ব্রেকিং:
সপ্তাহখানেক নিখোঁজ থাকার পর সন্ধান মিলেছে রংপুরের আলোচিত বক্তা আবু ত্ব-হা মুহাম্মদ আদনানের। আজ শুক্রবার (১৮ জুন) বিকেলে তার খোঁজ পাওয়া যায়।
  • শনিবার   ১৯ জুন ২০২১ ||

  • আষাঢ় ৬ ১৪২৮

  • || ০৮ জ্বিলকদ ১৪৪২

সর্বশেষ:
নতুন প্রজন্মকে অপরাধমূলক কাজ থেকে দূরে রাখতে হবে- শিক্ষামন্ত্রী রংপুরের শতরঞ্জি পেল জিআই পণ্যের স্বীকৃতি রৌমারীতে মাদরাসাছাত্রদের মারধরের অভিযোগে শিক্ষক আটক গ্রাহক সেবা বৃদ্ধি করার নির্দেশ বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রীর

৬ মাস বন্ধ থাকার পর হিলি দিয়ে বাড়ছে পেঁয়াজের আমদানি

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১০ জুন ২০২১  

দীর্ঘ ৬ মাস বন্ধ থাকার পর আইপি অনুমোদন পাওয়ায় গত ৩ জুন থেকে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে আবারও ভারত থেকে শুরু হয়েছে পেঁয়াজের আমদানি। প্রথমদিকে আমদানি কিছুটা কম হলেও এখন তা প্রতিনিয়তই বাড়ছে। আর এরই প্রভাব পড়ছে পেঁয়াজের পাইকারি বাজারে।

একদিনের ব্যবধানের প্রতিকেজি পেঁয়াজের দাম কমেছে ৩ টাকা আর সপ্তাহের ব্যবধানে কমেছে ৫ থেকে ৬ টাকা। দাম কমায় অনেকটাই স্বস্তি ফিরতে শুরু করেছে পাইকারদের মাঝে।

হিলি স্থলবন্দরের পেঁয়াজ ব্যবসায়ী রবিউল ইসলাম বলেন, আইপি অনুমোদন পাবার পর থেকে আমরা ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি করছি। প্রথমদিকে আমদানি কম হলেও এখন তা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। আমদানি বাড়ার প্রভাবে পাইকারি বাজারে কমতে শুরু করেছে পেঁয়াজের দাম। আমদানি শুরুর দিকে প্রতি কেজি ৩৬ টাকা পেঁয়াজ বিক্রি হলেও বর্তমানে এসব পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ২৮ থেকে ৩০ টাকা কেজি দরে। আমদানি বাড়লে পেঁয়াজের দাম আরও কমে আসবে বলে জানান তিনি।

হিলি স্থলবন্দরে পেঁয়াজ কিনতে আসা পাইকার সাদ্দাম জানান, পেঁয়াজের আমদানি যখন বন্ধ ছিল তখন দাম বেশি ছিল। এখন আমদানি শুরু হয়েছে দামও কমে আসছে। দাম কম হলে আমাদের ব্যবসা করতে অনেক সুবিধা হয়।
হিলি কাস্টমসের তথ্যমতে, পেঁয়াজ আমদানি শুরু থেকে আজ বৃহস্পতিবার পর্যন্ত  ভারতীয় ১১৩টি ট্রাকে ৩ হাজার মেট্রিক টন পেঁয়াজ আমদানি হয়েছে এ বন্দর দিয়ে।