ব্রেকিং:
অন্যরকম সেঞ্চুরির বৃত্ত পূরণ করলো বাংলাদেশ ও জিম্বাবুয়ে পঞ্চগড়ে সাতদিনের ভাষা সৈনিক সুলতান বইমেলা শুরু উত্তর কোরিয়ায় করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরু হলে তা চীনের চেয়েও ভয়াবহ প্রাণঘাতী হতে পারে যথাযথভাবে পতাকা উত্তোলন না করায় রংপুরে দু’টি ব্যাংককে জরিমানা শরীয়তপুরের জাজিরা প্রান্তে পদ্মাসেতুর ২৫তম স্প্যান বসানোয় সেতুর পৌনে চার কিলোমিটার দৃশ্যমান হলো ইংরেজি অ্যাকসেন্টে বাংলা বলা থেকে বিরত থাকতে আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

শনিবার   ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ১০ ১৪২৬   ২৭ জমাদিউস সানি ১৪৪১

সর্বশেষ:
গণমানুষের রাজনীতি করতে ব্যর্থ বিএনপি: হাছান মাহমুদ কোরআনের রেফারেন্স দিয়ে জুয়া বন্ধের পূর্ণাঙ্গ রায় মাদারীপুরের শিবচরে রান্নাঘর থেকে লাগা আগুনে নিঃস্ব ১০টি পরিবার ঘরে বসেই পুরনো পণ্য কেনা-বেচার করতে দেশীয় অনলাইন প্লাটফর্ম ‘সোয়্যাপ’ চালু হয়েছে মেয়র হিসেবে দায়িত্ব নেয়ার পরে সর্বত্রই বাংলা ভাষার ব্যবহার নিশ্চিত করা হবে:তাপস অবশেষে বিটিআরসিকে একহাজার কোটি টাকা দিচ্ছে গ্রামীণফোন
১৭৩

লালমনিরহাটে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা বাতিলের দাবি

নীলফামারি বার্তা

প্রকাশিত: ২৪ জুন ২০১৯  

প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা বাতিলের দাবিতে লালমনিরহাটে জেলা প্রশাসক বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে।
রবিবার (২৩ জুন) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষন পরিষদ লালমনিরহাট জেলা শাখার আয়োজনে এ স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।

এ সময় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে ছাত্ররা সাংবাদিকদের বলেন, গত ২৪ মে ও ৩১ মে তারিখে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা হয়। সেই শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় নানান জালিয়াতি ও প্রশ্ন ফাঁসের কথা দেশবাসী জানতে পেরেছে। এ বিষয়ে নানা তথ্য উপাত্ত্ব বিভিন্ন জাতীয় দৈনিক ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রকাশিত হয়েছে। এই প্রশ্নফাঁস, ডিভাইস জালিয়াতি ও নিয়োগ পরীক্ষার বিশাল দুর্নীতির প্রতিবাদে বাংলাদেশ সাধারন ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ প্রতিবাদী একটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে নিয়োগকারী কর্তৃপক্ষকে পরীক্ষা বাতিলসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার অনুরোধ করে। এরপরেও যে সব জেলায় পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে সে সব জেলায় মানববন্ধন ও প্রতিবাদ কর্মসুচি পালিত হয়। কিন্তু পরিতাপের বিষয় এই যে, শিক্ষক নিয়োগের এই বিশাল দুর্নীতির বিষয়টি প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর শুধু মাত্র চারটি জেলায় তদন্তের নির্দেশ প্রদান করেন।

তারা আরো বলেন, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের এই সিদ্ধান্তকে লালমনিরহাট জেলার চাকুরী প্রার্থীগন ধিক্কার জানায়। কারণ বর্তমান এই তথ্য প্রযুক্তির যুগে যে কোন জায়গা থেকেই প্রশ্ন ফাঁস হোক না কেন, মুহুর্তের মধ্যেই তা সারা দেশের পরীক্ষার্থীদের মাঝে পৌঁছে যাবে।

লালমনিরহাটের চাকুরী প্রার্থীগণ কোনভাবেই ফাঁস হওয়া প্রশ্নের এই পরীক্ষার বৈধতা দিবে না।

তাই লালমনিরহাটের শিক্ষার্থীদের স্বার্থে জেলার শিক্ষা ব্যবস্থা রক্ষার স্বার্থে প্রশ্নফাঁসের এই মহাযজ্ঞকে থামিয়ে দিতে জেলা প্রশাসকের নিকট লালমনিরহাট জেলায় অনুষ্ঠিত প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা বাতিলের কার্যকর ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানান।

এই বিভাগের আরো খবর