ব্রেকিং:
স্বাস্থ্যবিধি ও সরকারি নির্দেশনা মেনে রংপুর জেলায় প্রায় ছয় হাজার মসজিদে ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায় করবেন মুসল্লিরা। ঈদের দিন সকাল সাড়ে ৮টা থেকে ১০টা পর্যন্ত মসজিদে মসজিদে এসব ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে। ইসলামিক ফাউন্ডেশন রংপুর বিভাগীয় কার্যালয়ের পরিচালক মহিউদ্দিন চৌধুরী এ তথ্য নিশ্চিত করেন। ঈদের সকালে লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলায় ১০ মিনিটের ঝড়ের তাণ্ডবে লন্ডভন্ড হয়ে গেছে অর্ধশত ঘরবাড়ি। আহত হয়েছেন অন্তত পাঁচজন। পবিত্র ঈদুল ফিতর আজ
  • সোমবার   ২৫ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১১ ১৪২৭

  • || ০২ শাওয়াল ১৪৪১

সর্বশেষ:
আজ মুসলিমদের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর। লালমনিরহাটে ঈদের সকালে ১০ মিনিটের ঝড়ে লন্ডভন্ড ঘরবাড়ি রংপুরে ছয় হাজার মসজিদে ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত ঘরে বসে পরিবারের সঙ্গে ঈদের আনন্দ উপভোগ করুন: প্রধানমন্ত্রী জাতীয় কবি কাজী নজরুলের জন্মজয়ন্তী আজ
১৩৭

সৈয়দপুরে ঢুলির গ্রামে শারদীয় উৎসব মাতাল নারীরা

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৭ অক্টোবর ২০১৯  

নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলার বাঙালিপুর ইউনিয়নের ঢুলি  গ্রামে এখন পুরুষ নেই। আছে তাদের পরিবারের নারী ও শিশু সদস্যরা। গ্রামের সকল ঢুলি এখন চলমান শারদীয় দুর্গাপুজায়  বিভিন্ন স্থানের মণ্ডপে চ্যুক্তিভিক্তিক ঢোল বাজাতে অবস্থান করছে। তাই বলে নিজ গ্রামে শারদীয় হবেনা তা হতে পারে? গত দীর্ঘ বছর গুলোর মতো এবারো গ্রামটিতে শারদীয় দুর্গাপূজার সব আয়োজনে অগ্রনীভুমিকা পালন করছে পরিবারগুলোর  নারীরাই। গ্রামটি এখন ঢুলির গ্রাম পরিচিতি পেলেও এক সময় গ্রামটির নাম ছিল ভাতার মাড়ির পাথারের হাড়িপাড়া। 

সরেজমিনে দেখা যায় গ্রামের নারীরা এবারও দুর্গাপূজার আয়োজন করেছেন। নিজেরাই গড়েছেন প্রতিমা। নিজেরাই পুরোহিত, ঢুলি সবাই নারী। সুন্দর সাজসজ্জায় গড়ে তোলা হয়েছে মা দুর্গার প্রতিমা। রবিবার  ছিল মহাঅষ্টমীর পূজা।  দেখা যায়, নারীরাই মন্ডপে ঢাক বাজাচ্ছেন। কেউ কেউ অঞ্জলি আরতি দিচ্ছেন। নারীদের দুর্গাপুজার এমন আয়োজনে সেখানে বিভিন্নস্থান থেকে আগত দর্শনার্থীদের ভীড়ও বেড়েছে

ওই গ্রামের পূজা উদ্যাপন কমিটির সভাপতি দীপালি রানী। তিনি বলেন আমাদের গামের ঢুলি পরিবার ২৫টি। পুরুষ কর্তারা ঢোল বাজাতে  সকলে  এখন বাহিরে।

দুর্গা মণ্ডপের সাধারণ সম্পাদক গীতা রানী বলেন, আমাদের স্বামীরা পেশায় ঢুলি। তাঁরা ঢাক বাজানোর জন্য এ সময়টায় নানা জায়গা থেকে আমন্ত্রণ পান। ফলে এ গ্রামের নারীদেরই পূজার সব আয়োজন করতে হয়। 

গ্রামটির পূজামণ্ডপে আনসার ভিডিপির কয়েকজন সদস্যকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষার দায়িত্ব পালন করতে দেখা গেছে। তাঁরাও নারী। স্বেচ্ছাসেবকের কাজও নারীরা করেন।

এ ব্যাপারে সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) পরিমল কুমার সরকার বলেন, প্রশাসন সব ধরনের সহযোগিতা করছে তাঁদের এই উৎসব আয়োজনে।  

নীলফামারী বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর