• রোববার   ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ ||

  • আশ্বিন ৪ ১৪২৮

  • || ১০ সফর ১৪৪৩

সর্বশেষ:
শেখ হাসিনার নেতৃত্বে প্রত্যেক নাগরিকের ভাগ্যের উন্নয়ন হয়েছে-সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের ৩য় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে রক্তদান কর্মসূচি শেখ হাসিনার নেতৃত্ব ও দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ককে গুরুত্ব দিয়ে আসছে সৌদি আরব প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন হাকিমপুরের মৃৎশিল্পীরা দেশের ৬৮টি কারাগারের ৮৫ হাজার কারাবন্দিকে টিকা দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু

এ সপ্তাহেই শুরু পূর্ণাঙ্গ গণটিকা ও নিবন্ধন

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৬ জুলাই ২০২১  

দেশের ১২টি সিটি করপোরেশন এলাকায় কোভ্যাক্স সুবিধায় পাওয়া আমেরিকার মডার্নার তৈরি টিকা এবং জেলা-উপজেলায় চীন থেকে কেনা সিনোভ্যাক দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন ভ্যাকসিন ডেপ্লয়মেন্ট কমিটির সদস্যসচিব ডা. শামসুল হক।

সরকার মডার্না ও সিনোফার্মের টিকা দিয়ে দেশজুড়ে আবার গণটিকাদান কর্মসূচি শুরু করতে যাচ্ছে। এর জন্য বন্ধ থাকা নিবন্ধন ফের শুরু হচ্ছে আগামী বৃহস্পতিবার। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে। এবার অগ্রাধিকার ক্যাটাগরি ছাড়াও যাঁদের বয়স ৩৫ বছর হয়েছে তাঁরাও টিকা দিতে রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন।

গতকাল সোমবার ড. শামসুল হক সাংবাদিকদের বলেন, ‘রবিবার আমাদের মিটিং হয়েছে। আমাদের সিদ্ধান্তগুলো তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়কে জানানো হচ্ছে। শিগগিরই টিকার জন্য নিবন্ধনপ্রক্রিয়া চালু হলে নিবন্ধন করে টিকা নেওয়া যাবে।’

তিনি বলেন, ‘কমিটি সিদ্ধান্ত নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র থেকে আসা কোভ্যাক্স সুবিধায় পাওয়া মডার্নার টিকা দেওয়া হবে দেশের ১২টি সিটি করপোরেশন এলাকায় আর চীন থেকে কেনা সিনোফার্মের টিকা দেওয়া হবে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে।’

গত ৭ ফেব্রুয়ারি দেশে করোনার টিকাদান কর্মসূচি শুরু হয়। মাঝে কিছুদিন স্বল্পতার কারণে টিকাদান কর্মসূচি বন্ধ ছিল। কয়েক দিন আগে মডার্না ও সিনোফার্মের ৪৫ লাখ টিকা দেশে পৌঁছায় আবারও টিকাদান কর্মসূচি শুরু করতে যাচ্ছে সরকার।

শামসুল হক বলেন, ‘আগেরবারের মতো এবারও উপজেলা পর্যন্ত টিকাদান কর্মসূচি নিয়ে যাওয়া হবে। আমাদের হাতে এখন দুই ধরনের ভ্যাকসিন রয়েছে।’

তিনি জানান, মডার্নার টিকা টেম্পারেচার সেনসিটিভ। মাইনাস ২০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে রাখতে হয়। তাই এ টিকা দেওয়া হবে সিটি করপোরেশন এলাকায়। সিটি করপোরেশন এলাকার আওতায় থাকা সাধারণ মানুষ এই টিকার আওতায় আসবেন। আর সিনোফার্মের টিকা রাখা যায় ২ থেকে ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। তাই জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে সিনোফার্মের টিকা দেওয়া হবে। এ ছাড়া একই জায়গায় যদি দুই ধরনের টিকাদান কর্মসূচি চলেতাহলে কিছুটা সমস্যা তৈরি হতে পারে। তাপমাত্রার বিষয় তো রয়েছেই। সে কারণে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

৩৫ বছর বয়স হলেই সবাই নিবন্ধন করে টিকা নিতে পারবেন জানিয়ে শামসুল হক বলেন, ‘অগ্রাধিকার তালিকায় প্রথমে ১৮ ক্যাটাগরির মানুষ ছিল। এরপর সেখানে বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক শিক্ষার্থী, প্রবাসী শ্রমিক, মেডিক্যাল-নার্সিং শিক্ষার্থীদের অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। এবার এ তালিকায় কৃষক, শ্রমিক ও শিক্ষার্থী—এ তিন ক্যাটাগরির জনগোষ্ঠীর মানুষকে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে টিকা দেওয়ার নির্দেশনা রয়েছে প্রধানমন্ত্রীর। তাই এদেরও এবার টিকাদান কর্মসূচির আওতায় নিয়ে আসা হচ্ছে। কৃষক, শ্রমিকদের তালিকার জন্য কৃষি মন্ত্রণালয়, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় এবং শিল্প ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয়কে চিঠি দেওয়া হবে। তারা যে তালিকা দেবে, সে তালিকা অনুযায়ী টিকা দেওয়া হবে।’

জানা গেছে, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর শিগগিরই মডার্নার টিকা দেওয়া প্রশিক্ষণ কার্যক্রম শেষ করবে। মাঝখানের সময়টিতে মডার্না ও সিনোফার্মের টিকা দেশজুড়ে পৌঁছে দেওয়া হবে। সিনোফার্মের টিকা দেওয়ার ক্ষেত্রেও উপজেলা ও জেলা পর্যায়ে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। সে কাজটিও এরই মধ্যে শুরু করা হবে।