• মঙ্গলবার   ২৮ জুন ২০২২ ||

  • আষাঢ় ১৪ ১৪২৯

  • || ২৭ জ্বিলকদ ১৪৪৩

সর্বশেষ:
পদ্মাসেতু জাতীয় সম্পদ, বিরোধিতাকারীরা জাতির শত্রু: হাইকোর্ট নিজের ভাগ্য নয়, জনগণের ভাগ্য বদলই একমাত্র লক্ষ্য: প্রধানমন্ত্রী পদ্মা সেতুতে মোটরসাইকেল নিষিদ্ধ যুক্তরাজ্যকে এক লাখ রোহিঙ্গা নিতে অনুরোধ বাংলাদেশের বিএনপির নেতিবাচক রাজনীতি পদ্মার গহীনে নিমজ্জিত: ওবায়দুল কাদের

‘বাংলা ভাষা, সাহিত্য ও সংস্কৃতিই আমাদের জাতিসত্ত্বার ভিত্তি’

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২৯ মে ২০২২  

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, বাংলা ভাষা, সাহিত্য ও সংস্কৃতিই আমাদের জাতিসত্ত্বার ভিত্তি।

শনিবার ঢাকায় শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে বৃহত্তর ময়মনসিংহ সাংস্কৃতিক ফোরাম আয়োজিত আন্তজেলা সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।
 
মন্ত্রী বলেন, সৃজনশীলতা বিশ্বের অন্যতম শ্রেষ্ঠ সম্পদ। কোনো কোনো দেশ তাদের জন্য সৃজনশীল কর্মসূচি ঘোষণা করে জাতীয় সমৃদ্ধির লক্ষ্য অর্জন করছে। আমাদের জাতিসত্ত্বার ভিত্তিও বাংলা ভাষা, সাহিত্য ও সংস্কৃতি। তাই আমাদের নতুন প্রজন্ম ও তাদের অভিভাবকদের ভাষা, সাহিত্য ও সংস্কৃতি চর্চায় সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিতে হবে। 

তিনি আরো বলেন, ডিজিটাল যুগে ইন্টারনেট হচ্ছে জ্ঞানের শ্রেষ্ঠ ভান্ডার। পাঠ্য বইয়ের জ্ঞানের পরিধি এখন আর পৃথিবীজুড়ে বিদ্যমান নেই। লেখাপড়ার বাইরে ছেলে-মেয়েদের মধ্যে সৃজনশীল প্রতিভা বিকাশে অভিভাবকসহ সাংস্কৃতিক সংগঠনসমূহের ভূমিকা অপরিসীম।

জ্ঞান ভিত্তিক ডিজিটাল সাম্যসমাজ প্রতিষ্ঠায় শিশু-কিশোরদের শিক্ষা ও সংস্কৃতিতে যথাযথ বিনিয়োগের প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্বারোপ করেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী।

মোস্তাফা জব্বার বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠার প্রস্তুতি পর্ব তৈরি হয়েছে। পৃথিবীর ৮০টি দেশে আমরা সফটওয়্যার রফতানি করছি।

তিনি আরো বলেন, পৃথিবীতে বাঙালির পরিচয় সুদৃঢ় করতে পেয়েছি ভাষা। জারি-সারি, ভাওয়াইয়া-ভাটিয়ালি, বাউল গান, পালা গান, পুঁথিপাঠ বাঙালির আত্মপরিচয়ের সঙ্গে জুড়ে আছে। বাঙালির এ প্রাচীন সম্পদ রক্ষায় এগুলো চর্চা করতে হবে। বৃহত্তর ময়মনসিংহ সাংস্কৃতিক ফোরাম সর্বোচ্চ আন্তরিকতার সঙ্গে কাজটি করে যাচ্ছে।

অনুষ্ঠানে বৃহত্তর ময়মনসিংহ সাংস্কৃতিক ফোরামের নির্বাহী সভাপতি সাবেক সিনিয়র সচিব আবদুস সামাদ, ময়মনসিংহ বিভাগীয় সমিতির সভাপতি সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ম. হামিদ, বৃহ্ত্তর ময়মনসিংহ সাংস্কৃতিক ফোরামের সাধারণ সম্পাদক রাশেদুল হাসান শেলী, যুগ্ম মহাসচিব আবদুল লতিফ রেজা, ফেরামের ময়মনসিংহ জেলা শাখার সভাপতি শাহাদাৎ হোসেন খান হীলু, কিশোরগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি মু. আব্দুল লতিফ এবং ফোরামের সঙ্গীত ও শিল্পকলা সম্পাদক মো. শহীদুল আলম লস্কর বক্তব্য রাখেন।