ব্রেকিং:
দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ কমাতে চলমান ‘কঠোর লকডাউনের’ মেয়াদ আরো এক সপ্তাহ বাড়ানো হয়েছে। ভাঙচুরের মামলায় হেফাজত নেতা মামুনুল হকের সাত দিনের রিমান্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত।
  • সোমবার   ১৯ এপ্রিল ২০২১ ||

  • বৈশাখ ৬ ১৪২৮

  • || ০৬ রমজান ১৪৪২

সর্বশেষ:
চলমান `কঠোর লকডাউন` আরো এক সপ্তাহ বাড়ল পুলিশের উদ্যোগে ৫ টাকায় ইফতার যাত্রা শুরু ১১০০ শয্যার করোনা হাসপাতালের সারাদেশে চার কার্যদিবসে ভার্চুয়ালি ৯০৪৬ জনের জামিন আজ ৬ষ্ঠ দিনের মতো সারাদেশে চলছে সর্বাত্মক লকডাউন

হাতীবান্ধায় মুক্তিযোদ্ধা বাবার পেনশন-ভাতা তুলতে সৎ মাকে অস্বীকার 

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৭ এপ্রিল ২০২১  

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় বীর মুক্তিযোদ্ধা বাবার সম্মানী ভাতা ও অবসরের পেনশন তুলতে সৎকে অস্বীকার করার অভিযোগ উঠেছে বিমাতা ভাইয়ের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় ইউএনওর কাছে অভিযোগ করেছেন তার সৎ বোন নজিমা বেগম। অভিযুক্ত আজিজুল ইসলাম হাতীবান্ধার সিঙ্গিমারী গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল হকের ছেলে।

জানা গেছে, বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরল হক ভূমি অফিসের কর্মচারী ছিলেন। তার মৃত্যুর পর মুক্তিযোদ্ধা সম্মানী ভাতা, চাকরির পেনশন ও জমি বন্টন করতে ইউনিয়ন পরিষদ থেকে ওয়ারিশ সনদ গ্রহন করেন ছেলে আজিজুল ইসলাম। সনদে সৎ বোন নজিমা বেগমকে নিজের বোন উল্লেখ করলেও সৎ মা মনজিরন নেছাকে অস্বীকার করেন তিনি। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে তার বিরুদ্ধে হাতীবান্ধার ইউএনও সামিউল আমিনের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন সৎ বোন নজিমা বেগম।

অভিযুক্ত আজিজুল ইসলাম বলেন, মনজিরন নেছাকে আমার বাবা বিয়েই করেননি। নজিমাকে নিজের বোন হিসেবে স্বীকার করেছি মানবিক কারণে।

সিঙ্গিমারী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মনোয়ার হোসেন দুলু বলেন, আজিজুল ইসলাম তথ্য গোপন করে আমার কাছ থেকে ওয়ারিশ সনদ নিয়েছে। পরে আমি সংশোধন করে আবারো ওয়ারিশ সনদ দিয়েছি।

হাতীবান্ধার ইউএনও সামিউল আমিন বলেন, বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।