্ডে পরীক্ষামূলক এ হপার স্থাপন করা হয়েছে। হপারের সঙ্গে যুক্ত আছে ১২ ইঞ্চি ব্যাসের পিভিসি পাইপ। হপারে বর্জ্য ফেললে পাইপ দিয়ে নিচে পড়ে যায়। সেখান থেকে শেডে ফেলেন পরিচ্ছন্নতা কর্মীরা।

হাসপাতালের ওয়ার্ড মাস্টার বেলাল হোসেন বলেন, বর্জ্য অপসারণে বিশেষ ব্যবস্থা নেয়ায় যত্রতত্র ময়লা-আবর্জনা পড়ে থাকে না। আগে প্রতিটি ওয়ার্ডে একজন করে পরিচ্ছন্নতা কর্মীকে তিন শিফটে ব্যস্ত থাকতে হতো। এখন তার প্রয়োজন হচ্ছে না।

হপার পদ্ধতির প্রথম ধারণা দেন গণপূর্ত বিভাগের প্রকৌশলীরা। তারা বলেন, বর্জ্য অপসারণে হপার পদ্ধতির সুবিধা পেতে হলে হপারে যুক্ত পাইপ রক্ষণাবেক্ষণ করতে হবে।

হপার পদ্ধতি ভালোভাবে কাজ করলে পুরো হাসপাতাল এর আওতায় আনা হবে বলে জানিয়ে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক অজয় কুমার রায় বলেন, বর্জ্য রাখার শেড নির্মাণ করা হয়েছে। ইনসিনারেটরও নির্মাণ করা হয়েছে। এটি চালু হলে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা অনেক উন্নত হবে।

গণপূর্তের নির্বাহী প্রকৗশলী সাকিউল আলম বলেন, হপার পদ্ধতি রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রথম ব্যবহৃত হচ্ছে। সফলতা পাওয়া গেলে সব ওয়ার্ডে এটি চালু করা হবে।

এই বিভাগের আরো খবর