• শুক্রবার   ০৪ ডিসেম্বর ২০২০ ||

  • অগ্রাহায়ণ ২০ ১৪২৭

  • || ১৮ রবিউস সানি ১৪৪২

সর্বশেষ:
পাকিস্তানকে ক্ষমা করতে পারব না- রাষ্ট্রদূতকে প্রধানমন্ত্রী পাইপলাইনে সরাসরি ভারত থেকে জ্বালানি তেল পাবে বাংলাদেশ স্পেনকে আরো বিনিয়োগের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর ‘সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের জন্য অনুমতি ছাড়া সমাবেশ করতে চায় বিএনপি’ বাংলাদেশের ‘শান্তির সংস্কৃতি’ রেজুলেশন জাতিসংঘে গৃহীত

রংপুর সমিতির উদ্যোগে ডিমলায় বন্যার্তদের খাদ্যসামগ্রী বিতরণ       

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১৮ আগস্ট ২০২০  

ভারী বৃষ্টি ও উজানের ঢলে সৃষ্ট মাসব্যাপী বন্যার কষ্ট লাঘব করার জন্য প্রত্যাশা’৮৬ নামক একটি সংগঠনের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় সোমবার (১৭ আগস্ট) ডিমলার চারটি ইউনিয়নের দুই শতাধিক অসহায় মানুষের মাঝে খাদ্য ও জরুরি সামগ্রী বিতরণ করেছে রংপুর বিভাগ সমিতি, ঢাকা।

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অনলাইন নিউজপোর্টাল জুমবাংলার সম্পাদক ও রংপুর বিভাগ সমিতি, ঢাকার সহ সাংগঠনিক সম্পাদক হাসান মেজর, ডিমলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলাম, ডিমলা উপজেলার সহকারী কমিশনার (এসিল্যান্ড) মীর মো. আল কামাহ তমাল, খগাখড়িবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রবিউল ইসলাম লিথন এবং উপজেলার প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মেজবাহুর রহমান।

এছাড়া, সৈয়দপুর সরকারি কারিগরি স্কুল অ্যান্ড কলেজের প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের সংগঠন প্রত্যাশা’ ৮৬ এর নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ইঞ্জিনিয়ার মোরশেদুল হক, আনিসুর রহমান, টিকেন চন্দ্র রায় মিরু এবং নাসিম উদ্দিন।

রংপুর বিভাগ সমিতি, ঢাকা’র সাধারণ সম্পাদক বাংলাদেশ পুলিশের বিশেষ শাখার ডিআইজি আবু কালাম সিদ্দিক জানান, দেশে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সরকারের দেওয়া কর্মসূচিতে কর্মহীন হয়ে পড়া মানুষের জন্য আঞ্চলিক সংগঠনগুলোর মধ্যে সর্বপ্রথম আমাদের সংগঠন সহায়তার হাত বাড়িয়ে দেয়। রাজধানী ঢাকা ও রংপুর বিভাগের আট জেলার পাঁচ হাজারেরও বেশি মানুষকে খাদ্য ও জরুরি সামগ্রী প্রদান করে।

তিনি বলেন, করোনার মধ্যে বন্যার হানায় আরও অসহায় হয়ে পড়েছে রংপুর বিভাগের নীলফামারী, লালমনিরহাট, কুড়িগ্রাম এবং গাইবান্ধা জেলার ব্রহ্মপুত্র ও তিস্তা অববাহিকার মানুষ। সরকারি সহায়তার পাশাপাশি আমাদের সংগঠনও এসব অসহায় মানুষকে সহায়তার উদ্যোগ নিয়েছে। এরই অংশ হিসেবে আজ নীলফামারীর ডিমলা উপজেলায় বন্যার্তদের খাদ্য সহায়তা দেওয়া হলো।

উপজেলার খগাখড়িবাড়ি বেড়িবাঁধ ও তিস্তা ডিগ্রি কলেজ মাঠে বন্যার্তদের চাল, ডাল, আলু, সয়াবিন তেল, সাবান ও লবণসহ বিভিন্ন খাদ্য ও জরুরি সামগ্রী প্রদান করা হয়।

খাদ্য সামগ্রী পেয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেন স্থানীয়রা। তারা জানান, করোনা এবং বন্যা পরিস্থিতিতে সরকার যেভাবে জনগণের পাশে দাঁড়িয়েছে সেরকম করে বেসরকারি সংস্থাগুলোও জনগণের পাশে দাঁড়ালে জনগণ উপকৃত হবে। এসময় তাঁরা রংপুর সমিতিকে আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানান।