• শুক্রবার   ০৪ ডিসেম্বর ২০২০ ||

  • অগ্রাহায়ণ ২০ ১৪২৭

  • || ১৮ রবিউস সানি ১৪৪২

সর্বশেষ:
পাকিস্তানকে ক্ষমা করতে পারব না- রাষ্ট্রদূতকে প্রধানমন্ত্রী পাইপলাইনে সরাসরি ভারত থেকে জ্বালানি তেল পাবে বাংলাদেশ স্পেনকে আরো বিনিয়োগের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর ‘সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের জন্য অনুমতি ছাড়া সমাবেশ করতে চায় বিএনপি’ বাংলাদেশের ‘শান্তির সংস্কৃতি’ রেজুলেশন জাতিসংঘে গৃহীত

শারদীয় দুর্গোৎসব: আজ মহা অষ্টমী

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২৪ অক্টোবর ২০২০  

হিন্দুদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় অনুষ্ঠান হলো শারদীয় দুর্গোৎসব। গত বুধবার বোধনের মাধ্যমে এবারের দুর্গোৎসবের আচার পর্ব শুরু হয়। এ বছর সারাদেশে ৩০ হাজার ২১৩টি মণ্ডপে শারদীয় দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। তবে করোনার কারণে গত বছরের চেয়ে এবার মণ্ডপের সংখ্যা কমেছে।

আজ শনিবার (২৪ অক্টোবর) মহা অষ্টমী। দেবী পূজার ষষ্ঠী থেকে দশমী, এর মধ্যে মহা ধুমধামে পালিত হয় মহা অষ্টমী। এ তিথিতে সন্ধী পূজা, কালী পূজাসহ নারী জাতিকে সম্মান জানিয়ে মায়ের সাকার উপাসনার জন্য কুমারী পূজা করা হয়। তবে এবার দেশে করোনা উপলক্ষে জনসমাগম রোধে কুমারী পূজা হচ্ছে না।

এ বছর দুর্গা এসেছেন দোলায় চড়ে এবং বিদায় নেবেন গজে (হাতি) করে। আগামী সোমবার বিজয়া দশমী পর্যন্ত ঢাকের বাদ্যে মুখরিত থাকবে পূজামণ্ডপগুলো।

শাস্ত্রমতে, যা কিছু দুঃখ-কষ্টের বিষয়, যেমন– বাধাবিঘ্ন, ভয়, দুঃখ-শোক, জ্বালা-যন্ত্রণা এসব থেকে ভক্তকে রক্ষা করেন দেবী দুর্গা। শাস্ত্রকাররা দুর্গা নামের অর্থ করেছেন- দুঃখের দ্বারা যাকে লাভ করা যায় তিনিই দুর্গা। দেবী দুঃখ দিয়ে মানুষের সহ্যক্ষমতা পরীক্ষা করেন। তখন মানুষ অস্থির না হয়ে তাকে ডাকলেই তিনি তার কষ্ট দূর করেন। দুর্গা পূজার সঠিক সময় বসন্তকাল। কিন্তু বিপাকে পড়ে রাজা রামচন্দ্র শরতে দেবীকে অসময়ে জাগিয়ে পূজা করেন। সেই থেকে অকালবোধন হওয়া সত্ত্বেও শরৎকালেই দুর্গা পূজার প্রচলন হয়।