• শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৭ ১৪৩১

  • || ১৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

‘এবার এক লাখ মেট্রিক টন আলু রফতানি হবে’

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২০ মার্চ ২০২৩  

 
কৃষি মন্ত্রণালয়ের সচিব ওয়াহিদা আক্তার বলেছেন, এবার দেশ থেকে এক লাখ মেট্রিকটনেরও বেশি আলু বিদেশে রফতানি করা হবে। রোববার দুপুরে রংপুরের পীরগাছা উপজেলার বেলতলী বিরাহিম এলাকায় উত্তম চাষাবাদ পদ্ধতিতে উৎপাদিত আলু রফতানি কার্যক্রমের উদ্বোধন শেষে তিনি একথা বলেন।

তিনি বলেন, গত বছর প্রায় ৭৮ হাজার মেট্রিকটন আলু বিদেশে রফতানি করেছি। আশা করছি দিনদিন আমাদের এ ধারা অব্যাহত থাকবে।

কৃষি সচিব বলেন, রফতানি বৃদ্ধি সরকারের অন্যতম লক্ষ্য। আলু রফতানিতে সরকার উৎসাহ প্রদান করছে। এফএও এর এমএমআই এবং ডিএই, বিএডিসি, আলু রফতানিকারক সমিতি (বিপিইএ) এবং উৎপাদনকারী সংগঠনগুলোর যৌথ প্রচেষ্টা ধারাবাহিকভাবে অব্যাহত রাখায় তাদের প্রশংসা করি। তৃণমূল পর্যায়ে ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের উন্নয়নে এবং দেশের স্বার্থে রফতানি প্রক্রিয়া সহজ করতে সরকার প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

তিনি বলেন, আমরা বর্তমানে মালয়েশিয়া ও মধ্যপ্রাচ্যের দেশসহ ২৮টি দেশে আলু রফতনি করছি। আমাদের লক্ষ্য রাশিয়ার বড় বাজার ধরা। রাশিয়া, ফিজি এবং ভিয়েতনামে আলু রফতানি শুরু করার চেষ্টা অব্যাহত আছে। গত চার বছর ধরে রংপুরের আলু উৎপাদনকারী সংগঠনগুলো এফএওর সহায়তায় নিরাপদ ও স্বাস্থ্যকর চাষাবাদ ও প্রক্রিয়াজাতকরণের সমন্বিত নীতি উত্তম চাষাবাদ পদ্ধতি বিষয়ে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে তা কাজে লাগিয়ে রফতানি-মানের আলু উৎপাদন করছে।

কৃষকরা এ ধারা অব্যাহত রাখবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন কৃষি মন্ত্রণালয়ের সচিব।

মাঠ পর্যায়ে এফএও, সরকারের প্রতিনিধি, আলু উৎপাদনকারী সংগঠন এবং কৃষকদের অংশগ্রহণে আলু উৎপাদন ও রফতানি বিষয়ে একটি অধিবেশন অনুষ্ঠিত হয়। 

এতে কৃষি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (নীতি পরিকল্পনা ও সমন্বয়) রুহুল আমিন তালুকদার, বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান ও অতিরিক্ত সচিব আবদুল্লাহ সাজ্জাদ, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের মহাপরিচালক বাদল চন্দ্র বিশ্বাস, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের রংপুর অঞ্চলের অতিরিক্ত পরিচালক আফতাব হোসেন, এগ্রোমি এক্সপোর্ট-ইমপোর্ট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সালমা রহমান, বাংলাদেশ আলু রফতানিকারক সমিতির (বিপিইএ) সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন, বিরাহিম আলু উৎপাদনকারী সমবায় সমিতির আলু চাষি সালমা আক্তার আদুরী আলোচক হিসেবে অংশ নেন।

জানা যায়, গত বছর বাংলাদেশে ১ কোটি ১০ লাখ মেট্রিক টন আলু উৎপাদন হয়েছে, যা চীন এবং ভারতের পরে এশিয়ার তৃতীয় বৃহত্তম উৎপাদনকারী দেশ হিসেবে স্বীকৃতি দেয়। এর মধ্যে ৮ লাখ মেট্রিক টন আলু রফতানি করা হয়েছে।

মালয়েশিয়া থেকে গত বছর অনেক চাহিদা ছিল, যার ফলে বাংলাদেশের আলু রফতনির এক তৃতীয়াংশেরও বেশি সেখানে (৩৮ শতাংশ)। এরপর নেপাল ও শ্রীলঙ্কা (প্রত্যেকটিতে ২০ শতাংশ) গিয়েছে। বাংলাদেশ মিয়ানমার (৯ শতাংশ), সিঙ্গাপুর (৪ শতাংশ) ছাড়াও সংযুক্ত আরব আমিরাত, ব্রুনাই, কাতার, বাহরাইন, কুয়েত, ওমান, জর্ডান এবং লেবাননে আলু রফতানি করে।