• সোমবার ২০ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৬ ১৪৩১

  • || ১১ জ্বিলকদ ১৪৪৫

যাচ্ছিলেন আত্মীয়র জানাজায়,পথেই প্রাণ গেল বাবা-ছেলেসহ ৩ জনের

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৩১ মে ২০২৩  

পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জ উপজেলায় আত্মীয়র জানাজায় যাওয়ার পথে গাছের গুড়ি বোঝাই ট্রাক্টরের ধাক্কায় তিন মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন৷ এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো এক আরোহী।

বুধবার ভোরে দেবীগঞ্জ উপজেলার দেবীডুবা ইউনিয়নের চুলিয়ারমোড় এলাকায় সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত তহিদুল ইসলাম ও তার বাবা আলমাস আলী পঞ্চগড়ের বোদা পৌরসভার তিতোপাড়া এলাকার বাসিন্দা এবং আমিন শেখ একই এলাকার রজব আলীর ছেলে। আহত হয়েছেন রজব আলীর ছোট ছেলে সালেকুর রহমান৷ 

জানা যায়, মঙ্গলবার রাতে পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জ উপজেলার দেবীডুবা ইউনিয়নের লক্ষীরহাট চুলিয়ার মোড় নতুনপাড়া এলাকায় তহিদুলের শ্বশুর মানিক মারা যান।  সকালে এক মোটরসাইকেলে শ্বশুরের জানাজায় যাচ্ছিলেন তহিদুল ও তার বাবা আলমাস এবং দুই মামা শ্বশুর আমিন ও ছালু শেখ। এ সময় তারা দেবীগঞ্জের লক্ষীহাট তাতিপাড়া (চুলিয়ার মোড়) এলাকায় পৌঁছালে দাঁড়িয়ে থাকা গাছের গুড়ি বোঝাই ট্রাক্টরের সঙ্গে মোটরসাইকেলটির ধাক্কা লাগে। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান তহিদুল ও তার মামা শ্বশুর আমিন শেখ। গুরুতর আহত অবস্থায় বাবা আলমাস আলী ও আরেক মামা শ্বশুর ছালুকে রংপুর মেডিকেলে নেয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান আলমাস আলী।

নিহত তহিদুলের চাচা আব্দুল লতিফ বলেন, মোটরসাইকেলে শ্বশুরের জানাজায় যাচ্ছিলেন তহিদুল ও তার বাবা এবং দুই মামা শ্বশুর। পথে ট্রাক্টরের সঙ্গে মোটরসাইকেলের সংঘর্ষ হলে আমার ভাতিজা, বড়ভাই ও এক বেয়াই মারা যান৷ আমরা এ মৃত্যু মেনে নিতে পারছি না৷ 

দেবীগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার রাজিব ভূঁইয়া বলেন, খবর পেয়ে স্থানীয়দের সহযোগিতায় দুজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। পরে রংপুর মেডিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরো একজন মারা যান।

দেবীগঞ্জ থানার ওসি জামাল হোসেন বলেন, খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করেছি। দুজন ঘটনাস্থলে নিহত হয়েছেন আর একজন রংপুর মেডিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা করা হয়েছে।