ব্রেকিং:
বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের প্রথম বর্ষ ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ

বুধবার   ২০ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৫ ১৪২৬   ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

২৬

শিরিন আক্তার শিলা হলেন মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ

প্রকাশিত: ২৪ অক্টোবর ২০১৯  

প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত 'মিস ইউনির্ভাস বাংলাদেশ'র খেতাব জিতলেন শিরিন আক্তার শিলা।

বুধবার রাজধানীর বসুন্ধরা কনভেনশন সেন্টারের নবরাত্রী হলে আয়োজিত এক জাঁকজমকপূর্ণ অনুষ্ঠানে শিলার মাথায় ৭৫০টি ডায়মন্ড খচিত প্রায় ২০ লাখ টাকা মূল্যের মুকুট পরিয়ে দেন সাবেক মিস ইউনিভার্স ও বলিউড অভিনেত্রী সুস্মিতা সেন। এ প্রতিযোগিতায় প্রথম রানারআপ হয়েছেন আলিশা ইসলাম এবং দ্বিতীয় রানারআপ হয়েছেন জেসিয়া ইসলাম।

প্রথম ‘মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ’ হওয়ার পর আবেগতাড়িত হয়ে শিরিন আক্তার শিলা বলেন, এটা আমার জন্য দারুণ আনন্দের মুহুর্ত। কতটা আনন্দের সেটা ভাষায় প্রকাশ করতে পারবো না। আজ থেকে আমিই বাংলাদেশ। আমার বাবা একজন সৈনিক (বিজিবি)। বাবার মতো আমিও দেশের জন্য কাজ করবো। সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন যেন বিদেশেও দেশের মুখ উজ্জল করতে পারি।

এই আয়োজনের বিশেষ আকর্ষণ ও অতিথি বিচারক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সুস্মিতা সেন। মূলত এ আয়োজনের জন্যই বুধবার দুপুরে ঢাকায় আসেন তিনি। সুন্দরী প্রতিযোগিতার এই আসরে সুস্মিতা যোগ দেন রাত সোয়া ৯টার দিকে। মঞ্চে এসে তিনি বলেন, হ্যালো বাংলাদেশ। সুন্দর সব দেশেই সুন্দর। বাংলাদেশ এই সুন্দরকে নিয়ে এবার বিশ্বমঞ্চে প্রতিনিধিত্ব করছে। মিস ইউনিভার্সের প্ল্যাটফর্ম-এর মাধ্যমে আমাকে সারা বিশ্ব চিনেছে। এ ধরণের আন্তর্জাতিকমানের আয়োজনে অংশ নেয়ার জন্য ভাষা ব্যাপার না, আত্মবিশ্বাসটাই আসল। যিনি বাংলাদেশ থেকে বিশ্ব আসরে যাবেন তার জন্য শুভ কামনা থাকলো।

‘মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ’-এ মূল বিচারক হিসেবে ছিলেন সংগীত তারকা ও অভিনেতা তাহসান খান, রূপ বিশেষজ্ঞ কানিজ আলমাস খান, হেরিটেজ ক্র্যাফটসের তুতলি রহমান, রুবাবা দৌলা ও ফারজানা চৌধুরী, সাবেক ক্রিকেটার আতাহার আলী খান।

‘মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ’-এর চেয়ারম্যান রিজওয়ান বিন ফারুক জানান, দক্ষিণ কোরিয়ায় আগামী ১৯ ডিসেম্বর বসবে ‘মিস ইউনিভার্স’ প্রতিযোগিতার ৬৮তম আসর। ‘মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ’- প্রতিযোগিতার চ্যাম্পিয়ন হয়ে শিলা বাংলাদেশের হয়ে লাল সবুজের প্রতিনিধিত্ব করবেন।

এর আগে সেপ্টেম্বর মাসের মাঝামাঝি সময়ে শুরু হওয়া ‘মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতায় সারাদেশ থেকে কয়েক হাজার তরুণী আবেদন করেন। সেখান থেকে বিভিন্ন ধাপে যাচাই-বাছাই করে গ্র্যান্ড ফিনালেতে রাখা হয় সেরা ১০ প্রতিযোগী। তারা হলেন- তামান্না ইসরাত সোহানী, মারিয়া মুমু, সানোবার তাইফা, আফলা আম্রান, শিরিন আক্তার শিলা, জেসিয়া ইসলাম, স্মৃতি আক্তার, ইরানা ইশরাত, আলিশা ইসলাম, তসিবা আনিতা ইসলাম।

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –