ব্রেকিং:
রংপুর স্টেশন থেকে কোনো ট্রেন চলবে না। রোববার বিকেলে এ তথ্য নিশ্চিত করেন রংপুর রেলওয়ে স্টেশনের মাস্টার আলমগীর হোসেন। রংপুরের ডেডিকেটেড করোনা আইসোলেশন হাসপাতাল থেকে সুস্থ হয়ে আরও তিনজন বাড়ি ফিরলেন। রোববার (৩১ মে) দুপুরে করোনামুক্ত হওয়ায় ওই তিনজনকে ছাড়পত্র দেয়া হয়। রংপুর-ঢাকা মহাসড়কে ১ জুন (সোমবার) থেকে দূরপাল্লার বাস চলাচল শুরু হবে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরো দুই হাজার ৫৪৫ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। এ নিয়ে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে ৪৭ হাজার ১৫৩ জনে দাঁড়িয়েছে। একই সময়ে মারা গেছেন আরো ৪০ জন। এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ৬৫০ জন। একদিনের আক্রান্ত ও মৃত্যুর পরিসংখ্যানে এটিই সর্বোচ্চ। ট্রেনের টিকিট শুধু অনলাইনেই বিক্রি হবে বলে জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন। বসলো পদ্মাসেতুর ৩০তম স্প্যান: দৃশ্যমান সাড়ে ৪ কিলোমিটার গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় ছয়জন নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে দুইজন স্বাস্থ্যকর্মী, তিনজন গার্মেন্টসকর্মী ও একজন মাওলানা।
  • রোববার   ৩১ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৭ ১৪২৭

  • || ০৮ শাওয়াল ১৪৪১

সর্বশেষ:
করোনা রোধে জনপ্রতিনিধিদের আরো সম্পৃক্তের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর স্বাস্থ্যবিধি মেনে সব অফিস খুলছে আজ করোনায় স্বাস্থ্যবিধি মানাতে চলবে মোবাইল কোর্ট পঙ্গপালের কারণে বিপর্যয়ের মুখে ভারত-পাকিস্তান দেশেই করোনাভাইরাসের পূর্ণাঙ্গ জিনোম সিকোয়েন্সিং সম্পন্ন আদিতমারীতে সব করোনা রোগী সুস্থ হয়েছেন
১০৮৯

সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে: প্রধানমন্ত্রী

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২৭ এপ্রিল ২০২০  

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, এখন স্কুল আমরা খুলব না, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান একটাও খুলব না। সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সব ধরনের স্কুল কলেজ বন্ধ থাকবে। যদি তখন পর্যন্ত করোনাভাইরাস অব্যাহত থাকে। আমরা কোন ধরনের ঝুঁকি নেব না। যখন করোনাভাইরাস থামবে তখন খুলব। বেশি জনসমাগম যেন না হয়।   


সোমবার (২৭ এপ্রিল) গণভবনে ভিডিও কনফারেন্সে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। দেশের করোনাভাইরাস পরিস্থিতি নিয়ে রাজশাহী বিভাগের জেলা প্রশাসক ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে এ মতবিনিময় করেন তিনি।

তিনি বলেন, করোনায় উন্নত দেশ অনুন্নত দেশ যাই হোক সবার একই অবস্থা। তারপরও আমরা ব্যবস্থা নিচ্ছি। স্বাস্থ্যকর্মী, সেনাবাহিনী, আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী প্রাণপণ চেষ্টা করে যাচ্ছে। দেশবাসী নির্দেশনা মেনে ঘরে থাকছে। আমরা সবার ঘরে খাবার পৌঁছে দিতে চেষ্টা করছি। ১০ টাকার চাল সবাইকে দেওয়ার চেষ্টা করছি। রফতানির কারণে সব বন্ধ, এটা অর্থনৈতিক বড় ধাক্কা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, করোনাভাইরাস যথাযথভাবে পদক্ষেপ নিচ্ছি। প্রতিদিন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের টেস্ট করছে। যা হচ্ছে তাই বুলেটিন আকারে জানাচ্ছে। এখন পর্যন্ত ৫৪১৬ জন আক্রান্ত হয়েছেন, মারা গেছেন ১৪৫ জন। বিশ্বের এর থেকে আরও বেশি লোক মারা গেছেন। যা যা করা দরকার তা করে যাচ্ছি। ৩০০৯ চিকিৎসক অনলাইনে সেবা দিয়ে যাচ্ছি। খাদ্য সহায়তা দিয়ে যাচ্ছি। আমরা মানুষকে সুরক্ষা রাখার জন্য কাজ করে যাচ্ছি।

জাতীয় বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর