ব্রেকিং:
দেশে করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ৪১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এই নিয়ে দেশে করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন ১ হাজার ৮৮৮ জন। অপরদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৭ হাজার ৮৭৫টি নমুনা পরীক্ষা করে ভাইরাসটির সংক্রমণ পাওয়া গেছে ৩ হাজার ৭৭৫ জনের শরীরে। এ নিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ১ লাখ ৪৯ হাজার ২৫৮ জন। আজ বুধবার রংপুর মেডিকেল কলেজে ১৮৮টি নমুনা পরীক্ষা করে ৪১ জনের করোনা শনাক্ত হয় । নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ২১.৮০ শতাংশ। নিরাপদ ও কার্যকর ভ্যাকসিন পেয়ে যাব তার নিশ্চয়তা নেই- ফাউচি
  • বৃহস্পতিবার   ০২ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ১৭ ১৪২৭

  • || ১১ জ্বিলকদ ১৪৪১

সর্বশেষ:
রংপুরের পাঁচ নদীর পানি বিপৎসীমার উপরে: প্লাবিত হচ্ছে নতুন এলাকা বিএনপিতে ভাইপন্থীদের নিয়ে বিব্রত হাইকমান্ড শতবর্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ২০ কোটি টাকা খাবারের বিলের খবর ভিত্তিহীন- ঢামেক পরিচালক দেশে জঙ্গিবাদ নিয়ন্ত্রণে- র‌্যাব ডিজি
১৯৬

১৮ জন যাত্রী নিয়ে পদ্মায় স্পিডবোট ডুবে গেছে

নীলফামারি বার্তা

প্রকাশিত: ১৩ আগস্ট ২০১৯  

কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া নৌরুটের লৌহজং টার্নিং পয়েন্টে ১৮ যাত্রী নিয়ে একটি স্পিডবোট ডুবির ঘটনা ঘটেছে। এতে অনেকে নিখোঁজ রয়েছে।

তীব্র স্রোতের কারণে আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর নৌরুটটিতে বন্ধ রাখা হয়েছে লঞ্চ ও স্পিডবোট চলাচল। তবে সীমিত আকারে ফেরি চলাচল করছে।

বিআইডব্লিউটিসির কাঁঠালবাড়ী ঘাট সূত্র জানায়, সকালে শিমুলিয়া ঘাট থেকে ১৬জন যাত্রী নিয়ে একটি স্পিডবোট কাঁঠালবাড়ী ঘাটের উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসে। স্পিডবোটটি মাঝ পদ্মায় এলে ঢেউয়ের ধাক্কায় উল্টে যায়। এ সময় স্পিডবোটের ১৮জন যাত্রী পানিতে ডুবে যান। ঘাট থেকে অন্য আরেকটি স্পিডবোট গিয়ে উদ্ধার কার্যক্রম চালায়।

বিআইডব্লিউটিসির কাঁঠালবাড়ী ঘাটের ট্রাফিক ইন্সপেক্টর আক্তার হোসেন বলেন, সকাল সাড়ে ৮টার দিকে শিমুলিয়া থেকে আসা স্পিডবোটটি মাঝ পদ্মায় ডুবে যায়। এতে স্পিডবোটে থাকা এক যাত্রী নিখোঁজ রয়েছেন বলে জানতে পেরেছি। বৈরী আবহাওয়ার কারণে সকাল পৌনে ৯টা থেকে লঞ্চ ও স্পিডবোট চলাচল বন্ধ রয়েছে।

তবে অন্যান্য একাধিক সূত্র থেকে জানা গেছে, এখনো বেশ কয়েকজন যাত্রী নিখোঁজ রয়েছেন।