ব্রেকিং:
হাটবাজার, দোকানপাট ও শপিংমল খোলা রাখার সময় বাড়ানো হয়েছে। সময় এক ঘণ্টা বাড়িয়ে রাত আটটা পর্যন্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। যা এতদিন সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত ছিল। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও সব ধরনের কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখার নির্দেশ করোনার উপসর্গ নিয়ে কুড়িগ্রামে পুলিশ সদস্যের মৃত্যু পানিবন্দি ৩০ লাখ মানুষকে খাদ্য সহায়তা অব্যাহত:ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ৪৮ ঘণ্টা আগেই রংপুর সিটিতে পশুর বর্জ্য অপসারণ গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনাভাইরাসে আরো ৩০ জনের মৃত্যু হয়েছে এবং নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন এক হাজার ৩৫৬ জন।
  • মঙ্গলবার   ০৪ আগস্ট ২০২০ ||

  • শ্রাবণ ১৯ ১৪২৭

  • || ১৪ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

সর্বশেষ:
বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর জনগণ সব সম্ভাবনা হারিয়ে ফেলে- প্রধানমন্ত্রী ঠাকুরগাঁওয়ে রত্নাই সীমান্তের নাগর নদীতে বাংলাদেশির লাশ ভিয়েনায় `বঙ্গবন্ধু স্মৃতি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট` উদ্বোধন দেশবাসী নিরাপদে ঈদ উদযাপন করেছে- স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বাংলাদেশে ধর্ম যার যার উৎসব কিন্তু সবার- তথ্যমন্ত্রী
২৮১

৯৯৯-এ ফোন করে নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে বাল্য বিয়ে বন্ধ হলো 

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২ জুলাই ২০২০  

সরকারের টোল ফ্রি ৯৯৯ নম্বরে ফোন করে তথ্য দেওয়ায় নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলায় একটি বাল্যবিবাহ বন্ধ করেছে পুলিশ ও উপজেলা প্রশাসন। আজ বৃহস্পতিবার(২ জুলাই/২০২০) ঘটনাটি নিশ্চিত করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।


ঘটনার বিবরনে জানা যায়, গতকাল বুধবার(১ জুলাই/২০২০) রাত সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলার বড়ভিটা ইউনিয়নের দক্ষিণ বড়ভিটা ঘোন পাড়া গ্রামের দশ শ্রেনীর এক ছাত্রীর বাল্য বিয়ে দেয়া হচ্ছিল। বর পক্ষ এসেছে। খাওয়া দাওয়া চলছে। এমন সময় ৯৯৯ এ ফোন কল পেয়ে সেখানে পুলিশ সহ উপস্থিত হন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ। এ সময় বর পক্ষ বিয়ের আসরে আসার পথে ঘটনা বেগতিক দেখে পালিয়ে যায়। কনের বাড়ির আটক করা হয় বাবা ও মা সহ অভিভাবকদের। কনের বাবা সিরাজুল ইসলাম ও মা বিলকিস বেগম তাদের স্কুল পড়–য়া মেয়ে কুমকুমের বাল্য বিয়ের বিষয়টি ভুল বুঝতে পেরে ক্ষমা চেয়ে মেয়ের আর বাল্য বিয়ে দিবেনা বলে মুচলেকা প্রদান করেন। এ সময় ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কনের বাবা ও মা কে ১২ হাজার টাকা জরিমানা করেন। 


বিষয়টি নিশ্চিত করে কিশোরগঞ্জ থানার ওসি হারুন অর রশীদ জানান, ৯৯৯ থেকে কল পাওয়ার পর বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে অবগত করে সেখানে দ্রুত পুলিশ প্রেরন করি। এরপর নির্বাহী কর্মকর্তা সহ আমি ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে আমরা উক্ত বাল্য বিয়ে বন্ধ করতে সক্ষম হয়েছি।


উল্লেখ যে, টোল ফ্রি হিসেবে ৯৯৯ নম্বরে ফোন করে নাগরিকেরা পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও অ্যাম্বুলেন্স সেবা নিতে পারবেন। এ জন্য গ্রাহকের কোনো রকম খরচ লাগবে না। কোনো অপরাধ ঘটতে দেখলে, প্রাণনাশের আশঙ্কা দেখা দিলে, কোনো হতাহতের ঘটনা চোখে পড়লে, দুর্ঘটনায় পড়লে, অগ্নিকান্ডে ঘটনা ঘটলে, জরুরিভাবে অ্যাম্বুলেন্সের প্রয়োজন হলে ৯৯৯ নম্বরে ফোন করে সাহায্য চাওয়া যাবে। মোবাইল ফোন ও টেলিফোন উভয় মাধ্যমে ৯৯৯ নম্বরে ফোন করা যাবে। এটি একটি টোল ফ্রি সেবা। ৯৯৯ এ কল করতে কোন টাকা খরচ হয় না।

নীলফামারী বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর