• শনিবার   ১৩ আগস্ট ২০২২ ||

  • শ্রাবণ ২৯ ১৪২৯

  • || ১৪ মুহররম ১৪৪৪

সর্বশেষ:
পঞ্চগড়ে পাঁচ হাজার গাছ কেটে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা তিনমাস পর হারানো মোবাইল উদ্ধার করে ফিরিয়ে দিল পুলিশ এসডিজি অর্জনে সংসদ সদস্যদের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ: স্পিকার বৈধ পথে রেমিট্যান্স পাঠাতে সৌদি প্রবাসীদের প্রতি আহ্বান পদ্মা সেতু চালুর পর দর্শনার্থীতে মুখর বঙ্গবন্ধুর সমাধিসৌধ

১৬ বছরের ভাগনের সঙ্গে মামির পালিয়ে যাওয়ার অভিযোগ

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২৪ জুন ২০২২  

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় ছয় বছরের শিশু সন্তান রেখে ভাগনের সঙ্গে পালিয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে সেলিনা আকতার (২৫) নামের এক গৃহবধূর বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে।

হাতীবান্ধা উপজেলার টংভাঙ্গা ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় শুক্রবার (২৪জুন) বিকেলে হাতীবান্ধা থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন স্বামী আবদুল্লাহ।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ২০১৫ সালে সেলিনা আকতারের সঙ্গে বিয়ে হয় আবদুল্লাহর। বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) সকাল ১০ টার দিকে মেয়ের স্কুলড্রেস কেনার কথা বলে বাড়ি থেকে উধাও হন সেলিনা আকতার। এরপর আত্মীয়-স্বজন ও বিভিন্ন জায়গায় খোঁজ করে না পেয়ে থানায় অভিযোগ করেন স্বামী আবদুল্লাহ। তার অভিযোগ, পরকীয়া করে ভাগনের (আব্দুল্লাহর চাচাতো বোনের ছেলে) সঙ্গে পালিয়ে গেছেন সেলিনা।

সেলিনা আকতার হাতীবান্ধা উপজেলার টংভাঙ্গা ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের একাব্বর আলীর মেয়ে। ওই কিশোর (১৬) এসএসসি পরীক্ষার্থী।

আবদুল্লাহর দুলাভাই আনছার আলী বলেন, ‘দুই বছর ধরে ওই কিশোরের সঙ্গে সেলিনার পরকীয়া সম্পর্ক চলছে। এনিয়ে অনেকবার স্থানীয়ভাবে সালিশ হয়েছে। এমনকী একমাস আগেও সালিশ হয়েছে। কিন্তু কোনোভাবেই তাদের ভালোবাসার সম্পর্ক ছিন্ন করা গেলো না।’

সেলিনার স্বামী আবদুল্লাহ বলেন, ‘৬ বছরের একটি মেয়েকে রেখে ভাগনের হাত ধরে সেলিনা কীভাবে পালালো? যাওয়ার সময় সে আমার টাকা-পয়সা সব নিয়ে গেছে। এখন আমি অসহায়। আমি কীভাবে মানুষকে মুখ দেখাবো?’ একথা বলে কান্নায় ভেঙে পড়েন তিনি।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে হাতীবান্ধা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এরশাদুল আলম বলেন, এ ঘটনায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন সেলিনার স্বামী আবদুল্লাহ। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।