সোমবার   ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯   পৌষ ১ ১৪২৬   ১৮ রবিউস সানি ১৪৪১

২৬

সৈয়দপুরের উপজেলা চেয়ারম্যান ও তার ছোট ভাইকে দুদকে তলব

প্রকাশিত: ১৪ নভেম্বর ২০১৯  

নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোখছেদুল মোমিন ও তার ছোট ভাই সৈয়দপুরের রেলওয়ে জায়গায় প্রতিষ্ঠিত সামশুল মেমোরিয়াল একাডেমির অধ্যক্ষ মোবিন সরকার কে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) ঢাকা কার্যালয়ে তলব করা হয়েছে। তাদের ১৪ নভেম্বর/২০১৯ যথাসময়ে ঢাকার দুদক কার্যালয়ে উপস্থিত হতে বলা হয় এক পত্রের মাধ্যমে। 

বর্তমান সৈয়দপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোখছেদুল মোমিন সৈয়দপুর রেল কারখানার সাবেক শ্রমিক ছিলেন। তিনি মিলরাইট শপের (টিকেট নং-৬০১৬) মিস্ত্রী পদে চাকুরী করা কালিন ২০১৪ সালে সৈয়দপুরে তার বাড়ির সামনে রেলওয়ের ৭৯ শতক জমি অবৈধভাবে দখলে রাখেন। এ জন্য তৎকালীন রেলের বিভাগীয় ভূসম্পদ কর্মকর্তা মোস্তাক আহমেদ ল্যান্ড/পাকশী/উচ্ছেদ/সৈয়দপুর/১৪/৬১০ স্বারকে মোকছেদুল মোমিনকে অবৈধ দখল ছেড়ে দিয়ে রেলের কানুনগো পার্বতীপুরকে উক্ত জমি বুঝে নিতে নির্দেশ প্রদান করেছিল। কিন্তু তিনি তা বুঝিয়ে দেননি। পরবর্তিতে ২০১৫ সালে তিনি স্বেচ্ছায় অবসরে গিয়ে আওয়ামী লীগের হয়ে উপজেলা চেয়ারম্যানের পদে নির্বাচন করে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। অভিযোগ করা হয় দলীয় প্রভাব খাটিয়ে তিনি রেলওয়ে ওয়ার্কশপের কেপিআই জমি দখল করে নিজ বাবার নামে(সামশুল হক মেমোরিয়াল একাডেমি) স্কুল প্রতিষ্ঠা করে তার ভাই মোবিন সরকার হন অধ্যক্ষ।

বর্তমানে সৈয়দপুরে রেলওয়ের অবৈধ জমি দখলমুক্ত করার জন্য রেলওয়ে যখন নোটিশ প্রদানসহ অফিসিয়াল কার্যক্রম শুরু করে ঠিক সেই সময় অধিকার নামে একটি সংগঠন প্রতিষ্ঠা করে রেলের জমি অবৈধভাবে দখলকারীদের সঙ্গে নিয়ে রেলওয়ের উচ্ছেদ কার্যক্রম বন্ধের দাবীতে আন্দোলন শুরু করেন। উক্ত নেতা এবং তার ভাইয়ের বিরুদ্ধে দূদক কর্তৃক  প্রধান কার্যালয় হতে রেলওয়ের জমি দখল বিষয়ে সকল কাগজপত্রসহ দূদক কার্যালয়ে স্বশরীরে হাজির হবার নির্দেশ দেন। এটিই এখন সৈয়দপুরে টক অব দা টাউনে পরিণত হয়েছে। 

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –
এই বিভাগের আরো খবর