ব্রেকিং:
দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরো ২৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৫ হাজার ৭২৩ জনে। এছাড়া নতুন করে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে আরো ১ হাজার ৫৪৫ জনের দেহে। এখন পর্যন্ত দেশে মোট শনাক্ত হলো ৩ লাখ ৯৩ হাজার ১৩১ জন করোনা রোগী। দিনাজপুরে গত ২৪ ঘণ্টায় ১১ জন ব্যক্তি করোনা ভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৩৫৫৭ জনে। বুধবার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন দিনাজপুরের সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ আব্দুল কুদ্দুছ।
  • বৃহস্পতিবার   ২২ অক্টোবর ২০২০ ||

  • কার্তিক ৬ ১৪২৭

  • || ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

সর্বশেষ:
গ্রামীণ সড়ক রক্ষণাবেক্ষণসহ মজবুত করে তৈরির নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর রংপুরে তিন ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে সাবেকরাই ফের নির্বাচিত নির্বাচনে ব্যর্থতার জন্য বিএনপি নেতাদের পদত্যাগ করা উচিত: কাদের হাতীবান্ধার দুই ইউপিতে নৌকা নিয়ে `বাবার চেয়ারে` বসলেন ছেলে নেতা-কর্মীদের সঙ্গে নিয়মিত সাক্ষাৎ করেও খালেদার গৃহবন্দির অভিযোগ!

সৈয়দপুর বিমানবন্দর সড়কে ৭ বীরশ্রেষ্ঠদের নামে চত্বর উদ্বোধন

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১২ অক্টোবর ২০২০  

যাদের অকুতভয় যুদ্ধে কারণে আমরা একটি স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ পেয়েছি সেই সাত বীরশ্রেষ্ঠদের নামে নীলফামারীর সৈয়দপুর বিমাবন্দর সড়কে স্থাপন করা হলো বীরশ্রেষ্ঠ চত্বর।

সোমবার(১২ অক্টোবর/২০২০) বিকাল ৪টায় এটির আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্ধোধন করেন  সৈয়দপুর পৌর মেয়র অধ্যক্ষ আমজাদ হোসেন সরকার। 
এ সময় উপস্থিত ছিলেন, সৈয়দপুর প্যানেল মেয়র-২ শাহিন আক্তার শাহিন, প্যানেল মেয়র-৩ জাহানারা পারভীন, কাউন্সিলর আল মামুন সরকার, গোলাম মোস্তফা, সৈয়দ মঞ্জুর ইলাহী, মহিলা কাউন্সিলর মিনারা বেগম, সাবিহা সুলতানা ও স্থানীয় গণমান্য ব্যাক্তিবর্গসহ সাংবাদিকগণ। 
উদ্বোধনকালে পৌরসভার মেয়র বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধ আমাদের গৌরবের ইতিহাস। এ ইতিহাস তৈরিতে যারা সবচেয়ে বেশি অবদান রেখেছেন তাদের মধ্যে অন্যতম হলেন শহীদ মুক্তিযোদ্ধারা। এই মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে যারা সম্মুখ সমরে অংশগ্রহণ করে বীরত্বের প্রমাণ রেখেছেন। এমন ৭ তারা হলেন বীরশ্রেষ্ঠ নুর মোহাম্মদ শেখ, মতিউর রহমান, মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর, মুন্সি আব্দুর রউফ, মোস্তফা কামাল, মোহাম্মদ রুহুল আমিন ও মোহাম্মদ হামিদুর রহমান। সেই বীরদের স্মৃতিকে ধরে রাখতে এবং আগামী প্রজন্মের কাছে তাদের বীরত্বের ইতিহাস তুলে ধরতে “বীরশ্রেষ্ঠ চত্বর” স্থাপন করা হয় পৌর পরিষদের পক্ষ থেকে। তিনি বলেন, এভাবে দেশের ইতিহাস ও ঐতিহ্যকে স্মরণীয় করে রাখতে আমাদের প্রয়াস অব্যাহত থাকবে।

এ ক্ষেত্রে তিনি সংবাদকর্মীসহ পৌরবাসীর সহযোগিতা প্রত্যাশা করেন।